মেট্রো ডেয়ারি মামলায় পরপর তিন আইএএস-কে নোটিস ইডির

tannistha bhandari

tannistha bhandari |

Updated on: Mar 19, 2021 | 10:16 AM

কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীর (Adhir Ranjan Chowdhury) করা মমালার ভিত্তিতেই তদন্ত শুরু হয়। রাজনৈতিক চাপ ছিল কিনা জানতে চাইবেন ইডির (Enforcement Directorate) আধিকারিকরা।

মেট্রো ডেয়ারি মামলায় পরপর তিন আইএএস-কে নোটিস ইডির
মেট্রো ডেয়ারি মামলায় ফের নোটিস

কলকাতা: মেট্রো ডেয়ারি (Metro Dairy) হস্তান্তর সংক্রান্ত মামলায় এবার একের পর এক আইএএস-কে নোটিস এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (Enforcement Directorate)। এবার তলব করা হল বিপি গোপালিকাকে (B P Gopalika)। রাজ্যের প্রাণী সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের সচিব পদে ছিলেন তিনি। সংশ্লিষ্ট দফতরের মাধ্যমেই মেট্রো ডেয়ারি হস্তান্তরের প্রক্রিয়া হয়েছিল। তাই এই মামলায় তাঁকে জেরা করতে চায় ইডি।

আগামী ২৪ মার্চ তাঁকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া এই মামলায় নোটিস দেওয়া হয়েছে আরও দুই আইএএস-কে। ২২ মার্চ ইডি-র দফতরে হাজির হওয়ার নির্দেশ এইচপি দ্বিবেদীকে। ২২ মার্চ তলব আইএএস রাজীব কুমারকে। ২০১৭ থেকে এই মামলার তদন্ত করছে ইডি। কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীর করা মমালার ভিত্তিতেই তদন্ত শুরু হয়। তাঁর দাবি ছিল, সংস্থাটিকে সুবিধা করে দিতেই সরকারি প্রকল্পের বিপুল ক্ষতি করেছে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন: আনলক পর্বে এমিরেটস্-এর বিমান ধরে দেশ ছাড়ে বিনয় মিশ্র, কোথায় যায় সে?

অভিযোগ ছিল, কেভেন্টার্স সংস্থাকে মেট্রো ডেয়ারি হস্তান্তর করার ক্ষেত্রে সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হয়েছিল। নিয়মের বাইরে গিয়ে কম দামে মেট্রো ডেয়ারির শেয়ার কিনে নেয় কেভেন্টার্স। সংশ্লিষ্ট দফতরের সচিব থাকার জন্য বিপি গোপালিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ইডি। ইডি সূত্রে খবর, তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হবে, কেন শেয়ার কেনার সময় একমাত্র কেভেন্টার্সই ছিল। সাধারণত, যে সংস্থা বেশি টাকা দেয় তাদেরকেই শেয়ার হস্তান্তর করা হয়। কিন্তু এ ক্ষেত্রে শুধুমাত্র কেভেন্টার্সই ছিল। এই হস্তান্তরের জন্য কোনও রাজনৈতিক চাপ বা কোনও প্রভাবশালী ব্যক্তির চাপ ছিল কিনা, তা খতিয়ে দেখা হবে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla