‘আপনার ৬২ হাজারেও সিঁধ কাটব আমি’, মমতাকে রণহুঙ্কার শুভেন্দুর

শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী | Edited By: সোমনাথ মিত্র

Updated on: Jan 19, 2021 | 6:24 PM

'দিদিমণি'র উদ্দেশে খেজুরির সভা থেকে তাঁর রণহুঙ্কার, "যে কোনও একটি জায়গায় দাঁড়াতে হবে আপনাকে। শুধু নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়ান।"

'আপনার ৬২ হাজারেও সিঁধ কাটব আমি', মমতাকে রণহুঙ্কার শুভেন্দুর
মঞ্চে শুভেন্দু অধিকারী

পূর্ব মেদিনীপুর: শুরুতেই ব্যাপক উত্তেজনা, বোমাবাজি, রক্তাক্ত পরিবেশ। শুভেন্দু অধিকারীর সভা শুরুর আগেই ফের উত্তপ্ত হল খেজুরি। নির্দিষ্ট সময়ের কিছুটা দেরিতে শুরু হয় বটে, তবে প্রত্যাশা মতোই এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘নন্দীগ্রাম-প্রার্থী’ নামক মাস্টারস্ট্রোকের পাল্টা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। ‘দিদিমণি’র উদ্দেশে খেজুরির সভা থেকে তাঁর রণহুঙ্কার, “যে কোনও একটি জায়গায় দাঁড়াতে হবে আপনাকে। শুধু নন্দীগ্রাম থেকে দাঁড়ান।”

সবাইকে চমকে দিয়ে নন্দীগ্রামের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবারই ঘোষণা করেছেন, তিনি সেখানকার প্রার্থী হচ্ছেন। প্রসঙ্গ উত্থাপন করেই তাঁকে বিঁধে শুভেন্দু বলেন, “কার ভরসায় নন্দীগ্রামে দাঁড়াবেন বলছেন আপনি? হিসাব তো আমি জানি।” এক্ষেত্রে বিচক্ষণ রাজনীতিবিদ তুলে ধরেন পাটিগণিতের হিসাব। তাঁর কথায়, “৬২ হাজারের ভরসা করছেন। আরে বিজেপি তো ২ লক্ষেরও বেশি ভোটে জিতবে।” এরপরই হেঁয়ালির সুরে শুভেন্দু বলেন, “চিন্তা করবেন না দিদিমণি। আপনার ওই ৬২ হাজারেও সিঁধ কাটব আমি।”

রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা, আসলে শিশিরপুত্র এদিন বারবার বোঝাতে চাইলেন তিনি যে এখানকার ভূমিপুত্র! নিজের হাতের তালুর মতো চেনেন গোটা কাঁথি, পূর্ব মেদিনীপুর বলা ভাল অবিভক্ত মেদিনীপুরকে। খেজুরি, নন্দীগ্রামে তাঁর মতো সংগঠককে টেক্কা দেওয়া যে বেশি কঠিন, সে ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী শুভেন্দু স্বয়ং। আর এদিন বারবার তাঁর গলায় সেই সুর ধরা পড়ল। ২০১৬ সালে শুভেন্দুকে প্রার্থী করে পূর্ব মেদিনীপুরের ভোটব্যাঙ্ক সুদৃঢ় করেছিলেন তিনি। সে বার যে শুভেন্দুর ওপরই ভরসা রেখেছিলেন নেত্রী।  কিন্তু এবার কে?

শুভেন্দু বললেন, “আমার সব কিছু মুখস্থ, সব নাম মুখস্থ কারণ আমি এলাকার ছেলে। আমাকে কাগজ দেখে শহিদের নাম বলতে হয় না।” তারপরই তাঁর কটাক্ষ, “নন্দীগ্রামে এসে ওঁকে (মমতাকে) কাগজ দেখে জায়গার নাম বলতে হয়।” নন্দীগ্রাম আসলে শুভেন্দু-গড়, সেটিই আদতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বারবার বুঝিয়ে দিতে চাইলেন তিনি। নন্দীগ্রাম থেকে শুরু হয়েছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ্যমন্ত্রী হয়ে ওঠার অধ্যায়। ‘লাকি’ সেই ভূমি থেকেই যেন অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই চালাবেন তিনি, বলছেন রাজনীতির কুশীলবরা।

শুভেন্দু অবশ্য ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করে শুভেন্দু বলেন, “মমতা আসলে দেহ নন্দীগ্রামে, আত্মা কলকাতায়। গতকাল নন্দীগ্রামে মমতার সভা আসলে আসাউদ্দিন ওয়েইসির সভা। রাজনৈতিকভাবে হতাশাগ্রস্ত মমতা, কোথায় সভা করছেন জানেন না।”

তাঁর কথায়, নন্দীগ্রামের মাটিতে দাঁড়িয়েই নন্দীগ্রামের ইতিহাস নিয়ে অনেক মিথ্যা কথা বলে গেলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি প্রশ্ন তোলেন, “নন্দীগ্রামে তিনি মোটর সাইকেলে এসেছিলেন, এত বড় মিথ্যা কথা!” কটাক্ষের সুরে তাঁর মন্তব্য, “প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে লেটারপ্যাড তৈরি রাখুন।”

আরও পড়ুন: শুভেন্দুর সভাস্থলের পাশেই বেপরোয়া বোমাবাজি, রণক্ষেত্র খেজুরি

উল্লেখ্য, এদিন শুভেন্দুর সভা শুরু আগেই বিজেপি কর্মীদের ওপর ব্যাপক বোমাবাজির অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সেই হিসাব দেখে নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন শুভেন্দু। বললেন, “রবিবার পর্যন্ত ,সময় দিলাম পুলিসকে। নাহলে তমলুক পুলিস সুপারের অফিসের সামনে বসব।”

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla