Omicron Sub- Variant BA.2: ওমিক্রনের ‘ছোটভাই’ BA-2 কতটা বিপজ্জনক? জানুন যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা…

Omicron Sub- Variant BA.2: ওমিক্রনের 'ছোটভাই' BA-2 কতটা বিপজ্জনক? জানুন যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা...
নয়া এই ভ্যারিয়েন্টেই এখন সংক্রমণের মূলে

ওমিক্রনের এই সাব-স্ট্রেইন প্রথম ধরা পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতে। এরপরই এই স্ট্রেন নিয়ে গবেষণা চালান হয়। বর্তমানে ভাত, সুইডেন, ডেনমার্কে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Jan 25, 2022 | 2:34 PM

গত একমাসেরও বেশি সময় ধরে বিশ্বজুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ওমিক্রন ( Omicron)। প্রতিদিন প্রচুর সংখ্যক মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন করোনার ( Covid-19) এই নতুন ভ্যারিয়েন্টে। তবে ইদানিং ভারতে ওমিক্রনের আরও একটি নতুন ভ্যারিয়েন্ট ধরা পড়েছে BA.2। এই ভ্যারিয়েন্টে এখনও পর্যন্ত ৫০০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আমেরিকার হেলথ সিকিউরিটি এজেন্সির একটি রিপোর্ট অনুসারে ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত জিনোম ডেটা বিশ্লেষণ করে ৫৩০ টি BA.2 নমুনা পাওয়া গিয়েছে। এই নতুন ভ্যারিয়েন্টকে ওমিক্রনের ছোটভাই বলা হচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, ওমিক্রনের মিউটেশনের ফলেই নতুন এই B.1.1.529- ভ্যারিয়েন্ট তৈরি হয়েছে। ভারত, ডেনমার্ক এবং সুইডেন-সহ বেশ কিছু দেশে কোভিডের এই নতুন ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ মিলেছে। UKHSA- এর তরফে এই ভ্যারিয়েন্টকে ওমিক্রনের সাব ভ্যারিয়েন্ট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।  ওমিক্রনের এই ভ্যারিয়েন্টকে “stealth Omicron” ( স্টিলথ ওমিক্রন) বলা হচ্ছে। এমনকী ওমিক্রনের সংক্রমণকে ছাড়িয়ে গিয়েছে নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট। ট

কোন কোন দেশে এই নতুন BA.2  সবথেকে বেশি প্রভাব ফেলেছে?

ওমিক্রনের নতুন এই ভ্যারিয়েন্টটি এখনও পর্যন্ত ৪৩ টি দেশে পাওয়া গিয়েছে। এবং বেশিরভাগ মানুষ কিন্তু এখন এই ভ্যারিয়েন্টেই আক্রান্ত হচ্ছেন। ভারত, ডেনমার্ক, সুইডেনে সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন নতুন এই ভ্যারিয়েন্টে। জানুয়ারির ১০ তারিখ পর্যন্ত সংক্রমণ কম থাকলেও আবারও ব্রিটেন, সুইডেনে বাড়তে শুরু করে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা। ব্রিটেনে ৪০০-এর বেশি মানুষ নতুন এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত। সম্প্রতি রিপোর্ট অনুসারে ওমিক্রনকে হটিয়ে ক্রমশই দাপট বাড়াচ্ছে (ছোটভাই) BA.2।

নতুন এই ভ্যারিয়েন্টের প্রথম খোঁজ মেলে লন্ডনে, ৬ ডিসেম্বর। এরপর  জিনোম সিকোয়েন্ট পরীক্ষা মারফত সেখানে আরও ৪২৬ টি নতুন কেস ধরা পড়ে। লন্ডন এবং সাউথ ইস্টে নতুন এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এমনকী BA.1- এর তুলনায়  BA.2-তে আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে ক্রমশ। সিঙ্গাপুরেও ১২৭ জনের শরীরে হদিশ মিলেছে এই স্ট্রেনের। মনে করা হচ্ছে কোভিডের এই স্টেরেনটি আরও বেশি সংক্রামক। আগামী দিনে কোভিডের পরবর্তী ঢেউ-এর জন্যেও কিন্তু দায়ী থাকতে পারে নয়া এই ভ্যারিয়েন্ট। ইউরোপ এবং অস্ট্রেলিয়ার বেশ কিছু জায়গাতেও হদিশ মিলেছে নতুন এই স্ট্রেনের। তবে স্পাইক প্রোটিনের পরিবর্তনের কৈরণে ডেল্টার থেকে একে সহজেই পৃথক করা যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এখনও পর্যন্ত RT-PCR পরীক্ষা করালেই ধরা পড়ছে নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট।

কোথায় প্রথম শনাক্ত করা হয়?

ওমিক্রনের এই ভ্যারিয়েন্টটি প্রথম শনাক্ত করা হয় দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ভারতে ডিসেম্বরের শেষে। এরপর এই নিয়ে বিস্তর গবে,ণা করে। আর তাতেই দেখা যায় ওমিক্রনের এই সাব স্ট্রেনটিই সবচেয়ে বেশি সংক্রামক। এখনও পর্যন্ত সংক্রমণের যে বৃদ্ধি তার জন্য দায়ী এই BA.2।  তবে এই ভ্যারিয়েন্টটি কতটা বিপজ্জনক সেই সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট তথ্য এখনও হাতে নেই। এই ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন কার্যকরী নয় এমনও কিছু প্রমাণিত হয়নি। তবে এই ভ্যারিয়েন্টটি খুবই ছোঁয়াচে তা কোভিড গ্রাফ দেখেই আঁচ করা যায়।

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন। 

আরও পড়ুন: Coronavirus: ভ্যাকসিন, বুস্টার ডোজ এবং একবার কোভিড হয়ে গেলেই কি আপনি নিরাপদ? উত্তর দিলেন বিশেষজ্ঞরা

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA