KLO: স্বাধীনতা দিবসের আগে পৃথক কামতাপুর চেয়ে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে ভিডিয়ো বার্তা জীবনের

Jalpaiguri: স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষপূর্তির মাত্র ৩০ ঘণ্টা আগে পৃথক কামতাপুর রাজ্য চেয়ে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে ভিডিয়ো বার্তা দিলেন কেএলও চেয়ারম্যান জীবন সিংহ।

KLO: স্বাধীনতা দিবসের আগে পৃথক কামতাপুর চেয়ে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে ভিডিয়ো বার্তা জীবনের
কেএলও'র নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Aug 14, 2022 | 12:27 PM

জলপাইগুড়ি: একাধিকবার গোপন ডেরা থেকে ভিডিয়ো বার্তা দিতে শোনা গিয়েছিল নিষিদ্ধ জঙ্গী সংগঠন কেএলও (কামতাপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশন) সুপ্রিমো জীবন সিংহকে। পৃথক কামতাপুর রাজ্য চেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে হুঁশিয়ারি বার্তাও দিতে শোনা যায় তাঁকে। আবারও একই দাবিতে সরব হলেন জীবন। এবারও দিলেন ভিডিয়ো বার্তা। তবে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে সেই বার্তা পাঠালেন তিনি। একই সঙ্গে শান্তি চুক্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আবেদন জানালেন কেএলও চেয়ারম্যান। যদিও, এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি টিভি৯ বাংলা

স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষপূর্তির মাত্র ৩০ ঘণ্টা আগে পৃথক কামতাপুর রাজ্য চেয়ে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে ভিডিয়ো বার্তা দিলেন কেএলও চেয়ারম্যান জীবন সিংহ। একই সঙ্গে ‘পিস প্রসেস’ প্রক্রিয়াকে অক্ষুন্ন রেখে ১৫ অগস্ট শোক দিবস হিসেবে পালনের আবেদন রাখল নিষিদ্ধ জঙ্গী গোষ্ঠী কেএলও-র চেয়ারম্যান জীবন সিংহ। এই মর্মে তাঁর চারটি ভিডিও বার্তা ভাইরাল হয়েছে ইতিমধ্যে।

ভিডিও বার্তায় জীবন সিংহ কে বলতে শোনা যাচ্ছে, কোচ কামতাপুর রাজ্যকে সমর্থন করেন জেপি নাড্ডা এবং আরএসএস। শুধু তাই নয় কোচ কামতাপুর রাজ্যকে সমর্থন জানিয়েছেন বিজেপির একাধিক সাংসদ এবং বিধায়ক। তাই তাঁর দাবি কোচবিহার মার্জার এগ্রিমেন্ট অনুযায়ী তাঁদের কোচ কামতাপুর রাজ্য ফিরিয়ে দেওয়া হোক। যাতে তাঁরাও স্বাধীনতার অমৃত পান করতে পারেন।’ পাশাপাশি তিনি বলেছেন, এই লক্ষে শান্তি চুক্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে চলুক। তিনি আক্ষেপ করে আরও বলেছেন, ‘ভারতবর্ষ স্বাধীন হওয়ার ৭৫ বছর হয়ে গেলেও আমরা অর্থাৎ কোচ কামতাপুরের বাসিন্দারা কিন্তু বঞ্চিতই রয়ে গেলাম। আমরা স্বাধীনতা পেলাম না। তাই শপথ নিন যে কোনও মূল্যে আমরা আমাদের কোচ কামতাপুর রাজ্য পুনরুদ্ধার করব।’

এই খবরটিও পড়ুন

এই বিষয়ে বিজেপি জেলা সভাপতি বাপি গোস্বামী বলেন, ‘ভারতীয় জনতা পার্টির সমস্ত নেতৃত্ব একটাই কথা বলেন সব সমস্যার সমাধান মিটবে আলোচনার মাধ্যমে। সংঘাত নয়, আলোচনার মাধ্যমেই মিটবে সমস্যা। আমরা চাই মোদীজীর হাত ধরে সমগ্র ভারতবর্ষের জনজাতির উন্নয়ন হোক।’

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla