জিজ্ঞাসা: টেট উত্তীর্ণদের নিয়োগ নিয়ে নবান্নের বিজ্ঞপ্তি, জেনে নিন পুঙ্খানুপুঙ্খ তথ্য

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কী রয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে...

জিজ্ঞাসা: টেট উত্তীর্ণদের নিয়োগ নিয়ে নবান্নের বিজ্ঞপ্তি, জেনে নিন পুঙ্খানুপুঙ্খ তথ্য
অলঙ্করণ: অভীক দেবনাথ
সুমন মহাপাত্র

| Edited By: সোমনাথ মিত্র

Dec 25, 2020 | 10:08 PM

কলকাতা: ১৬ হাজার ৫০০ পদে টেট (TET) উত্তীর্ণদের নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার। সেই মতো বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করা হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের (West Bengal Board Of Primary Education) তরফে। ২০১৪ টেট উত্তীর্ণদের সহ শিক্ষক পদে নিয়োগ হবে। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কী রয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে…

শূন্যপদ:

টেট উত্তীর্ণদের সারা রাজ্যের ১৬ হাজার ৫০০ শূন্য়পদে (Vacancy) নিয়োগ হবে। পছন্দসই জেলার নাম প্রার্থীদের কাছ থেকে জানতে চাওয়া হবে। এরপর ফাঁকা পদ অনুযায়ী নিয়মমাফিক নিয়োগ হবে নির্দিষ্ট জেলায়।

সংরক্ষণ:

তফসিলি জাতি, উপজাতি এবং অনগ্রসর সম্প্রদায়ের নির্দিষ্ট সংরক্ষণ থাকবে। এছাড়া বিশেষভাবে সক্ষম ও অন্যান্য সংরক্ষিত পদেও নিয়োগ হবে।

যোগ্যতা:

* প্রথমত চাকরিপ্রার্থীকে ভারতের নাগরিক হতে হবে।

*চাকরিপ্রার্থীর বয়স পয়লা জানুয়ারি ২০২০-র হিসাব অনুযায়ী ১৮-র বেশি ও ৪০-এর কম হতে হবে। রাজ্য সরকারের পূর্ববর্তী নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ক্ষেত্রে বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড় থাকবে।

* আবেদনের বিজ্ঞপ্তির সময় জারি থাকা পূর্ববর্তী শিক্ষাগত যোগ্যতার (Eligibility) নিয়মে কোনও পরিবর্তন নেই। একই নিয়ম কার্যকরী।

* এনসিটিই’র নির্দেশিকার মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ পরিচালিত টেট, ২০১৪ উত্তীর্ণ হতে হবে।

* প্রার্থীদের ডিএলএড প্রশিক্ষণ থাকতে হবে।

*এনসিটিই’র নিয়ম মেনে এবারই বিএড কে মান্যতা দেওয়া হয়েছে। সেক্ষেত্রে স্নাতকে ৫০ শতাংশ থাকা বাধ্যতামূলক।

*সংরক্ষণের আওতায় থাকা চাকরিপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে আবেদনযোগ্য নম্বরের ৫ শতাংশ কম থাকলেও তাঁরা আবেদন করতে পারবেন।

*যে মাধ্যমের স্কুলের জন্য প্রার্থীরা আবেদন করবেন সেই ভাষায় লেখা, পড়া ও বলার দক্ষতা থাকতে হবে।

*যে মাধ্যমের স্কুলে চাকরিপ্রার্থী আবেদন করছেন তাঁর উচ্চ মাধ্যমিকে সেই ভাষা প্রথম বা দ্বিতীয় ভাষা হতে হবে।

*সাঁওতালী মাধ্যমে আবেদন করতে হলে চাকরীপ্রার্থীকে সাঁওতালী ভাষা লিখতে, পড়তে ও বলতে জানতে হবে।

* সকলের কাছে মাধ্যমিক বা তার সমতূল্য পরীক্ষায় শংসাপত্র থাকতে হবে। সেখানে অঙ্ক ও ইংরাজি বিষয় হিসাবে থাকতে হবে।

ইন্টারভিউ:

১০ জানুয়ারি থেকে ১৭ জানুয়ারির মধ্যে ইন্টারভিউ ও অ্যাপটিটিউড পরীক্ষা হবে।

বেতন:

ডিএ ছাড়া ২৮ হাজার ৯০০ টাকা বেতন। তার সঙ্গে এইচআরএ যুক্ত হবে।

আবেদন ফর্ম:

জেনারেল আবেদনকারীদের জন্য ফর্মের (Application form) দাম ২০০ টাকা। তফসিলি জাতি, উপজাতি ও অনগ্রসর সম্প্রদায়ের জন্য ফর্মের দাম ৫০ টাকা। ২৩ ডিসেম্বর থেকে ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত www.wbbpe.org এবং www.wbbprimaryeducation.org ওয়েবসাইটে আবেদন করা যাবে।

আরও পড়ুন- জিজ্ঞাসা: বিবাহযোগ্যাদের এককালীন ২৫ হাজার টাকা দেবে রাজ্য সরকার, কীভাবে আবেদন করবেন, জানুন

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla