Meghalaya Governor fights with PM Modi: ‘উনি অবিবেচক’, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তুমুল ঝগড়া করলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল!

Meghalaya Governor fights with PM Modi: 'উনি অবিবেচক', প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তুমুল ঝগড়া করলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল!
কী নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করলেন সত্যপাল মালিক?

Meghalaya Governor fights with PM Modi: রবিবার হরিয়ানার দাদরিতে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। সেখানেই তিনি জানান যে সম্প্রতিই তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কৃষকদের সমস্যা নিয়ে কথা বলতে গিয়েছিলেন, কিন্তু ৫ মিনিটের মধ্যেই ঝগড়া শুরু হয়ে যায়।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Jan 03, 2022 | 12:20 PM

নয়া দিল্লি: কৃষি আইন (Farm Laws Repeal) প্রত্য়াহার হয়ে গিয়েছে ২০২১-সালেই। তবুও নতুন বছরে তরজা কাটছে না পুরনো আইন নিয়ে। এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী(Narendra Modi)-র সঙ্গে ঝগড়াই করে বসলেন মেঘালয়(Meghalaya)-র রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক (Satya Pal Malik)। তাঁর কথায় “প্রধানমন্ত্রী অবিবেচক (Arrogant)”।

কী নিয়ে ঝগড়া:

রবিবার হরিয়ানার দাদরিতে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। সেখানেই তিনি জানান যে সম্প্রতিই তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কৃষকদের সমস্যা নিয়ে কথা বলতে গিয়েছিলেন, কিন্তু ৫ মিনিটের মধ্যেই ঝগড়া শুরু হয়ে যায়। তিনি বলেন, “উনি (প্রধানমন্ত্রী) অবিবেচকের মতো ব্যবহার করেছেন। আমি যখন বললাম যে আমাদের ৫০০ জন কৃষকের মৃত্যু হয়েছে, উনি আমায় প্রশ্ন করেন যে ওনার জন্য কী মৃত্যু হয়েছে?”

“জবাবে আমি বলি হ্য়াণ, কারণ আপনিই রাজা। যাইহোক, শেষ অবধি ওনার সঙ্গে আমার ঝগড়া হয়। উনি আমায় অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করতে বলেন, আমি তাই করি।”

কুকুর মারা গেলেও সমবেদনার চিঠি পাঠান প্রধানমন্ত্রী:

কৃষক ইস্য়ুতে এর আগেও কেন্দ্রীয় সরকার ও বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বকে আক্রমণ করতে দেখা গিয়েছে সত্যপাল মালিককে, তবে এবার সরাসরি তিনি প্রঘানমন্ত্রীর সঙ্গেই ঝগড়া করে বসলেন। কৃষক মৃত্য়ু নিয়ে কেন্দ্র অসহনীয় মনোভাব দেখিয়েছে, এই দাবি প্রমাণ করতে গিয়ে তিনি বলেন, “কুকুর মারা গেলেও প্রধানমন্ত্রী সমবেদনার চিঠি পাঠান।”

পদ খোয়াতে ভয় পাই না:

সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে তিনি যেমন ভয় পান না, তেমনই নিজের পদ ছেড়ে দিতেও ভয় পান না বলেই জানান মেঘালয়ের রাজ্যপাল। উল্লেখ্য, মেঘালয়ের রাজ্যপালের দায়িত্ব নেওয়ার আগে তিনি জম্মু-কাশ্মীর ও গোয়ার রাজ্যপালও ছিলেন।

কৃষকদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার:

গুরুনানক জয়ন্তীতে প্রধানমন্ত্রী মোদী তিন কৃষি আইন প্রত্যাহারের ঘোষণা করলেও, আন্দোলন জারি রেখেছিল কৃষকরা।  ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের আইনি গ্য়ারান্টির পাশাপাশি তাদের অন্যতম দাবি ছিল আন্দোলন চলাকালীন দেশজুড়ে কৃষকদের বিরুদ্ধে যে সমস্ত মামলা দায়ের করা হয়েছে, তা প্রত্যাহার করে নিতে হবে। কেন্দ্র সেই শর্তে রাজি হওয়ার পরই আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেয় কৃষকরা।

রবিবার সত্যপাল মালিক বলেন, “সরকারকে কৃষকদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা প্রত্যাহার ও ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের জন্য একটি আইনি পরিকাঠামো তৈরির লক্ষ্যে কাজ করতেই হবে। কিন্তু যদি সরকার ভাবে যে আন্দোলন শেষ হয়ে গিয়েছে, তবে বলব তা হয়নি। এটা কেবল স্থগিত করা হয়েছে। যদি কোনও অবিচার হয় বা কৃষকদের সঙ্গে কোনও অবিচার হয়, তবে ফের আন্দোলন শুরু হবে।”

কেন্দ্রের বক্তব্য:

গত মাসেই কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমারের “এক পা পিছিয়েছি, কিন্ত ফের এগোবো” মন্তব্যের জেরে বিতর্ক শুরু হয়েছিল। কিন্তু পরে তিনি সেই মন্তব্যের সাফাই দিয়েছিলেন। অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও জানিয়েছেন যে কৃষকদের এমএসপির দাবি নিয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্তের জন্য একটি কমিটি গঠন করা হবে।

আরও পড়ুন: Sushmita Dev on Parliamentary Panel: মেয়েদের বিয়ের বয়সের সিদ্ধান্ত নিতে ৩১ সদস্যের সংসদীয় কমিটিতে একটি মেয়ে! 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA