‘ভ্যাকসিন আউট অব স্টক’! সেশন সেন্টারে মিলছে না টিকা, চরম ভোগান্তি

ভ্যাকসিনের এই আকাল পরিস্থিতি নিয়ে মহারাষ্ট্রের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের যে বিতর্ক শুরু হয়েছে, তা ক্রমশ আরও জোরাল হচ্ছে।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 14:17 PM, 8 Apr 2021
'ভ্যাকসিন আউট অব স্টক'! সেশন সেন্টারে মিলছে না টিকা, চরম ভোগান্তি
গাজ়িয়াবাদে পোস্টার

নয়া দিল্লি: কেন্দ্র বারবার বলছে টিকার (COVID Vaccine) কোনও ঘাটতি নেই। কিন্তু একাধিক রাজ্যের পরিস্থিতি একেবারে অন্য। আগেই মহারাষ্ট্র (Maharashtra) জানিয়েছে রাজ্যে করোনা টিকা শেষের পথে। পাল্টা স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, মহারাষ্ট্র নিজের গাফিলতি ঢাকতেই এই সব বলছে। কিন্তু একাধিক রাজ্যে যে করোনা টিকার অভাব রয়েছে তার প্রমাণ মিলছে উত্তর প্রদেশ ও মহারাষ্ট্রের একাধিক সেশন সেন্টারেই। গাজ়িয়াবাদের বিভিন্ন সেশন সেন্টারে পোস্টার পড়েছে ‘ভ্যাকসিন আউট অব স্টক।’ সেখানে পোস্টারে বড় বড় করে লেখা হয়েছে, “ভ্যাকসিনের পর্যাপ্ত জোগান নেই সিএমও অফিসে। তাই হাসপাতালে আসার আগে ফোন করে আসুন।”

বিভন্ন বেসরকারি হাসপাতালেও সোমবার থেকে বন্ধ টিকাকরণ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানাতে পারছে না ভ্যাকসিনের পরবর্তী লট কবে আসবে। অন্যদিকে ভ্যাকসিনের অভাবে মুম্বইর ২৬টি সেশন সেন্টার বন্ধ হয়ে গিয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে জানিয়েছেন, কেন্দ্রের কাছ থেকে আরও বেশি ভ্যাকসিন প্রয়োজন। আগেই রাজেশ তোপে জানিয়েছিলেন যা ভ্যাকসিন আছে তাতে গোটা রাজ্যে স্রেফ ৩ দিন টিকাকরণ চালানো যাবে। মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন জায়গায় টিকাকরণ বন্ধ হয়েছে গতকাল সন্ধ্যা থেকেই। অন্যদিকে সমাজবাদী কংগ্রেস দলের সাংসদ সুপ্রিয়া সূলে টুইট করে জানিয়েছেন, পুণেতেও ১০০টির বেশি সেশন সেন্টার ভ্যাকসিনে ঘাটতির জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

ভ্যাকসিনের এই আকাল পরিস্থিতি নিয়ে মহারাষ্ট্রের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের যে বিতর্ক শুরু হয়েছে, তা ক্রমশ আরও জোরাল হচ্ছে। কারণ দিল্লির সঙ্গেও কেন্দ্রের এই বিষয়ে মতবিভেদ দেখা দিয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন কেজরীবাল সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে জানিয়েছিলেন, দিল্লিতে জাতীয় গড়ের থেকে কম টিকাকরণ হচ্ছে। যদিও দিল্লি প্রশাসন সেই দাবি উড়িয়ে জানিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকার পরিচালিত হাসপাতালগুলিতে টিকাকরণ প্রক্রিয়া স্লথ হওয়ায় দিল্লিতে টিকাকরণে মাত্রা কমছে।

আরও পড়ুন: করোনা নিয়ন্ত্রণে সোমবার অবধি লকডাউন মধ্য প্রদেশের শহরাঞ্চলে