অধীর অনড় আসন নিয়ে, ব্রিগেডের পরও আলোচনা চলবে তিন শিবিরের

দিনতিনেক আগেই জোট নিয়ে কংগ্রেসকে (Congress) এককথায় আল্টিমেটাম দিয়েছিলেন আব্বাস সিদ্দিকি। দু'দিন সময় বেঁধে দিয়ে তার মধ্যে সমাধান সূত্র বের করতে বলেছিলেন। কিন্তু এখনও দেখা মিলল না সমাধান সূত্রের।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 23:09 PM, 27 Feb 2021
অধীর অনড় আসন নিয়ে, ব্রিগেডের পরও আলোচনা চলবে তিন শিবিরের
ছবি-ফেসবুক

কলকাতা: ব্রিগেডের সমাবেশ (Brigade Rally) শুরু হতে মেরেকেটে বাকি আর ১২ ঘণ্টা। এত দিন ধরে দফায় দফায় আলোচনার পরও জোটের আসন রফা করতে পারল না সিপিএম (CPIM)-কংগ্রেস (Congress)। এ দিনের বৈঠকে আব্বাস সিদ্দিকির আইএসএফ (ISF)-কে আসন ছাড়া নিয়ে নতুন করে জলঘোলা হয়। অবশ্য সিপিএম-র দিক থেকে সমস্যা খুব একটা নেই বললেই চলে। আসন ছাড়ার বিষয়ে আলিমুদ্দিন এ বার নজিরবিহীন নমনীয়তা দেখিয়েছে। কিন্তু, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী আসন ভাগাভাগি নিয়ে অনড় রয়েছেন। এমনটাই খবর সূত্রের।

দিনতিনেক আগেই জোট নিয়ে কংগ্রেসকে এককথায় আল্টিমেটাম দিয়েছিলেন আব্বাস সিদ্দিকি। দু’দিন সময় বেঁধে দিয়ে ওর মধ্যে সমাধান সূত্র বের করতে বলেছিলেন। তারপর ঠিক হয়, ব্রিগেড সমাবেশের আগের দিন ফের এক বার বৈঠক হবে। এবং ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে চূড়ান্ত জোট ঘোষণা করা হবে। সেই মতো এ দিন সিপিএম ও কংগ্রেস নেতৃত্ব বৈঠকে বসেন।

সেই বৈঠকে অধীর দাবি করেন, আইএসএফ-কে তাঁরা আরও আসন ছাড়তে পারেন। তবে, সিপিএম-কে আরও আসন ছাড়তে হবে কংগ্রেসকে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির এই দাবি শুনে সিপিএম নেতৃত্ব বলেন, কংগ্রেসকে আগে সিদ্ধান্ত নিতে হবে কোন কোন তারা আইএসএফ-কে ছাড়বে। তারপর না হয় নতুন আসন দেওয়ার কথায় আসা যাবে। এই নিয়েই দুপক্ষের আলোচনায় বৈঠক কক্ষ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। সূত্রের খবর, ব্রিগেডের সভার পরের দিন অর্থাৎ সোমবার ফের একবার বৈঠক হতে পারে সিপিএম-কংগ্রেসের। ততদিনে অধীররা কতগুলি আসন আইএসএফ-কে ছাড়বেন তা চূড়ান্ত করে ফেলতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘আমরা কমিশনকে বলেছিলাম বেশি দফায় ভোট করতে, ওঁরা সেটাই করেছেন’, মমতার অভিযোগে দিলীপের সিলমোহর?

অন্যদিকে, আইএসএফ প্রধান আব্বাস সিদ্দিকি রবিবারের ব্রিগেডে উপস্থিত থাকবেন বলেই জানিয়েছেন। জোট ফয়সালা চূড়ান্ত না হলেও সমাবেশে হাজির হলে তিনি কী বার্তা দেন সেদিকেই নজর রয়েছে রাজনৈতিক মহলের।

বঙ্গযুদ্ধ ২০২১: সব খবর পড়ুন এখানে