দেশজুড়ে অক্সিজেন সংকট, সাহায্যে নামলেন আনন্দ মহিন্দ্রা, চালু করলেন ‘অক্সিজেন অন হুইলস’

মোট পাঁচটি টুইট করে গোটা প্রকল্পের বর্ণনা দিয়েছেন শিল্পপতি। তিনি জানিয়েছেন, পুণে এলাকায় ২০টি বলেরো গাড়ি এই অক্সিজেন সরবরাহের কাজ করছে।

দেশজুড়ে অক্সিজেন সংকট, সাহায্যে নামলেন আনন্দ মহিন্দ্রা, চালু করলেন 'অক্সিজেন অন হুইলস'
অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে তৈরি গাড়ি।

একদিকে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের দাপট, অন্যদিকে দেশজুড়ে অক্সিজেন নিয়ে চলছে হাহাকার। ইতিমধ্যেই অক্সিজেনের অভাবে অনেকের মৃত্যু হয়েছে। বিভিন্ন হাসপাতালগুলোতে নেই পর্যাপ্ত বেড। সব মিলিয়ে এক বিপর্যস্ত অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে ভারত।

কিন্তু এমন কঠিন পরিস্থিতিতে একদম ‘মসিহা’- র মতো এগিয়ে এসেছেন আনন্দ মহিন্দ্রা। শিল্পপতি এবং মহিন্দ্রা গ্রুপের চেয়ারম্যান আনন্দ মহিন্দ্রা চালু করেছেন ‘অক্সিজেন অন হুইলস’ প্রকল্প। কোভিডের দ্বিতীয় ধাক্কাতেও প্রাথমিক ভাবে মহারাষত্রেই আক্রান্তের সংখ্যা ছিল সবচেয়ে বেশি। তাই স্বভাবতই সেখানে অক্সিজেনের আকালও অনেকটাই। এই জটিল পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় জায়গায় সঠিক সময়ে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়ার কাজ শুরু করেছেন আনন্দ মহিন্দ্রা।

যেখানে অর্থাৎ যেসব প্ল্যান্টে অক্সিজেন উৎপাদন হচ্ছে বা যেখানে অক্সিজেন সিলিন্ডার পাওয়া যাচ্ছে বা মজুত রয়েছে, সেখানে থেকে ট্রাকে করে বিভিন্ন হাসপাতালে এবং লোকের বাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়াই ‘অক্সিজেন অন হুইলস’ প্রকল্পের মূল লক্ষ্য। স্থানীয় এলাকা দিয়েই চলছে এইসব ট্রাকের যাতায়াত।

মোট পাঁচটি টুইট করে গোটা প্রকল্পের বর্ণনা দিয়েছেন শিল্পপতি। তিনি জানিয়েছেন, পুণে এলাকায় ২০টি বলেরো গাড়ি এই অক্সিজেন সরবরাহের কাজ করছে। এছাড়াও ৬১টি জাম্বো অক্সিজেন সিলিন্ডার ইতিমধ্যেই ১৩টি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর পাশাপাশি মুম্বই, থানে, নাসিক, নাগপুর এই চারটি অঞ্চলে ৫০ থেকে ৭৫টি বলেরো গাড়ি পাঠানো হচ্ছে। আপাতত মহারাষ্ট্রেই এই পরিষেবা চালু করেছে মহিন্দ্রা গ্রুপ। আগামী দিনে অন্যান্য রাজ্যেও নেটওয়ার্ক বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে সংস্থার।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla