রাহুল গান্ধীর ওয়ানাডে ইতিহাস গড়ল SFI, মধু বেচে তৈরি করল পার্টি অফিস

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: সায়নী জোয়ারদার

Updated on: Sep 17, 2021 | 11:31 PM

SFI in Wayanad: কোচির এর্নাকুলামের মহারাজা কলেজের ছাত্র ছিলেন এই এম অভিমন্যু। ২০১৮ সালের  ২ জুলাই এই কলেজ ক্যাম্পাসেই দুই ছাত্র গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

রাহুল গান্ধীর ওয়ানাডে ইতিহাস গড়ল SFI, মধু বেচে তৈরি করল পার্টি অফিস
জেলা দফতরের নাম রাখা হয়েছে সংগঠনের শহিদ নেতা অভিমন‍্যুর নামে।

প্রদীপ্তকান্তি ঘোষ: ওয়ানাড থেকে সাংসদ হয়েছেন রাহুল গান্ধী (Congress Leader Rahul Gandhi)। আর সেই ওয়ানাডেই এবার ইতিহাস রচনা করল এসএফআই (SFI)। কারণ, সেখানেই তৈরি হল ভারতের ছাত্র ফেডারেশনের প্রথম স্বাধীন জেলা দফতর বা কার্যালয়। সোমবার রাহুলের সংসদীয় এলাকার কাল্পেট্টাতে ভারতের ছাত্র ফেডারেশনের (এসএফআই) প্রথম স্বাধীন জেলা দফতরের দ্বারোদঘাটন করেন কেরল এসএফআইয়ের প্রাক্তন রাজ্য সম্পাদক কোডিয়ারি বালাকৃষ্ণান। যিনি বর্তমানে কেরল সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক।

জেলা দফতরের নাম রাখা হয়েছে সংগঠনের শহিদ নেতা অভিমন‍্যুর নামে। দফতরের পোশাকি নাম অভিমন‍্যু স্টুডেন্টস সেন্টার বা ছাত্র কেন্দ্র। সংগঠনের কাজের পাশাপাশি তা উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের স্বপ্নপূরণে সহায়ক হবে বলে মত এসএফআই নেতৃত্বের। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যুব সংগঠনের সঙ্গেই অফিস ভাগ করে কর্মকাণ্ড চালায় সিপিএমের ছাত্র সংগঠন। কিন্তু ওয়ানাডের এসএফআই দফতর এককভাবে তৈরি হল।

ওয়ানাডের বিভিন্ন অংশে রয়েছে জঙ্গল, টি এসেস্ট, কফি এসেস্ট। আর সেই সব ঘিরে পর্যটনের পরিসর তৈরি হয়েছে রাজীব তনয়ের সংসদীয় এলাকায়। সেইসব জঙ্গলের মধু সংগ্রহকারীদের থেকে মধু কেনেন এসএফআই কর্মীরা। সেই মধু বিক্রি করে যে অর্থ উপার্জিত হয়েছে, তারও একটা বড় অংশ এই দলীয় কার্যালয় তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানান এসএফআইয়ের সাধারণ সম্পাদক ময়ূখ বিশ্বাস।

ময়ূখের মত, কেরলের ওয়ানাডের এসএফআই কর্মীরা নতুন দিশা দেখালেন। যা দেশের ছাত্র আন্দোলনে দৃষ্টান্ত হবে। এমনকী, অভিমন‍্যু স্টুডেন্টস সেন্টার তৈরির জন্য কায়িক শ্রমও দিয়েছেন স্থানীয় এসএফআই কর্মীরা। বছর কয়েক আগে খুন হন ছাত্র আন্দোলনের কর্মী অভিমন‍্যু। তাঁর স্মৃতির উদ্দেশে এই ভবন বলে জানাচ্ছেন এসএফআই নেতৃত্ব।

কে এই অভিমন্যু

কোচির এর্নাকুলামের মহারাজা কলেজের ছাত্র ছিলেন এই এম অভিমন্যু। ২০১৮ সালের  ২ জুলাই এই কলেজ ক্যাম্পাসেই দুই ছাত্র গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সেখানে ছুরি বিদ্ধ হন অভিমন্যু। মৃত্যু হয় তাঁর। এই ঘটনায় সিট গঠন করে শুরু হয় তদন্ত। প্রথম চার্জশিটে ১৬ জনের নামও ছিল। অন্যতম মূল অভিযুক্ত সাহল হামসা (২১) ঘটনার পর থেকে ফেরার থাকলেও গত বছর জুন মাসে আত্মসমর্পণ করেন। ক্যাম্পাস ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়ার সদস্য তিনি। অভিযোগ ওঠে, ঘটনার পরদিনই কলেজে নবীনবরণ ছিল। দেওয়ালে আঁকা নিয়ে দুই ছাত্র সংগঠনের মধ্যে গোলমাল হয়। এর পরই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে যায়।

আরও পড়ুন: WB Weather Update: প্রবল বর্ষণ আজও! কোন কোন জেলা ভাসবে, জানিয়ে দিল হাওয়া অফিস

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla