এই প্রথম মুখোমুখি ‘সুপ্রিম’ কমিটির সঙ্গে! আলোচনায় এখনও ‘না’ পঞ্জাবের কৃষকরা

ঈপ্সা চ্যাটার্জী

ঈপ্সা চ্যাটার্জী |

Updated on: Jan 21, 2021 | 1:17 PM

কেন্দ্র-কৃষক পক্ষের কিছুটা সুর নরম হতেই কৃষক পক্ষকে বৈঠকে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের গঠিত তিন সদস্যের কমিটি।

এই প্রথম মুখোমুখি 'সুপ্রিম' কমিটির সঙ্গে! আলোচনায় এখনও 'না' পঞ্জাবের কৃষকরা
ফাইল চিত্র।

নয়া দিল্লি: অধিকাংশ কৃষকই অংশগ্রহণে নারাজ, তবুও বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসতে চলেছে কৃষি আইন (Farm Laws) নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের গঠিত কমিটি । কেন্দ্রের নয়া তিন কৃষি আইন নিয়ে সমাধান সূত্র খুঁজতেই এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। দেশের প্রায় ২০টি কৃষক গোষ্ঠীর সঙ্গে আজ তাঁরা বৈঠকে বসবেন।

গতকালই কেন্দ্রের সঙ্গে দশম দফা বৈঠকে কৃষকদের জানানো হয়েছিল, আগামি এক থেকে দেড় বছরের জন্য কৃষি আইন স্থগিত রাখতে রাজি সরকার। কৃষকেরাও কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। বৈঠক শেষে তাঁরা জানান, কেন্দ্রের এই প্রস্তাবটি বিবেচনা করে দেখা যেতে পারে। আগামি শনিবার একাদশতম বৈঠকে তাঁরা এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবেন। কেন্দ্র-কৃষক পক্ষের কিছুটা সুর নরম হতেই কৃষক পক্ষকে বৈঠকে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের গঠিত তিন সদস্যের কমিটি।

মঙ্গলবার কমিটির প্রথম বৈঠক শেষেই কৃষকদের বৈঠকে অংশ নেওয়ার জন্য আবেদন জানান তাঁরা। কমিটির তরফে বলা হয়, “এই কমিটি কোনও রাজনৈতিক দল বা সরকার দ্বারা প্রভাবিত নয়। কমিটির একমাত্র উদ্দেশ্য হল কৃষকদের লাভ নিশ্চিত করা।” কমিটির সদস্য প্রমোদ কুমার যোশী বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের তরফে আমাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তিনটি কৃষি আইন সম্পর্কে প্রতিটি কৃষক সংগঠন, ফসল বিক্রেতা ও কৃষিক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলির বক্তব্য শুনতে। তাঁরা সকলেই এই আইন পরিবর্তন করতে চান নাকি প্রত্যাহার করতে চান, সেই বিষয়টি জেনেই সুপ্রিম কোর্টে একটি রিপোর্ট জমা দেওয়া হবে।”

আরও পড়ুন: ভয় কাটাতে দ্বিতীয় দফায় করোনা টিকা নেবেন প্রধানমন্ত্রী, টিকা পাবেন সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরাও

আজকের বৈঠকে ২০টি কৃষক সংগঠনের সঙ্গে দেখা করার কথা থাকলেও মূলত অন্ধ্র প্রদেশ, কর্ণাটক, কেরল এবং ওড়িশার কৃষকরা আজ কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে জানা গিয়েছে। মূলত পঞ্জাবের কৃষক সংগঠনগুলিই সুপ্রিম কোর্টের গঠিত কমিটির সঙ্গে বৈঠকে নারাজ হওয়ায় সে বিষয়ে কমিটির তরফে জানানো হয়, তাঁরা ইতিমধ্যেই দিল্লি সীমান্তে আন্দোলনকারী পঞ্জাবের কৃষক সংগঠনগুলির সঙ্গে কথা বলেছেন। তবে কৃষকদের তরফে কোনও সাড়া দেওয়া হয়নি। কমিটির তরফে বলা হয়, “কৃষকরা যাতে আমাদের সঙ্গে কথা বলে, তার প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। কমিটির সঙ্গে দেখা করার জন্য আমরা একে একে বিভিন্ন সংগঠনকে ডাকব।”

মঙ্গলবার কমিটির তরফে বৈঠকে অংশ নেওয়ার আমন্ত্রণের পরই বুধবার পঞ্জাবের এক কৃষক সংগঠনের নেতা এই বিষয়ে জানান, তাঁরা কেবল সরাসরি কেন্দ্রের সঙ্গেই বৈঠক করতে চান। সুতরাং কমিটির সঙ্গে তাঁরা দেখা করবেন না। কৃষকদের অভিযোগ, সুপ্রিম কোর্টের নিয়োগ করা কমিটির সদস্যরা সকলেই কৃষি আইনের সপক্ষে, তাই আলোচনায় কোনও লাভ নেই। কৃষকদের এই অভিযোগ সামনে আসার পরই কমিটির এক সদস্য ভূপিন্দর সিং মান (Bhupinder Singh Mann) কমিটি থেকে পদত্যাগ করেন। তিনি বলেন, “একজন কৃষক ও সংগঠনের প্রতিনিধি হিসাবে তিনি কখনোই কৃষকদের স্বার্থের সঙ্গে সমঝোতা করবেন না। এছাড়াও কৃষকরা জানিয়েছেন যে কমিটির সঙ্গে তাঁরা আলোচনায় বসবেন না, সুতরাং এই কমিটির কোনও গুরুত্বই থাকে না।”

আরও পড়ুন: জ্যান্ত পুঁতে দেওয়া ও বস্তাবন্দি করে রেললাইনে ফেলে আসা- দুই ধর্ষণের ঘটনায় ফের লজ্জার মুখে মধ্য প্রদেশ

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla