Covid treatment in West Bengal: করোনা চিকিৎসায় নতুন দিক! বাংলায় এবার অনুমোদন পেল মোলনুপিরাভির, মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি থেরাপি

Covid treatment in West Bengal: করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে কলকাতা তথা সারা রাজ্যে। এই পরিস্থিতির মধ্যেই মান্যতা পেল নয়া চিকিৎসা পদ্ধতি।

Covid treatment in West Bengal: করোনা চিকিৎসায় নতুন দিক! বাংলায় এবার অনুমোদন পেল মোলনুপিরাভির, মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি থেরাপি
৭২ ঘণ্টার মধ্যেই সিদ্ধান্ত বদল (ফাইল চিত্র)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: tannistha bhandari

Jan 01, 2022 | 11:11 AM

কলকাতা : এবার বাংলায় করোনা চিকিৎসায় অনুমোদন পেল মোলনুপিরাভির ওষুধ।  এ ছাড়া মোনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি থেরাপি ব্যবহার করেও চিকিৎসা করা যাবে বলে জানানো হল স্বাস্থ্য ভবনের তরফে। করোনার চিকিৎসা সংক্রান্ত নতুন প্রোটোকল প্রকাশ করা হয়েছে স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে। আর সেই প্রোটোকলেই উল্লেখ রয়েছে নতুন চিকিৎসা পদ্ধতির।

রাজ্যের চিকিৎসা প্রোটোকলে এত দিন পর্যন্ত এই দুই পদ্ধতি ছিল না, অথচ কী ভাবে মোলনুপিরাভির বা মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি বেসরকারি হাসপাতালে রোগীদের দেওয়া হচ্ছিল তা নিয়ে চিকিৎসকেরা প্রশ্ন তুলেছিলেন। বিশেষত উডল্যান্ডসে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে অ্যান্টিবডি থেরাপি দেওয়ার পরে প্রশ্নটি প্রাসঙ্গিক হয়ে ওঠে। সেই বিতর্ক এড়াতে প্রোটোকলে এই দুই ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতি মান্যতা পেল বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

বিতর্ক প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয় চক্রবর্তী জানান, এই চিকিৎসা পদ্ধতি অনেকদিন আগে থেকে প্রয়োগ করা হচ্ছিল, সরকারি ক্ষেত্রেও এই চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে প্রোটোকল আকারে বের করতে একটু দেরি হল বলে জানিয়েছেন তিনি।

কী এই মোলনুপিরাভির?

কয়েকদিন আগেই ভারতে অনুমোদন পেয়েছে করোাৃনার ওষুধ মোলনুপিরাভির (Molnupiravir)। ভারতের বাজারে যার নাম হবে, মোলক্সভির। করোনার মৃদু উপসর্গ থাকলেই বাড়িতেই খাওয়া যাবে এই ওষুধ।

মূলত প্রাপ্তবয়স্করাই এই ওষুধ খেতে পারবেন। করোনা আক্রান্তের শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা যদি ৯৩ শতাংশের নীচে নেমে যায়, সে ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ওই ওষুধ খেতে হবে। ওই ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা করা হলে, আক্রান্তের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সম্ভাবনা কমবে বলে বলে জানাচ্ছেন চিকিৎসকেরা। এটি কোভিডের অ্যান্টি ভাইরাল পিল হিসেবে কাজ করবে। মোলনুপিরাভির নামে এই ওষুধ নিয়ে গবেষণা চলছিল অনেক দিন ধরেই। মার্কিন সংস্থা মার্ক অ্যান্ড রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস (Merck and Ridgeback Biotherapeutics) এই ওষুধ বাজারে আনে প্রথম।

কী এই মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি থেরাপি?

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই থেরাপি ব্যবহার করে ব্যাপক সাফল্য পাওয়া গিয়েছে এই মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি থেরাপিতে। ভারতের গবেষকরাও এই চিকিৎসা পদ্ধতিকে মান্যতা দিয়েছেন। হায়দরাবাদের এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজিতে এই মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি নিয়ে গবেষণা হয়। শতাধিক রোগীর ওপর পরীক্ষা করার পরই বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত হন যে, এই পদ্ধতিতে সুস্থ হয়ে উঠবেন করোনা আক্রান্তরা।

আরও পড়ুন :  Covid Surge in Delhi: করোনা আক্রান্ত সাত মাসে সর্বোচ্চ, বর্ষশেষেই নয়া উদ্বেগের ইঙ্গিত রাজধানীতে

প্রাক্তন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ট ট্রাম্পকেও এই মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি থেরাপি দেওয়া হয়েছিল। এটি মূলত অ্যান্টিবডি ককটেল। যাঁদের কো-মর্বিডিটি আছে অর্থাৎ হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি থেরাপি তাঁদের শরীরে ম্যাজিকের মতো কাজ করে। তবে আক্রান্ত হওয়ার শুরু থেকেই এই থেরাপি ব্যবহার করতে হবে।

আরও পড়ুন : Covid Vaccine: টিকাকরণে ১৪৫ কোটির মাইলফলক পার করেছে ভারত, জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla