ISL: ডার্বি জিততে পারবে না ইস্টবেঙ্গল: মানালো দিয়াজ

ISL: ডার্বি জিততে পারবে না ইস্টবেঙ্গল: মানালো দিয়াজ
নিজে সাফল্য পাননি, অন্যদের হাতেও সাফল্যে দেখছেন না দিয়াজ। Pics Courtesy: Twitter

East Bengal: স্পেনে ফিরে গিয়ে একাধিক অভিযোগ তুলছেন, কিন্তু তাঁর কোচিং নিয়েও একরাশ প্রশ্ন। দল ভালো হয়নি সেটা অতি বড় ইস্টবেঙ্গল সমর্থকও জানতেন। কিন্তু যারা আছে তাদের মধ্যে থেকে সেরেটা কি তিনি বের করে আনতে পেরেছেন? দলের অন্দরে যে তাঁকে নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanghamitra Chakraborty

Jan 27, 2022 | 4:15 PM

মাদ্রিদ: শনিবার আইএসএলে (ISL) ফিরতি ডার্বি। ইস্টবেঙ্গল (East Bengal) মোহনবাগান (Mohun Bagan) ফুটবল যুদ্ধের আগে স্পেনে বসে বোমা ফাটালের প্রাক্তন ইস্টবেঙ্গল কোচ মানালো দিয়াজ (Manolo Diaz)। শনিবারের ডার্বির ভাগ্য যেন এখন থেকেই দেখতে পাচ্ছেন তিনি। নিজের প্রাক্তন দলের সাফল্য দেখতে পাচ্ছেন না স্প্যানিশ কোচ। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে (Indian Express) দেওয়া এক ইন্টারভিউয়ে এমনটাই দাবি করেছেন প্রাক্তন কোচ দিয়াজ। তাঁর কোচিংয়ে ইস্টবেঙ্গল টানা ব্যর্থতা দেখেছে। সাফল্য বলতে টানা চারটি ম্যাচ ড্র করা। প্রবল সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে প্রাক্তন লাল-হলুদ কোচকে। তাঁর দল নির্বাচন থেকে ম্যাচ রিডিং নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। নতুন কোচ রিভেরার হাত ধরে এ বারের আইএসএলে প্রথম জয় পেয়েছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। সেই জয়টাই নতুন করে স্বপ্ন দেখাতে শুরু করেছে লাল-হলুদ জনতাকে। প্রাক্তন কোচকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, শনিবারের ডার্বিতে নতুন কোচের হাত ধরে কি জয় পাবে ইস্টবেঙ্গল? উত্তরে দিয়াজ বলেন, “দেখুন কি হয় আমার মনে হয় না ইস্টবেঙ্গল পারবে।” তিনি কি স্পেনে বসে ইস্টবেঙ্গলের ম্যাচ দেখেন? “শুধু ম্যাচের ফলগুলো দেখি, আর কিছু না।”

স্পেন থেকে বসে শুধু ডার্বির ভবিষ্যদ্বাণী করাই নয়, লাল হলুদ ম্যানেজমেন্ট নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন দিয়াজ। তাঁর তোপ দলের শ্রেণিক শেঠ ও সিইও শিবাজী সমাদ্দারের বিরুদ্ধে। দিয়াজ বলছেন, “ওরা কেউ পেশাদার নয়। ফুটবলাররাও ওদের নিয়ে খুশি নয়। ইনভেস্টরদের উচিত ছিল ওদের দলের সঙ্গে না রাখা। শুরু থেকে সবটাই ভালো ছিল। তবে এই ম্যানেজমেন্ট সবটা নষ্ট করে দিয়েছে।”

দিয়াজের বক্তব্য দল গঠনটাই ভুল হয়েছে। বর্তমান যে দলটা আইএসএল খেলছে, তাদের এই টুর্নামেন্ট খেলার যোগ্যাতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন দিয়াজ। জানিয়েছেন বর্তামান দলের দু’জন বিদেশি ফুটবলার ছাড়া আর কোনও ফুটবলারের নামী নাকি তিনি প্রস্তাব করেননি। দিয়াজের প্রস্তাবে ছিলেন অ্যান্টোনিও পেরোসেভিচ ও দ্যারেল সিডোল। লাল-হলুদে থাকার সময় আদিল খানকে না খেলানো নিয়ে অনেক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে দিয়াজকে। বলছেন, “জানি আমার নামে অভিযোগ, ওকে কেন খেলাইনি। কিন্তু ওকে যে ম্যাচটা খেলতে বলেছিলাম ও সেটা খেলতে চায়নি। একজন পেশাদার ফুটবলারের আচরণ এমন হতে পারে না। ওর স্কিল নিয়ে যদি আমায় প্রশ্ন করেন, তা হলে বলতে হবে, আদিল খুব সাধারণ একজন ফুটবলার।”

স্পেনে ফিরে গিয়ে একাধিক অভিযোগ তুলছেন, কিন্তু তাঁর কোচিং নিয়েও একরাশ প্রশ্ন। দল ভালো হয়নি সেটা অতি বড় ইস্টবেঙ্গল সমর্থকও জানতেন। কিন্তু যারা আছে তাদের মধ্যে থেকে সেরেটা কি তিনি বের করে আনতে পেরেছেন? দলের অন্দরে যে তাঁকে নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। যে কোচ লুকাস ভাসকুয়েজ, দিয়েগো লোরেন্তে, ক্যাসেমেরো, ডেনিস চেরিসেভের মত ফুটবলারকে কোচিং করিয়েছেন তাঁর কাছে থেকে কি সেরাটা পেয়েছে ইস্টবেঙ্গল বা তার ফুটবলাররা?

আরও পড়ুন : Qatar World Cup: বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের পেছনে ফেলে বিশ্বকাপের টিকিটের দৌড়ে ভারত

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA