Money Heist: ‘মানি হাইস্ট’-এর শেষ সিজনে প্রফেসরের দলের সকলে কি আত্মসমর্পণ করবেন?

Money Heist: শেষ সিজনের দ্বিতীয় পর্ব তথা অন্তিম পর্ব যে ইমোশনে ভরপুর থাকবে, তা একরকম আঁচ করা যাচ্ছে। সদ্য বিভিন্ন এপিসোডের নাম এবং কিছু ছবি প্রকাশ করেছেন নেটফ্লিক্স কর্তৃপক্ষ।

Money Heist: ‘মানি হাইস্ট’-এর শেষ সিজনে প্রফেসরের দলের সকলে কি আত্মসমর্পণ করবেন?
কে করবে বাজিমাৎ?

‘মানি হাইস্ট’-এর শেষ সিজনের প্রথম পর্বের উত্তেজনা শেষ হয়েছে। এতদিনে দেখেও ফেলেছেন অধিকাংশ দর্শক। এ বার অপেক্ষা দ্বিতীয় পর্বের। যা মুক্তি পাবে আগামী ডিসেম্বরে। ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে। এ বার কি দলের সকলে আত্মসমর্পণ করবে? এ প্রশ্ন রয়েছে দর্শক মহলে।

শেষ সিজনের দ্বিতীয় পর্ব তথা অন্তিম পর্ব যে ইমোশনে ভরপুর থাকবে, তা একরকম আঁচ করা যাচ্ছে। সদ্য বিভিন্ন এপিসোডের নাম এবং কিছু ছবি প্রকাশ করেছেন নেটফ্লিক্স কর্তৃপক্ষ। ‘লাইভ মেনি লাইভস্’, ‘উইশফুল থিঙ্কিং’, ‘দ্য থিওরি অব এলিগান্স’-এর মতো নামকরণ হয়েছে বিভিন্ন এপিসোডের।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by La Casa de Papel (@lacasadepapel)

কিছুদিন আগে ইলেকট্রনিক ডান্স মিউজিক ইডিএম শিল্পী নিউক্লেয়া তৈরি করেছেন ‘মানি হাইস্ট’ পাঁচ-এর প্রথম পর্বের অ্যান্থেম। হিন্দি, তামিল এবং তেলগু ভাষায় সে গানে পারফর্ম করেছেন এই তিন ইন্ডাস্ট্রির নামজাদা শিল্পীরা। মূল শো ইংরেজিতে তৈরি নয়, অথচ জনপ্রিয়তার খাতিরে যে ভাবে প্রাদেশিক ইন্ডাস্ট্রির তরফে প্রাদেশিক ভাষা ব্যবহার করে এর প্রচার হল, তা নিঃসন্দেহে নতুন পদক্ষেপ বলে মনে করছেন সিনে ইন্ডাস্ট্রির বহু মানুষ। নিউক্লেয়া, যাঁর আসল নাম উদয়ন সাগর, এই কাজের প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমে বলেন, “আমি মানি হাইস্টের অনেক বড় অনুরাগী। তাই এই অ্যান্থেমের উপর কাজ করা আমার কাছে মজার। যাঁরা এই সিরিজ ভালবাসেন, সেই সমস্ত অনুরাগীদের এখন মনের অবস্থা যেমন, আমি ঠিক সেটাই এই অ্যান্থেমে দেখানোর চেষ্টা করেছি।” শেষ পর্ব রিলিজের আগে ফের প্রচারে চমক দেখা যেতে পারে বলে মনে করছেন দর্শকের বড় অংশ।

আদতে এটি স্প্যানিশ ক্রাইম ড্রামা। সাম্প্রতিক অতীতে নেটফ্লিক্সে ইংরেজি ব্যতীত অন্য ভাষায় সবচেয়ে বেশি দেখা ওয়েব সিরিজের রেকর্ড রয়েছে ‘মানি হাইস্ট’-এর ঝুলিতেই। এর চতুর্থ সিজন সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছিল। ৬৫ মিলিয়ন ভিউ হয়েছিল সেই সিজনের। এক বিবৃতিতে নির্মাতা তথা এক্সজিকিউটিভ প্রোডিউসার অ্যালেক্স পিনা বলেন, “আমরা প্রায় এক বছর সময় নিয়ে ভেবেছিলাম, এই টিম কী ভাবে ভাঙব। কীভাবে প্রফেসরকে প্রায় দড়ির উপর বসিয়ে রাখব। কীভাবে বিভিন্ন চরিত্রের পরিবর্তন না করে পরিস্থিতি তৈরি করা যায়। তারই ফলাফল পঞ্চম সিজনে দেখতে পাবেন আপনারা। যুদ্ধ শেষ পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে। কিন্তু এটাও বলতে পারি, এই সিজনেই উত্তেজনা সবথেকে বেশি। এই সিজনই সবথেকে মনে রাখার মতো।”

আরও পড়ুন, Kangana Ranaut: এফআইআরের পাল্টা সোশ্যাল মিডিয়ায় সাহসী ছবি দিলেন কঙ্গনা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla