Tamil Nadu Rain: দক্ষিণে ফের দুর্যোগ, রয়েছে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা, বিপদ এড়াতে ২২ জেলায় বন্ধ স্কুল-কলেজ!

Heavy Rain Alert in Tamil Nadu: গতকালের বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ও আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস দেখেই তামিলনাড়ুর ২২টি জেলায় সমস্ত স্কুল-কলেজে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এরমধ্যে থুতুকুডি, কন্যাকুমারী, তিরুনেলিভেলি, তিরুভারুর, তেনকাশি ও ভিল্লুপুরম জেলাও রয়েছে। 

Tamil Nadu Rain: দক্ষিণে ফের দুর্যোগ, রয়েছে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা, বিপদ এড়াতে ২২ জেলায় বন্ধ স্কুল-কলেজ!
অতি ভারী থেকে প্রবল বৃষ্টি হতে পারে তামিলনাড়ুতে। ফাইল ছবি

চেন্নাই: দুর্যোগ যেন কাটছেই না তামিলনাড়ু(Tamil Nadu)-র উপর থেকে। বৃহস্পতিবার থেকেই ফের ভারী বৃষ্টি(Heavy Rain)-তে ভাসছে চেন্নাই সহ গোটা তামিলনাড়ু। ভারী বৃষ্টি শুরু হয়েছে পুদুচেরী (Puducherry) ও কাড়াইকাল(Kadaikal)-ও। এরইমধ্যে আজ অতি ভারী থেকে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকায় তামিলনাড়ুর ২২টি জেলায় স্কুল, কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল প্রশাসন।

কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, শুক্রবার তিরুনেলাভেলি, থুতুকুডি, রমনাথপুরম, পুদুকোট্টাই ও নাগাপাট্টিনামে ভারী থেকে অতি ভারী, এমনকি প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। বেশকিছু জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। চেন্নাইয়ের আবহাওয়া দফতর সূত্রেও জানানো হয়েছে, রাজ্যজুড়ে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। বিক্ষিপ্তভাবে চারটি জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। বাকি অংশগুলিতে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। পুদুচেরী ও কাড়াইকালেও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।
বিগত প্রায় এক মাস ধরেই দুর্যোগ লেগে রয়েছে তামিলনাড়ু সহ দক্ষিণী রাজ্যগুলিতে। একের পর এক নিম্নচাপের প্রভাবে তামিলনাড়ু, অন্ধ্র প্রদেশ, কেরল, পুদুচেরীর মতো রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ভাসছে। একটানা বৃষ্টিতে রাজ্যগুলির একাধিক এলাকা প্লাবিত হওয়ায় যেমন প্রাণহানি হয়েছে, তেমনই ফসলেরও ব্যপক ক্ষতি হয়েছে। দুদিন আগেই তামিলনাড়ু ও কর্নাটক জুড়ে যে ভারী বৃষ্টি শুরু হয়, তার প্রভাবে ইতিমধ্যেই উত্তর চেন্নাই সহ একাধিক এলাকা জলমগ্ন হয়ে রয়েছে। এরইমধ্যে নতুন করে বৃষ্টি শুরু হওয়ায় আরও বিপদ বাড়তে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে।
গতকালের বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ও আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস দেখেই তামিলনাড়ুর ২২টি জেলায় সমস্ত স্কুল-কলেজে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এরমধ্যে থুতুকুডি, কন্যাকুমারী, তিরুনেলিভেলি, তিরুভারুর, তেনকাশি ও ভিল্লুপুরম জেলাও রয়েছে।

বৃহস্পতিবারই একটানা বৃষ্টির জেরে থাঞ্জাভুরে বাড়ির দেওয়াল চাপা পড়ে এক ৫ বছরের শিশুর মৃত্যু হয়। সালেমেও একাধিক মাটির বাড়ি বৃষ্টিতে ভেঙে পড়ার খবর মিলেছে। একাধিক রাস্তাও ভেঙে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে প্রশাসন সূত্রে। এদিকে, ভারী বৃষ্টিতে উড়ান পরিষেবাও ব্যহত হয়েছে। চেন্নাই থেকে আগত একটি বিমান খারাপ আবহাওয়ার কারণে গতকাল থুত্তুকুডিতে নামতে পারেনি। পরে বিমানটিকে চেন্নাইতেই ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

এর আগে চলতি মাসের শুরুতেও রাজ্য়জুড়ে যে প্রবল বৃষ্টি শুরু হয়েছিল, তাতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে তামিলনাড়ু। জল জমার  পাশাপাশি বাঁধের জল ছাড়া শুরু হওয়ায় পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়। চেন্নাইয়ের বিস্তীর্ণ অংশ জলের তলায় ডুবে যায়। বৃষ্টির কারণে কমপক্ষে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছিল বলে জানা গিয়েছিল। অন্ধ্র প্রদেশেও গত সপ্তাহে নিম্নচাপের প্রভাবে যে ভারী বৃষ্টি হয়েছিল, তার প্রভাব প্রতিবেশী তামিলনাড়ুতেও পড়েছিল। তিরুপতির বাইরের অংশেই অবস্থিত স্বর্ণমুখী নদী প্লাবিত হওয়ায়, জল তামিলনাড়ুতেও পৌঁছয়। বর্তমানে রাজ্যের সমস্ত বাঁধই প্রায় জলে পরিপূর্ণ।

আরও পড়ুন: NFHS Report: স্বাধীনতার পর এই প্রথম, দেশে পুরুষদের তুলনায় বাড়ল মহিলাদের সংখ্যা!

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla