করোনা আক্রান্তদের জন্য সোনুর ভাবনাকে কুর্নিশ প্রিয়াঙ্কার

যে সব শিশুদের বাবা-মা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন, তাঁদের পড়াশোনার সব খরচ বিনামূল্যে করে দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন সোনু। এই মর্মে সোশ্যাল ওয়ালে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন অভিনেতা। সেই ভিডিয়ো শেয়ার করে সোনুকে সমর্থন জানান প্রিয়াঙ্কা।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 19:21 PM, 3 May 2021
করোনা আক্রান্তদের জন্য সোনুর ভাবনাকে কুর্নিশ প্রিয়াঙ্কার
প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং সোনু সুদ।

গত বছর থেকেই করোনা (covid 19) আক্রান্তদের সাহায্যার্থে একেবারে মাঠে নেমে কাজ করছেন বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ (Sonu Sood )। চলতি বছরেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। সোনু নিজেও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। কিন্তু সুস্থ হয়ে ওঠার পর দ্রুত পুরনো ফর্মে ফিরেছেন। ফের সামনে থেকে করোনা আক্রান্তদের সেবা করছেন। সদ্য সোনু এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে একটি আবেদন করেছেন। তার ফলে তাঁকে ‘ভবিষ্যৎদ্রষ্ট্রা মানবদরদী’ আখ্যা দিলেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া (Priyanka Chopra)।

যে সব শিশুদের বাবা-মা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন, তাঁদের পড়াশোনার সব খরচ বিনামূল্যে করে দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন সোনু। এই মর্মে সোশ্যাল ওয়ালে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন অভিনেতা। সেই ভিডিয়ো শেয়ার করে সোনুকে সমর্থন জানান প্রিয়াঙ্কা।

প্রিয়াঙ্কা লিখেছেন, “আপনারা ভবিষ্যৎদ্রষ্ট্রা মানবদরদীর কথা শুনেছেন? আমার সহকর্মী সোনু সুদ তেমনই একজন। ও সময়ের থেকে এগিয়ে ভাবে এবং পরিকল্পনা করে। এর প্রভাব অনেক দূর পর্যন্ত থাকবে। এটাতে বিশেষত শিশুরা জড়িত। যে সব শিশুরা করোনায় বাবা অথবা মা, অথবা দু’জনেই হারাচ্ছে, এই ব্যবস্থা তাদের জন্য করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। হয়তো এই ক্ষতির ফলে আজীবনের জন্য তাদের পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যাবে। কারণ এর সঙ্গে আর্থিক বিষয়ও জড়িত।”

প্রিয়াঙ্কা আরও জানান, এই শিশুদের ভবিষ্যৎ পড়াশোনা কীভাবে হবে, সেটা নিয়ে যে আলাদা করে সোনু ভেবেছেন, তাতে তিনি মুগ্ধ। আর দ্বিতীয়ত সমস্যার সমাধান কীভাবে হতে পারে, তাও ভেবেছেন অভিনেতা। রাজ্য এবং কেন্দ্র উভয় সরকারের কাছেই এই আবেদন করেছেন সোনু। পড়াশোনার যে স্তরেই এই শিশুরা থাকুক না কেন, তাদের এই সুবিধে পাওয়া উচিত বলে মনে করেন প্রিয়াঙ্কা। যদি সরকারের তরফে এই পদক্ষেপ না নেওয়া হয়, বহু সংখ্যাক পড়ুয়া পড়াশোনা ছেড়ে দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

প্রিয়াঙ্কার কথায়, “শুধু সরকার নয়। আমি সকলকে অনুরোধ করব। এই বিষয়ে যে সাহায্য করতে পারবেন, এগিয়ে আসুন, সেটাই অনেক বড় বিষয়। সম্ভব হলে একজন শিশুর পড়াশোনার দায়িত্ব নিন। সোনুর প্রস্তাবের সঙ্গে আমি সহমত। যাতে সকল শিশু শিক্ষা পায়, সে বিষয়ে আমিও যথাসম্ভব চেষ্টা করব। একটা ভাইরাস একটা প্রজন্মের পড়াশোনা শেষ করে দেবে, সামাজিক ভাবে এটা আমরা মেনে নিতে পারি না।”

প্রিয়াঙ্কার পোস্টে কমেন্ট করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। তিনি একটি নম্বর শেয়ার করে জানিয়েছেন, কোনও অনাথ শিশুর খবর পেলে ওই নম্বরে ফোন করে সাহায্য চাওয়া যেতে পারে।

আরও পড়ুন, ‘ইন্ডিয়ান আইডল ১২’র মঞ্চে আর দেখা যাবে না নেহা কক্করকে?