Double Chin: ‘ডবল চিন’ নিয়ে অস্বস্তি? মুখের অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে এই সহজ ব্য়ায়ামগুলি প্রতিদিন করলেই মিলবে ফল!

সোশ্যাল মিডিয়া বা ম্যাগাজিনের পাথায় ডবল চিন কমানোর টোটকা হিসেবে চুইং গাম, কখনও ঢাকা দিতে কালো রঙের হাইনেক জামা বা কোকো বাটার দিয়ে মাসাজ করছে প্রতিদিন ও প্রতিরাত। কিন্তু কোনও কিছুতেই লাভের লাভ হচ্ছে না।

Double Chin: 'ডবল চিন' নিয়ে অস্বস্তি? মুখের অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে এই সহজ ব্য়ায়ামগুলি প্রতিদিন করলেই মিলবে ফল!
ছবিটি প্রতীকী

কায়দা করে সেলফি তুললেও মনমতো ছবি উঠছে না! চোয়ালের ভাজের নিচে এক থুলথুলে চর্বির স্তর যেন বেশি করে হাইলাইট হচ্ছে? ডবল চিনের(Double Chin) এমন সমস্যায় জেরবার হয়ে ছবি একের পর এক ডিলিট করে চলেছেন? সোশ্যাল মিডিয়া বা ম্যাগাজিনের পাথায় ডবল চিন কমানোর টোটকা হিসেবে চুইং গাম, কখনও ঢাকা দিতে কালো রঙের হাইনেক জামা বা কোকো বাটার দিয়ে মাসাজ করছে প্রতিদিন ও প্রতিরাত। কিন্তু কোনও কিছুতেই লাভের লাভ হচ্ছে না। স্থূলতা, বয়স, ওজন, জেনেটিক্সের কারণে ডবল চিনের প্রকাশ পায়। এর একমাত্র সমাধান হিসেবে যেগুলি গুরুত্বপূর্ণ, তা হল সাধারণ চিকিত্‍সার পদ্ধতি। তার মধ্যে রয়েছে ব্যায়াম, খাদ্য নিয়ন্ত্রণ ও সার্জারি।

ডবল চিনের জন্য ব্যায়াম

ডবল চিন থেকে মুক্তি পেতে কয়েকটি ব্যায়াম করা অত্যন্ত জরুরি। আর সেগুলি কীভাবে করবেন, তা এখানে বিস্তারিত বলা হল, দেখে নিন একনজরে…

চোয়ালের ব্যায়াম

এই ব্যায়ামের জন্য আপনাকে চোয়ালকে বিভিন্নদিকে ঘোরাতে হবে। নিচের চোয়ালটি বাইরের দিকে প্রসারিত করে প্রথমে শুরু করতে হবে। এরপর বাম দিকে, তারপর ভিতরের দিকে। এইভাবে রোটেশন করতে হবে। এরপর নিচের চোয়ালটি ডানদিকে এনে একইভাবে পদ্ধতি অনুসরণ করুন। প্রতিটি ধাপ ঘড়ির কাঁটার দিকে ও ঘড়ির বিপরীত দিকে করুন।

এয়ার কিস (Air Kiss)

এটিও একপ্রকার ব্য়ায়াম। প্রথমে একটি খোলামেলা জায়গায় দাঁড়ান। প্রথমে চুমু খাওয়ার মতো ঠোঁটদুটি টান টান করুন। এরপর ঘাড় উপরের দিকে তুলে বাতাসকে চুম্বন করুন। ১০ সেকেন্ড ধরে এই অবস্থায় ধরে থাকুন। এইভাবে পাঁচবার পর পর এই ব্যায়ামটি করুন। খেয়াল রাখবেন যাতে আপনার ঘাড়ের উপর চাপ না পড়ে।

বল এক্সারসাইজ

প্রথমে চিবুকের নিচের অংশটি ফিট রাখার জন্য যথেষ্ট ছোট একটি বল নিন। এবার চিবুকের নীচে রেখে চোয়ালের উপর অল্প করে চাপ প্রয়োগ করুন। এতে আপনার চিবুকের পেশীগুলি প্রসারিত হয়। ১০ সেকেন্ড এইভাবে করতে থাকুন। শিথিল করার পর ফের পুনরাবৃত্তি করুন। যখনই ফ্রি থাকবেন তখন এই ব্যায়ামটি করতে পারবেন।

নাকে স্পর্শ করার ব্যায়াম

একটি খোলামেলা জায়গায় বসুন। এরপর মুখ খুলে সামনের দিকে জিভ বের করুন। এবার জিভটি যতটা সম্ভব প্রসারিত করে নাকের ডগা ছোঁবার চেষ্টা করুন।কমপক্ষে ৫ সেকেন্ড করে পর পর ১০বার এই ব্যায়াম পুনরাবৃত্তি করুন।

মুখ হাঁ করে ব্যায়াম-

চওড়া মুখ করে হাঁ করুন। এবার এ অবস্থাতে জোরে জোরে শ্বাস-প্রশ্বাস গ্রহণ common causesকরুন। তাতে মুখের পেশিগুলি প্রশারিত হবে। ৫ সেকেন্ডের জন্য ধরে রেখেফের মুখ বন্ধ করে নিন।

 

আরও পড়ুন: Tonsil Stone: দীর্ঘদিন ধরে টনসিলে ব্যাথা অনুভব করছেন! সহজ ঘরোয়া উপায়েই গলবে ‘টনসিলের স্টোন’

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla