Punjab Polls: ‘আমার কোনও পদ চাইনা’ নির্বাচনের আগে কেন এমন বললেন সিধু?

Navjyot Singh Sidhu: সিধুর এই মন্তব্যকে রাজনৈতিক কৌশলের অঙ্গ বলেই মনে করছেন অনেকে। দু'দিন আগেই সিধু জানিয়েছিলেন কংগ্রেস হাই কমান্ড নয় পঞ্জাবের জনতাই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে নির্বাচন করবে।

Punjab Polls: 'আমার কোনও পদ চাইনা' নির্বাচনের আগে কেন এমন বললেন সিধু?
নভজ্যোত সিং সিধু। ছবি:PTI

চণ্ডীগঢ়: ইতিমধ্যেই পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের ১৪ তারিখ পঞ্জাবে বিধানসভা ভোট। ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংকে সরিয়ে চরণজিৎ চন্নিকে (Charanjit Channi) পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে বসিয়েছিল কংগ্রেস হাই কমান্ড। তারপর থেকে নানা ইস্যুকে কেন্দ্র করে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি নভজ্যোত সিং সিধু (Navjyot Singh Sidhu) ও পঞ্জাবের সরকারের দ্বিমত সামনে এসেছে। সম্প্রতি ভোটমুখী পঞ্জাবে কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী পদ প্রার্থীর নাম স্থির না করা নিয়ে নিজের দ্বিমত গোপন করেননি সিধু। অনেকেরই দাবি ছিল সিধু আসলে মুখ্যমন্ত্রী হতে চান। এবার সেই ইস্যুকে কেন্দ্র করেই মুখ খুললেন পঞ্জাব কংগ্রেসের সভাপতি সিধু। বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়েছেন, তিনি কোনও পদের পিছনে ছুটছেন না, কিছু রাজনীতিবিদের সঙ্গে যোগসাজশে পঞ্জাবে চলা মাফিয়া রাজের বিরুদ্ধেই তাঁর প্রধান লড়াই।

কী বললেন সিধু?

পঞ্জাবের হৃত গৌরব ফিরিয়ে আনতে তিনি বদ্ধপরিকর বলেই জানিয়েছেন সিধু। বৃহস্পতিবার টুইটে তিনি বলেন, “যে ব্যবস্থা আমাদের গুরুকে ন্যায়বিচার দিতে পারেনি এবং মাদক ব্যবসায় জড়িত বড় ব্যক্তিদের শাস্তি দিতে পারেনি তা ভেঙে ফেলা দরকার। আমি জোরের সঙ্গে বলতে চাই আমি কোনও পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি না। হয় এই ব্যবস্থা থাকবে নয় নভজ্যোত সিং সিধু থাকবে।”

সিধু জানিয়েছেন পঞ্জাবের শাসন ব্যবস্থা উই পোকার মত, দ্রুত এই শাসন ব্যবস্থার উন্নতি হওয়া দরকার। তিনি বলেন, “লড়াইটা হল এই ব্যবস্থাকে বদলানোর যেটা পাঞ্জাবকে উইপোকার মতো ধ্বংস করেছে এবং অসৎ রাজনীতিবিদদের যোগসাজশে মাফিয়ারা রাজ্যে রাজ করছে। এই শাসন ব্যবস্থা পরিবর্তন ও সংস্কারের জন্য চিৎকার করছে কারণ পাঞ্জাবের গৌরব কিছু রাজনৈতিক নেতা এবং মাফিয়াদের যোগসাজশে ধ্বংস হয়ে গিয়েছে।”

সিধুর মন্তব্যে রাজনৈতিক ইঙ্গিত

সিধুর এই মন্তব্যকে রাজনৈতিক কৌশলের অঙ্গ বলেই মনে করছেন অনেকে। দু’দিন আগেই সিধু জানিয়েছিলেন কংগ্রেস হাই কমান্ড নয় পঞ্জাবের জনতাই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে নির্বাচন করবে। ক্যামেরার সামনে সিধুকে বলতে শোনা গিয়েছিল, ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের পর কংগ্রেস হাই কমান্ডের উচিৎ ছিল চরণজিৎ চন্নির বদলে তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী করা। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে সিধুর ওই মন্তব্য প্রকাশ্যে চলে আসার পর তার ওপর রাজনৈতিক চাপ তৈরি হচ্ছিল। তাই কোনও পদ চাইনা বলে তিনি ভারসাম্য বজায় রাখার চেষ্টা করছেন।

পঞ্জাবের কংগ্রেসের অন্তদ্বন্দ্ব দীর্ঘদিন ধরেই প্রকাশ্যে চলে এসেছিল। চন্নিকে মুখমন্ত্রী করার পর বিভিন্ন ইস্যুতে দলের সরকারের বিরোধিতা করতে দেখা গিয়েছিল নভজ্যোত সিং সিধুকে। সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী নিয়েও দলীয় কোন্দল প্রকাশ্যে চলে আসে। দলের কোন্দল প্রকাশ্যে আসায় কংগ্রেসের বিড়াম্বনা বেড়ছে। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে দলীয় কোন্দলকে সামাল দিয়ে পঞ্জাবের মসনদ ধরে রাখতে কংগ্রেস সফল হয় কিনা সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আরও পড়ুন: UP MLA quits BJP: যোগী-রাজ্যে আরও এক বিজেপি বিধায়কের দলত্যাগ, এই নিয়ে সাতজন!

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla