Super Dadi: ১০০ মিটারে সোনা ১০৫ বছরের ঠাকুমার ! গড়লেন জাতীয় রেকর্ড

Super Dadi: ১০০ মিটারে সোনা ১০৫ বছরের ঠাকুমার ! গড়লেন জাতীয় রেকর্ড
বার্ধক্যকে তুড়ি মেরে ওড়ালেন হরিয়ানার সুপার দাদি
Image Credit source: Twitter

যে বয়সে হাঁটাচলা করাই দুঃসাধ্য। বিছানা শুয়ে ভগবানের নাম জপই একমাত্র কাজ। সেই বয়সে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে, রেকর্ড গড়ে চমকে দিয়েছেন হরিয়ানার ১০৫ বছরের সুপার দাদি। ফিটনেসের সিক্রেট মন্ত্র ফাঁস করেছেন তিনি।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Tithimala Maji

Jun 21, 2022 | 2:07 PM

বদোদরা: বয়সের দিক থেকে সেঞ্চুরি পার করে ফেলেছেন অনেকদিন আগেই। বর্তমানে বয়স ১০৫ বছর (105 years Old)। নাহ, বিছানায় শুয়ে শেষের দিন গুনছেন না তিনি। যে বয়সে হাঁটাচলা করাই দুঃসাধ্য, সেই বয়সে রেস ট্র্যাকে দৌড়ে জিতেছেন হরিয়ানার ১০৫ বছরের এক বৃদ্ধা ! তাও আবার এএফআই (AFI) আয়োজিত জাতীয় স্তরের একটি প্রতিযোগিতায়। খুব ক্লিশে শোনালেও, বয়স সত্যিই তাঁর কাছে সংখ্যামাত্র। রামবাই নামে ওই মহিলা হরিয়ানার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে । তাই তাঁকে সুপার দাদি (Haryana Super Dadi),সুপার গ্র্যানি বলে সম্বোধন করছে নেটিজেনরা। ভেঙে দিয়েছেন ১০১ বছরের মান কউরের রেকর্ড।

অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া আয়োজিত ন্যাশনাল ওপেন মাস্টার্স অ্যাথলেটিক্সে বয়সভিত্তিক ১০০ মিটার রেসে অংশ নিয়েছিলেন ১০৫ বছরের রামবাই। তাঁর ট্র্যাকে নামার আগে পর্যন্ত ১০১ বছর বয়সী মান কউরের এই প্রতিযোগিতার ১০০ মিটারে সোনা জয়ের রেকর্ড ছিল। ৭৪ সেকেন্ডে রেস সম্পূর্ণ করার রেকর্ড ছিল তাঁর ঝুলিতে। ১৯১৭ সালের ১ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করা রামবাই এক ঝটকায় সেই রেকর্ড ভেঙে ফেললেন। বদোদরায় অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতার ৮৫ বছরের উর্ধ্বে বিভাগে অংশ নিয়েছিলেন রামবাই। তবে রেস ট্র্যাকে নেমে দেখেন তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী নেই কেউ। কারণ ৮৫ বছরের উর্ধ্বে ১০০ মিটার দৌড়ে অংশ নেওয়ার মতো তিনি ছাড়া আর কেউ ছিলেন না। গ্যালারিতে উপস্থিত দর্শকদের হাততালি আর উৎসাহে ১০০ মিটারের দৌড় পূর্ণ করে সোনা জেতেন। মাত্র ৪৫.৪০ সেকেন্ডে দৌড় সম্পূর্ণ করে নয়া জাতীয় রেকর্ড গড়ে ফেলেন সুপার দাদি।

প্রতিযোগিতা শেষ হতেই রামবাই দেবীর সঙ্গে সেলফি তোলার হিড়িক পড়ে যায়। এই কীভাবে এই অসাধ্য সাধন করলেন, উপস্থিত জনতার মধ্যে এই নিয়ে আগ্রহ ছিল তুঙ্গে । সেই উত্তরও দিয়েছেন তিনি। এই বয়সেও দারুণ ফিটনেসের সিক্রেট মন্ত্র ফাঁস করে তিনি বলেন, “আমি চুরমা, দই আর দুধ খাই।” তাঁর নাতনি জানান, ঠাকুমা সম্পূর্ণ নিরামিষভোজী। প্রত্যহ ২৫০ গ্রাম ঘি খান। সঙ্গে থাকে ৫০০ গ্রাম দই। দিনে দু’বার খাঁটি দুধের সঙ্গে বাজরার রুটি। ভাত বেশি খান না।

এই খবরটিও পড়ুন

যদিও জাতীয় রেকর্ড গড়েও সন্তুষ্ট নন রাইবাই দেবী। এবার তাঁর লক্ষ্য আন্তর্জাতিক স্তরের প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া। ইতিমধ্যেই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করে তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন। এই বয়সে দৌড়াদৌড়ি কেন? রীতিমতো সেলিব্রিটি বনে যাওয়া সুপার দাদি বলেন, “আমি দৌড়নোর জন্য প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু কেউ আমাকে সুযোগ করে দেয়নি। আজ সুযোগ পেয়েছি।” স্বপ্নপূরণের জন্য কোনও বয়স হয় না তা বুঝিয়ে দিলেন ১০৫ বছরের রামবাই দেবী।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA