‘আজ ভ্যাক্সিন নিয়েই যাব’, কুপন কম বিলি করা নিয়ে বিক্ষোভ টিকাপ্রাপকদের, উত্তেজনা জলপাইগুড়ি ফার্মেসি কলেজে

টিকাপ্রাপক মালা রায় বলেন,"এখন প্রায় লকাডাউন। সেই কতদূর থেকে হেঁটে হেঁটে এসেছি। ভোর চারটে থেকে এসে দাঁড়িয়ে আছি। এখন শুনছি আর কুপন দেওয়া হবে না। রোজ রোজ হয়রানি! এভাবে কবে ভ্য়াক্সিন পাব!"

'আজ ভ্যাক্সিন নিয়েই যাব', কুপন কম বিলি করা নিয়ে বিক্ষোভ টিকাপ্রাপকদের, উত্তেজনা জলপাইগুড়ি ফার্মেসি কলেজে
বিক্ষোভকারী টিকাপ্রাপকরা, নিজস্ব চিত্র
tista roychowdhury

|

Jun 02, 2021 | 6:43 PM

জলপাইগুড়ি: করোনাকালে টিকাররণকে (COVID Vaccination) কেন্দ্র করে রাজ্যজুড়ে হয়রানির ছবি সামনে এসেছে। এ বার ভ্য়াক্সিন কুপন বিলি করাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল জলপাইগুড়ি ফার্মেসি কলেজে। টিকাপ্রাপকদের অভিযোগ, নির্ধারিত ভ্যাক্সিনের কুপন বিলি হচ্ছে না। ফলে, ভোররাতে লাইন দিয়ে দাঁড়িয়েও হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে।

বুধবার, টিকাপ্রাপকরা অভিযোগ করেন, ভোররাত থেকে ভ্য়াক্সিনের কুপন পাওয়ার জন্য ফার্মেসি কলেজে লাইন দেন। সরকারি নিয়ম মেনে, ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়স্কদের মধ্যে সম্মুখ যোদ্ধাদের টিকাকরণ চলছে। সেই তালিকায় রয়েছেন, ব্যবসায়ী, পরিচারিকা, সাংবাদিক-সহ একাধিক পেশার মানুষ। টিকাকরণ কেন্দ্রের তরফে আগেই জানানো হয়েছিল প্রতিদিন মোট ৪০০ জনকে টিকা দেওয়া হবে। সেই মতোই এদিন ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু, ২৫০টি ভ্য়াক্সিন কুপন বিলির পরেই জানিয়ে দেওয়া হয়, আর কুপন দেওয়া হবে না। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন টিকাপ্রাপকরা। তাঁদের বিক্ষোভের জেরে আরও ১০০জনকে কুপন বিলি করা হয়। কিন্তু তারপরেও লাগাতার পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে থাকলে অশান্তি এড়াতে কুপন বিলির সংখ্য়া বাড়িয়ে ৩৮০ করা হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় জলপাইগুড়ি থানার পুলিশ।

টিকাপ্রাপক মালা রায় বলেন,”এখন প্রায় লকাডাউন। সেই কতদূর থেকে হেঁটে হেঁটে এসেছি। ভোর চারটে থেকে এসে দাঁড়িয়ে আছি। এখন শুনছি আর কুপন দেওয়া হবে না। রোজ রোজ হয়রানি! এভাবে কবে ভ্য়াক্সিন পাব!” অন্য আরেক টিকাগ্রাহক শ্যামলী রায় বলেন, “আমরা কাজ করে খেটে খাই। রোজ রোজ কি ছুটি পাব! রোজ এসে লাইন দিচ্ছি, রোজ লাইন দিচ্ছি। আজ ফিরব না। এখানেই দাঁড়িয়ে থাকব। ভ্যাক্সিন নিয়ে তবেই যাব। আমরা এখনও ভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজটাও পাইনি। রোজ রোজ এমন চলতে পারে না।” যদিও, কম কুপন বিলির অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, বুধবার মোট ৪০০ টি কুপন বিলি করা হয়েছে। কিন্তু বিক্ষোভের জেরে পরে সেই সংখ্যা বাড়িয়ে ৪৮৫( COVID Vaccination) করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, কেবল জলপাইগুড়িতেই নয়, কোচবিহারে পুরসভায় টিকা না পেয়ে বিক্ষোভ করেন গ্রাহকরা। প্রায় ১০০ জনকে টিকা দেওয়ার পর জানানো হয়, আর টিকা দেওয়া (COVID Vaccination) হবে না। এর জেরেই কার্যত বিক্ষোভ দেখান টিকাপ্রাপকরা। উল্লেখ্য, রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত শেষ বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে নয় হাজারের কাছাকাছি পৌঁছেছে। তবে অব্যাহত মৃত্যুমিছিল। গত একদিনে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৩৭ জনের।

আরও পড়ুন: ‘শুভেন্দু হলদি নদীর জলে কত হাজার কোটি ডুবিয়ে রেখেছে ও-ই জানে!’ প্রশংসিত আলাপন, ‘মদন’-বাণে বিদ্ধ অধিকারী পুত্র

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla