Congress Rally on Repealing Farm Laws: কৃষকদের খোলা চিঠি রাহুলের, ‘কিসান বিজয় দিবস’ পালনের ডাক কংগ্রেসের

Rahul Gandhi's Open Letter to Farmers: কৃষকরা নিজেদের ভাল বোঝেন, এ কথা উল্লেখ করে রাহুল লিখেছেন, "ভুল করেও আর কৃষকদের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করবেন না। বরং ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তা পূরণ করুন।"

Congress Rally on Repealing Farm Laws: কৃষকদের খোলা চিঠি রাহুলের, 'কিসান বিজয় দিবস' পালনের ডাক কংগ্রেসের
রাহুল গান্ধী। ফাইল ছবি

নয়া দিল্লি: কেন্দ্রের তিন কৃষি আইন প্রত্যাহার (Farm Laws Repeal)-কে কার্যত নিজেদের জয় বলেই ভাবছে কংগ্রেস (Congress)। কৃষি আইন প্রত্যাহারের ঘোষণার পরই শাসক দলকে একের পর এক টুইট বাণে বিঁধেছে কংগ্রেস, এ বার কৃষকদের উদ্দেশে খোলা চিঠিও লিখলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। কৃষক আন্দোলন(Farmers Protest)-র মতোই আগামিদিনেও কংগ্রেস কৃষকদের (Farmers) পাশে থাকবে বলেই তিনি জানান। এ দিকে, আইন প্রত্য়াহারের খুশিতে আজ দেশজুড়ে বিজয় মিছিল বের করার কথা কংগ্রেসের।

কৃষকদের “ঐতিহাসিক জয়ে” তাদের শুভেচ্ছা জানিয়ে চিঠিটি লিখেছেন রাহুল গান্ধী। কৃষকদের লড়াই যে এখনই শেষ হচ্ছে না, এ কথা স্বীকার করে নিয়ে তিনি ওই চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে লিখেছেন, ভবিষ্যতে যেন আর পুঁজিবাদীদের হাতে কৃষকদের জমিকে তুলে দেওয়ার চেষ্টা না করেন তিনি। একইসঙ্গে ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার প্রতিশ্রুতিকেও পূরণ করতে বলেছেন রাহুল।

কৃষকরা নিজেদের ভাল বোঝেন, এ কথা উল্লেখ করে রাহুল লিখেছেন, “ভুল করেও আর কৃষকদের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করবেন না। বরং ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তা পূরণ করুন। এরজন্য সরকারের দ্রুত একটি পরিকল্পনা প্রকাশ করা উচিত।”

প্রবল ঠাণ্ডা, রোদ-বৃষ্টির মধ্যেও কৃষকরা আন্দোলনের সিদ্ধান্তে অনড় ছিলেন বলেই এই জয় সম্ভব হয়েছে বলেন দাবি করেন রাহুল গান্ধী। কৃষকদের আন্দোলনকে ‘সত্যাগ্রহ’ বলে উল্লেখ করে তিনি জানান, বিগত প্রায় একবছর ধরে যেমন ছিল, আগামিদিনেও কৃষকদের পাশে সর্বদা থাকবে কংগ্রেস।

তিন কৃষি আইন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তে বিজয় মিছিল বের করার পরিকল্পনাও রয়েছে কংগ্রেসের। দেশজুড়ে এই মিছিল বের করা হবে বলে জানানো হয়েছে। আজকের দিনটিকে ‘কিসান বিজয় দিবস’ হিসাবে পালন করা হবে। দলীয় সূত্রে খবর, কৃষক আন্দোলনের অংশ যে ৭০০ জন কৃষকের মৃত্যু হয়েছিল, তাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন কংগ্রেস নেতারা। প্রতিটি রাজ্য ও জেলা স্তরে মোমবাতি মিছিলের আয়োজনও করা হবে আন্দোলনকারী প্রয়াত কৃষকদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে। কংগ্রেসের সাধারণ সেক্রেটারি কেসি বেণুগোপাল প্রত্যেক কংগ্রেস কর্মীকে এই মোমবাতি মিছিলে অংশ নিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

দলের রাজ্য় সভাপতিদের চিঠি পাঠিয়ে তিনি বলেছেন, “কৃষকদের এই ঐতিহাসিক জয়কে উদযাপন করতে আমাদের তরফে বিশাল কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। শহীদ কৃষকদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি মোমবাতি মিছিলও আয়োজন করা হবে। এই কর্মসূচিতে সমস্ত কর্মীদের যোগদান কাম্য।”

কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে গত বছরের ২৬ নভেম্বর থেকে দিল্লির সীমান্তে আন্দোলন শুরু করেছিল দেশের বিভিন্ন প্রান্তের কৃষকরা। কেন্দ্রের একাধিক প্রচেষ্টার পরও তাদের কৃষি আইনের লাভ বোঝানে যায়নি। গতকাল, গুরু নানক জয়ন্তীতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ রাখতে গিয়ে আইন প্রত্যাহারের ঘোষণা করেন।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla