Fire: কোনও কিছু বুঝে ওঠার আগেই ছড়িয়ে পড়ল আগুন, বারাসতে গুরুতর জখম মহিলা

barasat: মনে করা হচ্ছে স্টোভ থেকেই কোনও ভাবে আগুন ধরে গিয়েছিল।

Fire: কোনও কিছু বুঝে ওঠার আগেই ছড়িয়ে পড়ল আগুন, বারাসতে গুরুতর জখম মহিলা
বারাসতে আগুনে জখম মহিলা

বারাসত: বারাসতের (Barasat) একটি বাড়িতে ভয়াবহ অগ্নি-দুর্ঘটনা। ঘটনায় গুরুতর জখম এক মহিলা। আহতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে (Hospital) নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ঘটনাটি বারাসত (Barasat) ২২ নম্বর ওয়ার্ড চন্দনহাটি (Chandanhati) এলাকার। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, স্টোভ থেকেই কোনও ভাবে আগুন ধরে গিয়েছিল। যার ফলে এই বিপত্তি। মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। পুড়ে যায় ওই বাড়ির অধিকাংশ জিনিস। মনে করা হচ্ছে আগুন লাগাকালীন বাড়ির ভিতরেই ছিলেন ওই মহিলা। কোনও ভাবে তিনি বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসতে পারেননি তিনি। যার ফলে এই দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন ।

আহত মহিলার নাম মিনতি দাস (Minati Das) । বয়স ৫৫। তিনি এখন বারাসত হাসপাতালে(Barasat Hospital) চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আগুন লাগার ঘটনার খবর পেতেই এলাকায় পৌঁছায় বাদু ফাঁড়ির পুলিশ। আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। দমকলে খবর দিলেও তাদের আশার আগেই স্থানীয় বাসিন্দারা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালাতে থাকেন ক্রমাগত। যার জেরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এর আগে গতকাল রাজারহাটে (Rajarhat) এক মহিলার আগুনে পুড়ে যাওয়ার ঘটনা সামনে আসে। বছর সাতান্নর অনিমা রায়। রাজারহাট শিখরপুর রায়পাড়া এলাকার বাসিন্দা। গতকাল ভোরবেলা বাড়ির এক সদস্য নীচ থেকে হঠাৎ দেখতে পান দাউ-দাউ করে আগুন জ্বলছে অনিমাদেবীর ঘরে। এরপর একটুও দেরী না করে সঙ্গে-সঙ্গে তিনি পরিবারের অন্য সদস্যদের ডাকাডাকি শুরু করে। কিন্তু ততক্ষণে আর বাকি নেই কিছুই। পুড়ে গিয়েছে দেহের অধিকাংশ অংশ।

খবর দেওয়া হয় রাজারহাট থানায়। পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। পরিবারের সদস্যদের দাবি, অনেকদিন ধরেই তাঁর স্বামী অসুস্থ রয়েছেন। সেই কারণে ,দীর্ঘদিন মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। যার জেরে গায়ে কেরোসিন তেল ঢেল আত্মহত্যা করেছেন ওই পৌঢ়া।

পরিবারের এক সদস্য অনিমেষ রায় জানান,” ভোরবেলা পাঁচটা নাগাদ দেখি ঘরে আগুন জ্বলছে। আমি প্রথমে ভেবেছি বাড়িতে আগুন লেগে গিয়েছে। তারপর ভিতরে গিয়ে দেখি এই অবস্থা। কালকেও সব ঠিক ছিল। আমরা একসঙ্গে খাওয়া-দাওয়া করছিলাম। হঠাৎ কী হল বুঝতে পারলাম না।” অনিমেষ বাবু আর বলেন,” আমার জেঠু দীর্ঘদিন অসুস্থ ছিলেন। জেঠিমাও অসুস্থ ছিলেন। হাই প্রেসার ছিল ওনার। ” ইতিমধ্যেই পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

আরও পড়ুন: Corona Update: মহানগরে লম্ফঝম্প করোনার, একদিনেই আক্রান্ত ২২৯! রাজ্যে ৮০০ পার

আরও পড়ুন: Bhatpara: অশান্তির ভাটপাড়া, পুজোর ভাসানেও চলল গুলি! জখম ২

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla