Bangladeshi Arrest: দুর্নীতি মামলায় ধৃত পুলিশকর্তা সোহেল রানার সঙ্গে দেখা করতে এসে পুলিশের জালে আরও এক বাংলাদেশি

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: সৈকত দাস

Updated on: Sep 26, 2021 | 11:12 AM

Sohail Rana: ১,১০০ কোটি টাকা আর্থিক দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত ও ধৃত বাংলাদেশের (Bangladesh) পুলিশকর্তা সোহেল রানা (Sohel Rana)-র সঙ্গে দেখা করতে এসে শিলিগুড়ি (Siliguri)-তে পুলিশের জালে আটক এক বাংলাদেশি।

Bangladeshi Arrest: দুর্নীতি মামলায় ধৃত পুলিশকর্তা সোহেল রানার সঙ্গে দেখা করতে এসে পুলিশের জালে আরও এক বাংলাদেশি
পুলিশের জালে বাংলাদেশের পুলিশের অফিসার সোহেল রানা। নিজস্ব চিত্র।

শিলিগুড়ি: ১,১০০ কোটি টাকা আর্থিক দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত ও ধৃত বাংলাদেশের (Bangladesh) পুলিশকর্তা সোহেল রানা (Sohel Rana)-র সঙ্গে দেখা করতে এসে শিলিগুড়ি (Siliguri)-তে পুলিশের জালে আটক এক বাংলাদেশি। আটক ব্যক্তি শিলিগুড়ি একটি হোটেলে ঘাঁটি গেড়ে ছিলেন বলে পুলিশ সূত্রে খবর। সেখান থেকেই তিনি মেখলিগঞ্জের জেলে বন্দি সোহেলের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালাচ্ছিলেন। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ বাহারুল।

উল্লেখ্য, কয়েক আগেই মেখলিগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে এদেশে প্রবেশ করে গ্রেফতার হন সোহেল রানা। তিনি নেপালের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। পরবর্তীতে তদন্তে দেখা যায় তিনি বাংলাদেশের পুলিশের এক উচ্চপদস্থ কর্তা। সে দেশে ১,১০০ কোটি টাকা আর্থিক দুর্নীতির একাধিক মামলায় অভিযুক্ত তিনি। তার পরেই নড়েচড়ে বসে ভারতের পুলিশ প্রশাসন। যোগাযোগ করা হয় বাংলাদেশেও।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মোহাম্মদ বাহারুল গত ৯ সেপ্টেম্বর ভারতে আসেন। শিলিগুড়িতে ক’দিন থেকে তিনি কলকাতা যাচ্ছেন জানিয়ে হোটেল ছেড়ে চলে যান। এর দিন তিনেক পর ফের ফিরে আসেন তিনি। জানান গৌহাটি থেকে ফিরছেন তিনি। আদতে বাংলাদেশের বাসিন্দা এবং তার কাছে বৈধ পাসপোর্টও রয়েছে। পুলিশের ধারণা সোহেল রানাকে কোন বার্তা পৌঁছে দিতে বা সোহেল রানার কাছ থেকে কোনও গোপন তথ্য জানতেই তিনি শিলিগুড়ি এসে ঘাঁটি গেড়েছেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, কোচবিহারের চ্যাংড়াবান্ধা সীমান্ত থেকে বাংলাদেশের বনানী থানার ওই পুলিশ অফিসারকে আটক করা হয়েছিল। বিএসএফ তাঁর বিরুদ্ধে অবৈধ ভাবে অনুপ্রবেশের অভিযোগ আনে। পরে তদন্তে জানা যায়, বাংলাদেশের ই-কমার্স সংস্থা ই-অরেঞ্জের মালিক সোনিয়া মেহজাবিনের ভাই সোহেল রানা। তিনি নিজে একজন পুলিশ কর্তা। এদিকে আর্থিক কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত ই-অরেঞ্জ সংস্থার বিরুদ্ধে গ্রাহকদের ১১০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের হয়েছে বাংলাদেশে। এই মামলায় সোনিয়া মেহজাবিন ও তার স্বামী মাসুকুর রহমান এখন সে দেশে জেলবন্দি রয়েছেন। অন্যদিকে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে দিন কয়েক আগে সোহেল রানাকে চ্যাংড়াবান্ধা সীমান্ত থেকে গ্রেফতার করে বিএসএফ। অভিযোগ, দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল অঞ্চল দিয়ে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করেন সোহেল। এখান থেকে নেপাল পালানোর পরিকল্পনা ছিল তাঁর বলে জানা গিয়েছে। বিএসএফ জানায়, গ্রেফতারের পর রানা তাদের জানিয়েছেন পুলিশ বিভাগ থেকে কয়েক দিনের ছুটি নিয়ে তিনি সীমান্তের দিকে রওনা হন। তাঁর কাছ থেকে বিভিন্ন দেশের ভিসা পাওয়া গিয়েছে বলে জানা যায়।

এদিকে এই প্রেক্ষিতে শিলিগুড়ি থেকে গ্রেফতার হলেন এক বাংলাদেশি ব্যক্তি। এখন তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশ। পুলিশের ধারনা, আটক ব্যক্তি শিলিগুড়ি একটি হোটেলে ঘাঁটি গেড়ে ছিলেন। সেখান থেকেই তিনি মেখলিগঞ্জের জেলে বন্দি সোহেলের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালাচ্ছিলেন।

আরও পড়ুন: Crime News: ভরাবাজারে কাতরাচ্ছেন মহিলা! স্বামীর ‘প্রেমিকা’র মুখ ব্লেড দিয়ে ক্ষতবিক্ষত করে পালাল স্ত্রী 

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla