বীভৎস শব্দে কাঁপল ভাঙড়! ‘শুধু আগুন ওর ভিতরে, চার পাঁচজন পুড়ে গিয়েছে’, হাসপাতালে কাতরাতে কাতরাতে বললেন যুবক

দ্রুততার সঙ্গে এই অবৈধ কারখানা (Leather Factory) বন্ধের দাবি জানিয়েছেন এলাকার লোকজন।

বীভৎস শব্দে কাঁপল ভাঙড়! 'শুধু আগুন ওর ভিতরে, চার পাঁচজন পুড়ে গিয়েছে', হাসপাতালে কাতরাতে কাতরাতে বললেন যুবক
নিজস্ব চিত্র।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: ভাঙড়ের (Bhangar) অবৈধ চামড়া কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ। জখম হয়েছেন ১১ জন। এর মধ্যে তিনজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কলকাতায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। শনিবার সকালের এই বিস্ফোরণের জেরে এলাকাজুড়ে আতঙ্কের পরিবেশ। কারখানা বন্ধের দাবি তুলেছেন সাধারণ মানুষ। ভাঙড়ের মালঞ্চ এলাকার ঘটনা। ঘটনাস্থলে ভাঙড় থানার পুলিশ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, রাতভর এই কারখানায় বিরাট বিরাট মেশিন চলে। সেই শব্দে টেকা দায়। শুক্রবার রাতেও সে রকমই মেশিন চলছিল। শনিবার সকাল ৮টা নাগাদ বিকট শব্দে একটি বয়লার ফেটে যায়। কর্মরত শ্রমিকরা বীভৎসভাবে জখম হন।

আহত এক কর্মী হাসপাতালের বেডে শুয়ে জানান, “আমরা ভিতরে ছিলাম। অত জোরে বয়লারটা ফাটল। শুধু আগুন ওর ভিতরে। চার-পাঁচজন পুরোপুরি পুড়ে গিয়েছে।” এরপর গ্রামের লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে স্থানীয় নলমুড়ি হাসপাতালে নিয়ে যান। এর মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কলকাতায় স্থানান্তরিত করা হয়।

আরও পড়ুন: অতিমারিতে হাহাকার! ‘অক্সিজেন লঙ্গর’ খুলে মানবতার পাঠ পড়াচ্ছে গুরুদ্বার

স্থানীয়রা জানান, “আমাদের একটাই দাবি এই বেআইনি কারখানাগুলো এবার বন্ধ হোক। এখানে সারাক্ষণ এত দূষণ বাড়ির বাচ্চা, বুড়োরা বাইরে বেরোনোর সাহস পায় না। বিকট গন্ধ। ছাই উড়ে আসে সবসময়। সঙ্গে মেশিন চলায় এমন বাজে শব্দ হয় টেকা যায় না এলাকায়।” তাঁদের অভিযোগ, বারবার প্রশাসনকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। আধিকারিকরা বদলি হয়ে যান, সবাই সব ভুলে যায়।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla