মেঘালয়ে জঙ্গলের মাঝে গর্তে পড়ে মৃত্যু ৬ পরিযায়ী শ্রমিকের

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, ওই শ্রমিকরা বেআইনিভাবে খনি খোঁড়ার কাজ করছিলেন। সেই সময়ই এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। যদিও সরকারের তরফে খনি খোঁড়ার বিষয়টি উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

মেঘালয়ে জঙ্গলের মাঝে গর্তে পড়ে মৃত্যু ৬ পরিযায়ী শ্রমিকের
প্রতীকী চিত্র।
ঈপ্সা চ্যাটার্জী

|

Jan 22, 2021 | 3:55 PM

গুয়াহাটি: মেঘালয়ের জঙ্গলের মাঝে বিশাল গর্তে পড়ে মৃত্যু হল অসমের ছয় পরিযায়ী শ্রমিকের (Migrant workers)। মেঘালয়ের পূর্ব জয়ন্তিয়া পাহাড়ে ১৫০ ফুট গভীর একটি খাদে পড়ে যান ছয়জন শ্রমিক, সেখানেই তাঁদের মৃত্যু হয়।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, পরিযায়ী শ্রমিকরা ওই অঞ্চলে বেআইনিভাবে খনি খুঁড়ছিল। সেই সময়ই এই দুর্ঘটনা ঘটে, তাঁরা নিজেদের খোঁড়া গর্তেই পড়ে যান। যদিও সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে, ওই অঞ্চলে কোনও খনি নেই। শ্রমিকেরা অন্য একটি কারণে শক্ত হয়ে যাওয়া মাটি কাটছিলেন। তবে কী কারণে মাটি কাটার কাজ হচ্ছিল, সে সম্পর্কে কিছু জানানো হয়নি।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে এই অঞ্চলেই ১৫ জন শ্রমিক বেআইনি খাদানে পড়ে গিয়েছিলেন। ফের একবার একইধরনের দুর্ঘটনা ঘটায় বেআইনিভাবে খনন করা খনির খোলা থেকে যাওয়া মুখ নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

আরও পড়ুন: কর্নাটক বিস্ফোরণ: পরিবারপিছু ৫ লক্ষ টাকা অনুদান ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, তদন্তের দাবি রাহুলের

পরিবেশবিদ ও বিজ্ঞানীদের অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৪ সালে জাতীয় গ্রিন ট্রাইবুন্যাল মেঘালয়ে কয়লা খনি খননে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। তবে সেই নিষেধাজ্ঞা কেবল খাতায় কলমেই রয়ে গিয়েছে, প্রশাসনের নাকের ডগা দিয়েই প্রায়সই অসমের জাতীয় সড়কে বিভিন্ন ট্রাকে করে কয়লা নিয়ে যেতে দেখা যায়।

জানা গিয়েছে, মেঘালয়ে প্রায় পাঁচ হাজারেরও বেশি বেআইনি খনি রয়েছে, এর মধ্যে অধিকাংশই রয়েছে পূর্ব জয়ন্তিয়া পাহাড়ে। ২০১৪ সালে খনির কাজে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলে রাজ্যের অর্থনীতিতে প্রায় ৭০ শতাংশ ঘাটতি দেখা দিয়েছিল।

আরও পড়ুন: সরকার-বিরোধী পোস্ট করলেই গ্রেফতার: নীতীশ, ‘করে দেখাক’, চ্যালেঞ্জ তেজস্বীর

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla