Biswa Bangla Logo: বিশ্ব বাংলা লোগো ঘিরে বিতর্ক, এলাকার অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণই পেলেন না অগ্নিমিত্রা পাল

Biswa Bangla Logo: প্রসঙ্গত, বাম আমলে শুরু হয় এই বার্নপুর উৎসব । পরবর্তীকালে আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্রের বিধায়ক তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়ের পৃষ্ঠপোষকতায় এই বার্নপুর উৎসব চলতে থাকে ।

Biswa Bangla Logo:  বিশ্ব বাংলা লোগো ঘিরে বিতর্ক, এলাকার অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণই পেলেন না অগ্নিমিত্রা পাল
হোর্ডিংয়ে বিশ্ব বাংলা লোগো
TV9 Bangla Digital

| Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

May 29, 2022 | 12:44 PM

 আসানসোল: বার্নপুর উৎসবের হোর্ডিংয়ে সরকারি লোগো। বিতর্কে উৎসব কমিটি। শুধু তাই নয়, নিজের বিধানসভার অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণই পেলেন না বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল। ক্ষুব্ধ বিধায়ক। বার্নপুর উৎসবকে থানা ময়দান থেকে ভারতীভবন প্রেক্ষাগৃহে নিয়ে যাওয়াতে শহরবাসীরা এমনিতেই আওয়াজ তুলছিলেন ৷ এবার আরও বিতর্ক ছড়াল উৎসবকে ঘিরে । উৎসবের প্রতিটি হোর্ডিংয়ে ব্যবহার করা হয়েছে সরকারি লোগো। সেখানে বিশ্ব বাংলা লোগো-সহ পশ্চিমবঙ্গ সরকার লেখা রয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে যদি এই উৎসব সরকারি স্বীকৃতিপ্রাপ্ত হয়ে থাকে। তবে ওই এলাকার স্থানীয় বিধায়ক কেন আমন্ত্রণ পাননি? এই প্রশ্ন তুলেছেন খোদ আসানসোল দক্ষিণের বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল।

বিধায়কের প্রশ্ন, দীর্ঘদিন ধরে এই উৎসব পরিচালনায় স্থানীয় বিধায়কের বিশেষ ভূমিকা থাকে। এই প্রথমবার দেখা গেল স্থানীয় বিধায়ককেই আমন্ত্রণ করা হয়নি। অন্যদিকে এই উৎসবের বিভিন্ন হোর্ডিং কিংবা ব্যানারে বিশ্ববাংলার লোগো ব্যবহার করা হচ্ছে। যদি ধরে নিতে হয় এটি সরকারি স্বীকৃতি প্রাপ্ত, তাহলে প্রোটোকল মেনে কেন আমন্ত্রিত থাকবেন না বিধায়ক?

এই নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। অথচ উৎসব কমিটির সভাপতি তথা তৃণমূল কাউন্সিলর তপন বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট জানিয়েছেন, এই উৎসবের সঙ্গে সরকারের কোনও যোগাযোগ নেই । যদি সরকারি লোগো লাগানো থাকে, তবে তা ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করে নেন তিনি ৷

প্রসঙ্গত, বাম আমলে শুরু হয় এই বার্নপুর উৎসব । পরবর্তীকালে আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্রের বিধায়ক তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়ের পৃষ্ঠপোষকতায় এই বার্নপুর উৎসব চলতে থাকে । বর্তমানে তাপস রানিগঞ্জের বিধায়ক। তাই পৃথক বার্নপুর উৎসব কমিটি তৈরি করা হয়েছে । এই উৎসব কমিটি স্থানীয় তৃণমূল নেতা, কাউন্সিলর থেকে শুরু করে অন্যান্য দলের সদস্যরা আছে বলে উৎসব কমিটির সভাপতি তথা কাউন্সিলর তপন বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন। এতদিন পর্যন্ত বার্নপুর উৎসব হিরাপুর থানা ময়দানে অনুষ্ঠিত হত। প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ আসতেন সেখানে। কিন্তু কোভিডের জন্য গত দু’বছর বার্নপুর উৎসব অনুষ্ঠিত হয়নি । এবার ১৮ তম বার্নপুর উৎসব অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ইস্কোর প্রেক্ষাগৃহ ভারতীভবনে । শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে অনুষ্ঠান। চারদিন এই অনুষ্ঠান চলবে। রয়েছে কলকাতার নামকরা শিল্পীরা । এছাড়াও স্থানীয় শিল্পীরাও অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। কিন্তু ভারতীভবনে আসন সংখ্যা ৫০০। যেখানে হাজার হাজার মানুষ এই উৎসবে যোগ দেন, সেখানে এই প্রেক্ষাগৃহে উৎসব ঘিরে বিতর্ক ছড়িয়েছে । বহু মানুষ উপভোগ করতে পারবেন না এই অনুষ্ঠান। তপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আগামী বছর থেকে থানা ময়দানেই হবে এই উৎসব।” তপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য, “বিশ্ব বাংলার লোগো হয়তো ভুল করে লাগানো হতে পারে । কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ সরকার লেখা কখনোই উচিত হয়নি । বিষয়টি আমার নজর এড়িয়েছে। সরকারি লোগো লাগানো অন্যায় হয়েছে । আমি দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছি।”

এই খবরটিও পড়ুন

বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পালের তাৎপর্যপূর্ণ প্রতিক্রিয়া, “এটা কি আদৌ সরকারি অনুষ্ঠান? যদি তা না হয়, তাহলে কি যে কেউ বিশ্ব বাংলা লোগো লাগিয়ে ফেলতে পারেন? আর যদি সরকারি অনুষ্ঠান  হয়, তাহলে আমাকে ডাকা হল না কেন? “

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla