Free Fire Ban Policy: গারিনা ফ্রি ফায়ারে এই ৬ কাজে ব্যান হতে পারেন প্লেয়ার, সতর্ক থাকতে এখনই জেনে নিন

Free Fire Ban Policy: গারিনা ফ্রি ফায়ারে এই ৬ কাজে ব্যান হতে পারেন প্লেয়ার, সতর্ক থাকতে এখনই জেনে নিন
ফ্রি ফায়ার। প্রতীকী ছবি।

Garena Free Fire: কোন কোন কাজ করলে প্লেয়ারদের গারিনা ফ্রি ফায়ার থেকে ব্যান করা হতে পারে, তার জন্য একটি সুস্পষ্ট গাইডলাইনও রয়েছে। প্রতারণা মূলক ক্রিয়াকলাপ বা হ্যাকিংয়ের পাশাপাশি আবার নির্দেশিকায় রয়েছে একাধিক বাগ ও গ্লিচ এবং খেলার অতিরিক্ত সুবিধার্থে কিছু থার্ড পার্টি অ্যাপসের ব্যবহারও।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sayantan Mukherjee

Jan 20, 2022 | 5:45 PM

গারিনা ফ্রি ফায়ার (Garena Free Fire), অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার গেম, বিগত কয়েক বছরে জনপ্রিয়তার শিখরে উঠেছে। রোজ সকালে উঠেই প্লেয়ারদের মধ্যে কমন একটা প্রশ্ন থাকে, “আজকের ফ্রি ফায়ার রিডিম কোডগুলো কী কী?” তবে অতি উচ্চাভিলাষী হতে গিয়ে ফ্রি ফায়ার খেলায় বড় মূল্য চোকাতে হতে পারে প্লেয়ারদের। ভুল ভাবে বিভিন্ন কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়লে ব্যান (Free Fire Ban Policy) পর্যন্ত করা হতে পারে। এই কথাটা যেমন ভাবে প্লেয়ারদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, তার থেকেও বেশি সেই প্লেয়ারদের মধ্যেই যারা প্রতারক বা হ্যাকারের ভেক ধরে বসে রয়েছে। কঠোর শাস্তি দিতে পারে গেমের ডেভেলপার সংস্থা। আর সেই জন্যই গারিনা ফ্রি ফায়ার প্লেয়ারদের সদা সতর্ক থাকা উচিত, কোনও ভাবেই যেন তারা প্রতারণা বা হ্যাকিংয়ের (Cheating And Hacking) সঙ্গে জড়িয়ে না পড়েন। সেই সঙ্গে এই বিষয়ে সতর্ক করতে হবে টিমমেটদেরও।

কমিউনিটি যাতে সেরার সেরা গেমিং অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতে পারে তার জন্য সদা সচেষ্ট গারিনা ফ্রি ফায়ারের ডেভেলপার সংস্থা। তার জন্য বিশেষ উপদেষ্টামণ্ডলী রয়েছে, যার সবসময় মনিটরিংয়ের কাজটি করে যাচ্ছেন। কোন কোন কাজ করলে প্লেয়ারদের গারিনা ফ্রি ফায়ার থেকে ব্যান করা হতে পারে, তার জন্য একটি সুস্পষ্ট গাইডলাইনও রয়েছে। প্রতারণা মূলক ক্রিয়াকলাপ বা হ্যাকিংয়ের পাশাপাশি আবার নির্দেশিকায় রয়েছে একাধিক বাগ ও গ্লিচ এবং খেলার অতিরিক্ত সুবিধার্থে কিছু থার্ড পার্টি অ্যাপসের ব্যবহারও। তাই গেমারদের একটি সুষ্ঠু গেমিং পরিবেশ দিতে গারিনা ফ্রি ফায়ার গেমে যে সব গাইডলাইন রয়েছে, সেগুলিই এক নজরে দেখে নেওয়া যাক।

যে সব কারণে গারিনা ফ্রি ফায়ার আপনাকে ব্যান করতে পারে

১) অনুমোদিত নয় এমন টুলসের ব্যবহার – কোনও ইউজার যদি এমন কোনও টুলস ব্যবহার করে থাকেন, যা তাঁকে গেমটি খেলার সময় অতিরিক্ত কিছু সুবিধা দিতে পারে, তাহলে ব্যান করা হতে পারে তাঁকে।

২) মডিফায়েড এবং অনুমোদিত নয় এমন গেম ক্লায়েন্ট ব্যবহার – গেমের কোনও মডিফায়েড বা অনুমোদিত নয় এমন কোনও ভার্সন থেকে গারিনা ফ্রি ফায়ার খেলার চেষ্টা করা হয়, তাহলে সে ক্ষেত্রে ব্যান হতে পারেন খেলোয়াড়। এ ক্ষেত্রে কোনও কারণে সেই ভার্সন ব্যবহৃত হয়েছিল, তা দেখবে না ফ্রি ফায়ার কর্তৃপক্ষ।

৩) অফিসিয়াল নয় এমন প্রোগ্রামের ব্যবহার – কোনও বাগস বা গ্লিচ বা অন্য কোনও থার্ড পার্টি অ্যাপসের ব্যবহার করে যদি প্লেয়াররা গেমটি খেলার চেষ্টা করে থাকেন এবং তার অতিরিক্ত সুবিধাও উপভোগ করে থাকেন, তাহলেও তাঁকে ব্যান করা হবে।

৪) মডিফায়িং মডেল ফাইলস – গেমের মধ্যে ইতিমধ্য়েই থাকা কোনও মডেল যদি প্লেয়াররা কোনও কারণবশত মডিফাই করে থাকেন, তাহলে ব্যান অত্যাবশ্যক।

৫) অ্যান্টি-হ্যাক সিস্টেম বাইপাস করার চেষ্টা – নিজের গেম-ডেটা যদি ইউজার ট্রান্সফার করার চেষ্টা করে থাকেন গেমের অ্যান্টি-হ্যাক সিস্টেম বাইপাস করার মধ্যে দিয়ে তাহলে বড়সড় বিদপ হতে পারে। আর যদি ধরা পড়ে যান, তাহলে তখনই ব্যান করা হবে তাঁকে।

৬) অন্য ইউজাররা রিপোর্ট করলে – খেলায় প্লেয়ারের বেআইনি কিছু মুভ বা খেলার ধরন সম্পর্কে যদি অন্য প্লেয়াররা রিপোর্ট করে, তাহলেও ব্যান করা হবে সেই প্লেয়ারকে।

উপরের এই ছয়টি পয়েন্টের মধ্যে থেকে কোনও প্লেয়ার যদি একটিও অবলম্বন করে থাকেন, তাহলে গারিনা ফ্রি ফায়ার কোনও সাময়িক ব্যান নয়, চিরতরে ব্যান করতে পারে। গেমের সাপোর্ট পেজে এই বিষয়ে লেখা হচ্ছে, “জ়িরো-টলারেন্স পলিসি নিয়ে আমরা চলছি। এগুলির মধ্যে যে কোনও একটি প্লেয়াররা করলে তাঁকে গেম থেকে চিরকালের জন্য ব্যান করা হবে।”

আরও পড়ুন:  ঝাঁ চকচকে গ্রাফিক্সে প্লেয়ারদের চোখে সমস্যা, ফেব্রুয়ারিতেই সমাধান করতে চলেছে পাবজি নিউ স্টেট

আরও পড়ুন: নতুন আপডেট পেল ব্যাটলগ্রাউন্ডস মোবাইল ইন্ডিয়া, লিভিক ম্যাপের নতুন থিম-সহ একাধিক ফিচার্স

আরও পড়ুন: নতুন কুপন কোড রিলিজ হল, রিডিম করলেই নতুন পার্টি ক্রেট, চিকেন মেডেল

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA