ভোট মিটতেই বড় সাফল্য, পুলিশ সুপারের কথায় আত্মসমর্পণ দুই এনএলএফটি জঙ্গির

বাংলাদেশে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছিল আত্মসমর্পণকারী জঙ্গিদের। বিগত কয়েক বছর ধরে তাঁরা নাগাল্যান্ডে থাকছিলেন এবং সেখান থেকেই যাবতীয় কাজ পরিচালন করছিলেন।

ভোট মিটতেই বড় সাফল্য, পুলিশ সুপারের কথায় আত্মসমর্পণ দুই এনএলএফটি জঙ্গির
ছবি:ANI

আগরতলা: রাজ্যে অশান্তির বড় কারণ হয়ে উঠেছিল এনএলএফটি(National Liberation Front of Tripura) সংগঠন। তবে ভোটপর্ব মিটতেই বড় সাফল্য পেল ত্রিপুরা পুলিশ। বৃহস্পতিবার আত্মসমর্পণ করেন দুই এনএলএফটির সদস্য। তারা সংগঠনের শীর্ষ পদে ছিলেন বলেই জানা গিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, আত্মসমর্পণকারী দুই এনএলএফটি সদস্যের নাম জোসেফ জামাতিয়া ও উত্তম কিশোর জামাতিয়া। এ দিন তাঁরা তিনটি পিস্তল, ম্যাগাজিন সহ একাধিক অস্ত্র নিয়ে আত্মসমর্পণ করেন। এই বিষয়ে ত্রিপুরা পুলিশের ডিআইজি এল জারলং বলেন, “এটি পুলিশবাহিনীর কাছে বড় সাফল্য। এনএলএফটি সংগঠনের শীর্ষ পদে ছিলেন এনারা। জোসেফ জামাতিয়া উমথাই দলের সদস্য ছিলেন এবং মূলত এনএসসিএন সংগঠনের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের কাজ করতেন।”

সূত্র অনুযায়ী, বাংলাদেশে প্রশিক্ষিত এই জঙ্গিরা নাগাল্যান্ডে থাকছিলেন এবং সেখান থেকেই যাবতীয় কাজ পরিচালন করছিলেন। উত্তর ত্রিপুরা জেলার পুলিশ সুপার ভাণুপদ চক্রবর্তীর উদ্যোগেই দুই জঙ্গি সুস্থ স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চেয়ে আত্মসমর্পণ করে। বৃহস্পতিবার আত্মসমর্পণের সময়ও তিনি উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রতি ত্রিপুরা পুলিশের তথ্যের সাহায্যেই অসমের রাইফেল বাহিনী এনএলএফটি সংগঠনের শীর্ষ নেতাদের মিজোরাম থেকে গ্রেফতার করে। সেই সময় তাঁদের কাছ থেকে বিপুল সংখ্যক অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছিল।

আরও পড়ুন: ‘তুঘলকি লকডাউন, প্রভুর গুণগান’, কেন্দ্রের কোভিড রাজনীতিকে কটাক্ষ রাহুলের

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla