Booster Dose Scam: কোভিডের বুস্টার ডোজ়ের নামে বড়সড় প্রতারণাচক্র, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খালি হওয়ার আগে যা জানা জরুরি

Covid-19 Booster Shot Scam: কোভিডের বুস্টার শট দেওয়ার নাম করে ফোন করছে প্রতারকরা। স্লট বুকিংয়ের দিনক্ষণ জানানোর পরই আপনার কাছে পাঠানো হচ্ছে OTP। আর সেই ওটিপি একবার শেয়ার করলে আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে সব টাকা গায়েব হয়ে যেতে পারে।

Booster Dose Scam: কোভিডের বুস্টার ডোজ়ের নামে বড়সড় প্রতারণাচক্র, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খালি হওয়ার আগে যা জানা জরুরি
প্রতীকী ছবি

দেশজুড়ে ইতিমধ্যেই ষাটোর্ধ্বদের জন্য শুরু হয়েছে কোভিডের তৃতীয় ডোজ়ের টিকাকরণ (Covid 19 Vaccination)। সারা দেশে ওমিক্রন (Omicron) ভ্যারিয়েন্টের দাপটে কোভিডের তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তেই বুস্টার ডোজ় (Booster Dose) নেওয়ার হিড়িক লক্ষ্য করা গিয়েছে জনসাধারণের মধ্যে। আর এমনই একটা সংকটজনক সময়ে ওঁত পেতে বসে আছে প্রতারকরা। সামান্য ভুলেই আপনার কষ্টার্জিত সব টাকা গায়েব হয়ে যেতে পারে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে। সম্প্রতি একটি নতুন প্রতারণাচক্রের সন্ধান পেয়েছেন সাইবার সিকিওরিটি রিসার্চাররা, যা মূলত কোভিডের বুস্টার ডোজকেই (Covid 19 Booster Dose Scam) হাতিয়ার করে ছাপোষা সাধারণ মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ফাঁদ পাতা হয়েছে।

ঠিক কী ভাবে এই প্রতারণার কাণ্ডটি ঘটানো হচ্ছে?

প্রতারকরা প্রথমে আপনাকে একটি ফোন কল করবে। নিজেদের পরিচয় দেবে সরকারি কর্মচারী হিসেবে। মূলত ষাটোর্ধ্বদেরই এই ধরনের প্রতারণামূলক ফোন কল করা হচ্ছে। তার পর তারা আপনাকে জিজ্ঞেস করবে, ‘কোভিড টিকার দুটি ডোজ়ই পেয়েছেন কি না?’ অনেক ক্ষেত্রে সেই প্রতারক আপনার সমস্ত তথ্য জানার পরেই আপনাকে ফোন কল করছে। ফোন করে প্রথমেই আপনার নাম, বয়স, ঠিকানা – এই সব কিছু একবার মিলিয়ে নেওয়ার ভান করবে, যাতে আপনার মনে কোনও সন্দেহ না জাগে। এমনকি আপনি প্রথম এবং দ্বিতীয় টিকা কোন দিন নিয়েছিলেন, সেই তথ্যও থাকতে পারে প্রতারকদের কাছে।

সব তথ্য যাচাই করে নেওয়ার পরে সেই প্রতারক আপনাকে জিজ্ঞেস করবে, কোভিডের বুস্টার ডোজ় নিতে আগ্রহী কি না? সেই ডোজ় নেওয়ার জন্য সে একটি স্লটও বুক করে রাখবে বলে আপনাকে জানাবে প্রতারক। যদি আপনি সম্মতি জানিয়ে দেন, তাহলে মহা বিপদে পড়তে পারেন! যে মুহূর্তে আপনি সম্মতি জানালেন, ঠিক তখনই বুস্টার ডোজ় নেওয়ার একটি দিনক্ষণ আপনার কাছে বলা হবে। তার পরে সে বলবে, আপনার ফোনে একটি OTP এসেছে, সেটি এখনই বলুন।

আর এখানেই লুকিয়ে আসল কারসাজি। কারণ, সেই OTP আসলে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তোলার জন্য এসেছে, যা সেই প্রতারক বুস্টার ডোজ়ের দিনক্ষণ নিশ্চিত হয়েছে বলে দাবি করবে। আপনি OTP দেওয়ার আগেই যাবতীয় কাজ সে সেরে রেখেছে। কারণ, ব্যাঙ্কিং সংক্রান্ত আপনার যাবতীয় গোপনীয় তথ্য জানার পরেই ফোন কলটি সে আপনাকে করেছে। ঠিক যে সময়ে আপনি প্রতারককে OTP বলে দেবেন, তার পর ক্ষণেই দেখবেন, অ্যাকাউন্ট থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাপিশ!

এই ধরনের প্রতারণা থেকে বাঁচার উপায়?

মনে রাখবেন, সরকার আপনাকে বুস্টার ডোজ় দিতে কোনও সময় ফোন করবে না। কোউইন অ্যাপ থেকে গিয়েই আপনাকে স্লট বুকিং করতে হবে। আবার আরোগ্য সেতু মোবাইল অ্যাপ থেকেও আপনি তা বুক করতে পারেন। এই সব বিষয়গুলি আপনার খটমট মনে হলে, নিকটবর্তী টিকাকরণ কেন্দ্রে গিয়ে বুস্টার ডোজ় সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জেনে আসতে পারেন।

অনেক সময়েই আমরা মোবাইলে আসা OTP মেসেজ এড়িয়ে চলি, যা একদমই করা উচিত নয়। ওটিপি সংক্রান্ত যে কোনও মেসেজ আপনার ফোনে এলে তা সব সময় খুঁটিয়ে পড়বেন। তার থেকেও বড় কথা হল, যে ওটিপি-ই আসুক না কেন, তা কখনওই কারও সঙ্গে শেয়ার করবেন না।

আরও পড়ুন: মৃত্যু নয়! কামব্যাক করছে ব্ল্যাকবেরি, নতুন বছরেই মার্কেটে ৫জি সাপোর্টেড কোয়ার্টি কিপ্যাডের স্মার্টফোন

আরও পড়ুন: ধুলো জমা পুরনো সাইকেলটা বদলে E-Cycle পাওয়ার দুর্দান্ত সুযোগ! গোজ়িরো মোবিলিটির এই অফার সম্পর্কে জেনে নিন

আরও পড়ুন: মৃত্যুর ঠিক আগের মুহূর্তে ভয়াবহ বিস্ফোরণ! প্রথমবার দৈত্যাকার লাল নক্ষত্রের মৃত্যু পর্যবেক্ষণ করলেন বিজ্ঞানীরা

Published On - 7:03 pm, Wed, 12 January 22

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla