Murshidabad Murder: ‘মেয়ের মা-বাবা মানসিক হেনস্থা করেছে, তাই খুন করেছি’, সুতাপা খুনে স্পষ্ট জবাব সুশান্তের

Murshidabad Murder: 'মেয়ের মা-বাবা মানসিক হেনস্থা করেছে, তাই খুন করেছি', সুতাপা খুনে স্পষ্ট জবাব সুশান্তের
সুতপা খুনে স্পষ্ট জবাব সুশান্তের

Murshidabad Murder: সুশান্ত এদিন জানায়, 'মেয়ের মা, মেয়ের বাবা সবাই মানসিক ভাবে আমায় হেনস্থা করেছে। তাই আমি খুন করেছি। আইন যা শাস্তি দেবে আমি মেনে নেব।'

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

May 14, 2022 | 9:32 PM

বহরমপুর: প্রায় দু’ সপ্তাহ কেটে গিয়েছে। মুর্শিদাবাদে মেসের বাইরে কলেজ ছাত্রী খুনের ঘটনায় এখনও থমথমে ওই এলাকা। এদিকে, দফায়-দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে অভিযুক্ত প্রেমিক সুশান্ত চৌধুরীকে। শনিবার সুশান্তকে আদালতে তোলা হয়। মোট ১২ দিনের পুলিশ হেফাজতের পর অভিযুক্তকে এদিন আদালতে তোলা হয়েছিল। বর্তমানে তাকে দু’দিন জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। এরপর ১৪ জুন ফের সুশান্তকে কোর্টে তোলা হবে। এদিন কোর্ট থেকে জেলে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আবারও বিস্ফোরক মন্তব্য করে সুশান্ত। সেই সুতাপাকে খুন করেছে।

সুশান্ত এদিন জানায়, ‘মেয়ের মা, মেয়ের বাবা সবাই মানসিক ভাবে আমায় হেনস্থা করেছে। তাই আমি খুন করেছি। আইন যা শাস্তি দেবে আমি মেনে নেব।’ এদিকে, পুলিশ সূত্রে খবর, সুতপার বাবা স্বাধীন চৌধুরীর দাবি, নিয়মিত তাঁর মেয়েকে উত্যক্ত করতেন সুশান্ত। সে কারণেই থানায় যান। যদিও এরপরও সুশান্ত সুতপাকে বিরক্ত করতেন। তবে স্বাধীনবাবু দ্বিতীয়বার আর থানায় যাননি। এখন স্বাধীন চৌধুরীর আফশোস, পুলিশকে বিষয়টি জানালে তাঁর মেয়ের এই পরিণতি হত না।

বস্তুত, গত ২ মে বহরমপুরে এক ছাত্রীকে এলোপাথাড়ি কোপ মেরে খুনের অভিযোগ ওঠে। ভরসন্ধ্যায় এলাকার গোরাবাজারে সুতপা চৌধুরী নামে ওই ছাত্রীকে কোপানো হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও শেষ রক্ষা হয়নি। মৃত্যু হয় মেয়েটির। বহরমপুর গার্লস কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী সুতপা মেসে থাকতেন। সেই মেসের বাইরেই তাঁকে মারা হয় বলে অভিযোগ।

তদন্ত যত এগোয়, একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে। জানা যায়, সুশান্ত প্রেমে ব্যর্থ হয়ে সুতপাকে মারতে ছক কষেছিলেন। এই কাণ্ড ঘটাবেন বলে পনেরো দিন আগেই বহরমপুরে চলে যান। গোরাবাজারের জাহান বক্স লেনের একটি মেসবাড়িতে ওঠেন। সেখান থেকেই ‘মাস্টার প্ল্যান’।

অভিযোগ, সুতপাকে মারতে বন্দুকের পাশাপাশি ছুরিও কিনেছিলেন সুশান্ত। সেটি কোথা থেকে কিনেছিলেন তা জানতে বৃহস্পতিবার সুশান্তকে মালদহে নিয়ে যায় পুলিশ। ইংরেজবাজার থানায় টানা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এরপর সুশান্তকে সঙ্গে নিয়ে ইংরেজবাজার ও বহরমপুর পুলিশ যায় শহরের নেতাজি মার্কেটে। পুলিশ সূত্রে খবর, সেখানেই একটি দোকান দেখান নির্বিকার সুশান্ত। জানান, ওই দোকান থেকেই ছুরি কিনেছিলেন

এই খবরটিও পড়ুন

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA