দ্বিতীয় ছবিতে নিজের আত্মীয়াকে কাস্ট করলেন শ্রীলেখা, রয়েছেন অমৃতাও

বয়স্কা মহিলার গল্প দিয়ে চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন শ্রীলেখা। যেখানে মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করবেন শ্রীলেখার পিসি তপতী দাস এবং মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করবেন অমৃতা চট্টোপাধ্যায়।

দ্বিতীয় ছবিতে নিজের আত্মীয়াকে কাস্ট করলেন শ্রীলেখা, রয়েছেন অমৃতাও
তুলিকা, শ্রীলেখা এবং অমৃতা।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: স্বরলিপি ভট্টাচার্য

Jun 06, 2021 | 4:16 PM

‘বিটার হাফ’-এর পর দ্বিতীয় ছবি পরিচালনার কাজ যে শুরু করতে চলেছেন, সে কথা আগেই জানিয়েছিলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। কাস্টে চমকের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। বয়স্কা মহিলার গল্প দিয়ে চিত্রনাট্য সাজিয়েছেন তিনি। যেখানে মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করবেন শ্রীলেখার পিসি তপতী দাস এবং মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করবেন অমৃতা চট্টোপাধ্যায় (Amrita Chattopadhyay)।

নিজের পিসিকে নিয়ে ছবি ভেবেছেন, এ কথা আগেই বলেছিলেন শ্রীলেখা। কিন্তু অমৃতাকে বেছে নিলেন কেন? প্রশ্নের উত্তরে শ্রীলেখা বললেন, “অমৃতা খুব পাওয়ারফুল অভিনেত্রী। ওর মুখের একটা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। ওর সঙ্গে কথা বলে ভাল লাগে। শিক্ষিত, রুচিসম্মত। আমার মনে হয়, ভাল লাগবে পিসির সঙ্গে। মেয়ে হিসেবে ফিট ইন করবে। ওর মধ্যে অনেকগুলো ডায়নামিক্স রয়েছে। ওর মুখটা আলাদা। অন্যদের থেকে অন্যরকম লাগে। আর চেহারার সাদৃশ্য বলতে, দুজনেরই চুল কোঁকড়া। ফর্সা, পাতলা গোছের চেহারা।”

অমৃতার অভিনেত্রী হিসেবে শ্রীলেখাকে খুবই পছন্দের। এই ছবিটি করতে রাজি হওয়ার নেপথ্যে আরও কিছু কারণ রয়েছে। অমৃতা শেয়ার করলেন, “প্রথমত শ্রীলেখাদি আমার খুবই পছন্দের অভিনেত্রী। অধিকাংশ ক্ষেত্রে আমি দেখেছি যখন অভিনেতারা পরিচালক হন, অনেক সমৃদ্ধ হয়ে আসেন। আমার অভিজ্ঞতায় দেখেছি, যাঁরা প্রথমে অভিনেতা পরে পরিচালক,তাঁরা খুব ভাল পরিচালক। শ্রীলেখাদিও ব্যতিক্রম হবেন না। আর গল্পটা একেবারে সহজ সরল। কোনও মারপ্যাঁচ নেই। লকডাউনের ফলে সকলেরই কাজের জায়গাটা ঘেঁটে গিয়েছে। ব্যক্তিগত জীবনে তার প্রভাব পড়েছে। এই অবস্থায় আমি খুব সিম্পল গল্প দেখতে পছন্দ করব। প্যানডেমিকের মধ্যে কমপ্লিকেটেড গল্পের তুলনায় সহজ গল্প হয়তো দর্শকের মন বেশি ছুঁয়ে যাবে। চিরকালই সহজ গল্প দর্শক পছন্দ করেন। প্যানডেমিকের জন্য হয়তো একটা লেয়ার অ্যাড হয়েছে।”

শ্রীলেখা জানিয়েছিলেন, তাঁর পিসির সেই অর্থে অভিনয়ের কোনও অভিজ্ঞতা নেই। যুবতী বেলায় ফিল্মের অফার এলেও তিনি সে কাজ করেননি। মূল চরিত্রে তথাকথিত অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কোনও অভিনেত্রীর কথা ইচ্ছাকৃত ভাবেই ভাবেননি পরিচালক। “গ্ল্যাম ডলদের নিয়ে কাজ করতে চাই না। যাঁদের দেখলে মনে হবে অভিনয় করছেন। কারণ ওই অভিনেত্রীদের মধ্যে একটা সেট ম্যানারিজম থাকে। সেটা চাইনি। আমার পিসির মধ্যে একটা সফটনেস আর একটা ডিগনিটি আছে” বলেছিলেন শ্রীলেখা।

তপতীর অভিজ্ঞতা না থাকাতে কোনও অসুবিধে তো হবেই না, বরং সেটা কোনও কোনও ক্ষেত্রে আলাদা মাত্রা যোগ করবে বলে মনে করেন অমৃতা। এ প্রসঙ্গে তাঁর মত, “শ্রীলেখাদি গল্পটা যেভাবে ভেবেছেন, সেটার সঙ্গে তপতীদিও কানেক্টেড। নিকট আত্মীয়া, ফলে শ্রীলেখাদির ওঁর সঙ্গে কানেক্ট করতে সুবিধে হবে। অভিজ্ঞতা সম্পন্ন নন এমন অভিনেতাদের নিয়ে বিদেশে প্রচুর কাজ হয়, ধরা যাক, বাস্তবে যিনি রক ব্যান্ডের গায়ক, অথবা সাংবাদিক, গল্পে সেই চরিত্রেই এমন লোকজনকে কাস্ট করা হয়েছে। ফলে আলাদা করে চরিত্রে ঢুকতে তাঁদের অসুবিধে হয় না। তাঁরা অ্যাডভান্টেজ নিয়েই আসেন। এখানেও যে সব ঘটনা রয়েছে, তার সঙ্গে তপতীদি সম্পৃক্ত।”

সব ঠিক থাকলে আগামী অগস্ট নাগাদ শুটিং শুরু করতে পারবেন বলে মনে করছেন অমৃতা। সদ্য একটি ওয়েব সিরিজের কাজ শেষ করেছেন। অনসম্বল কাস্ট। পারিবারিক গল্প। অমৃতা আশা করছেন, আগামী জুলাই নাগাদ দর্শক দেখতে পাবেন সেই সিরিজ।

আরও পড়ুন, রবীন্দ্রনাথের কবিতা পড়বেন দানিশ, সঙ্গী গুলশনারা, ত্রাণ সংগ্রহে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla