Nitish Kumar: বিজেপি-নীতীশ ‘খারাপ সম্পর্ক’-এর কারণে ভাঙতে চলেছে সরকার? রাজ্যসভা আসন নিয়ে জোরাল জল্পনা

Nitish Kumar: নীতীশের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে সিংয়ের নাম প্রস্তাব করেছিলেন, সেই কারণেই তাঁকে মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হয়েছে।

Nitish Kumar: বিজেপি-নীতীশ 'খারাপ সম্পর্ক'-এর কারণে ভাঙতে চলেছে সরকার? রাজ্যসভা আসন নিয়ে জোরাল জল্পনা
ছবি: ফাইল চিত্র
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অরিজিৎ দে

May 30, 2022 | 4:41 PM

পটনা: বিহারের (Bihar) রাজনীতিতে জোটসঙ্গী বিজেপির সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের (Nitish Kumar) দূরত্ব বাড়ছে, বেশ কয়েকদিন ধরেই পটনাতে এই জল্পনা চলছে। জল্পনা আরও জোরাল হয়েছে যখন জেডিইউ প্রধান নীতীশ কুমার এক সময় দলের ‘নম্বর ২’ হিসেবে পরিচিত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরসিপি সিংকে তৃতীয়বার রাজ্যসভায় পাঠাতে অস্বীকার করেছেন। নীতীশের এই সিদ্ধান্ত থেকেই স্পষ্ট বিজেপি জোট তিনি মোটেও খুশি নন। আরসিপি সিংকে (RCP Singh) রাজ্যসভা না পাঠানো হলে মোদী মন্ত্রিসভায় জেডিইউয়ের কোনও প্রতিনিধি থাকবেন। রাজনৈতিক মহলের মতে, বিজেপির সঙ্গে নীতীশের সম্পর্ক ক্রমেই খারাপ হচ্ছে, সেই কারণে এত বড় সিদ্ধান্ত নিতেও পিছপা হননি বিহারের মুখ্যমন্ত্রী। পটনার অন্দর মহলে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার কারণে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নীতীশ। জুন মাসেই আরসিপি সিংয়ের রাজ্যসভা মেয়াদ শেষ হচ্ছে। কিন্তু তাঁর সঙ্গে নীতীশের সম্পর্কে অবনতির কথা খারিজ করে জানিয়েছেন, “আমি তাঁর সঙ্গে দিল্লিতে দেখা করব… তিনি যা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। তিনি আমার ভালর জন্যই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমি এখনও অবধি এমন কিছু করিনি যা কাউকে দুঃখ দিতে পারে।”

জেডিইউ সূত্রে খবর, নীতীশ বেশ কিছু দিন ধরেই আরসিপি সিংকে এড়িয়ে যাচ্ছিলেন। এমনকী একটি বিবাহের অনুষ্ঠানেও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে সম্পূর্ণ এড়িয়ে গিয়েছিলেন নীতীশ। তবে নীতীশের সঙ্গে মনমালিন্যের কথা সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন সিং। সোমবার তিনি বলেন, “বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের সঙ্গে আমার কোনও মনমালিন্য নেই। ২৪ থেকে ৩১ মে অবধি মনোনয়ন জমা দেওয়ার তারিখ ছিল। আজ সন্ধেবেলাতেই আমি পটনা যাচ্ছি।” সূত্রের খবর, একাধিক বার অনুরোধের পর বৃহস্পতিবার নীতীশের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় পেয়েছিলেন আরসিপি সিং। নীতীশ স্পষ্টতই জানিয়ে দিয়েছিলেন, কোনওভাবেই তিনি আরসিপিকে রাজ্যসভায় পাঠাবেন না।

এই খবরটিও পড়ুন

নীতীশের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে সিংয়ের নাম প্রস্তাব করেছিলেন, সেই কারণেই তাঁকে মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু মন্ত্রী হয়ে তিনি দলের হয়ে কোনও কাজই করেননি, বরং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা বেড়েছে। এমনকী জাতি সুমারি নিয়েও দলীয় সিদ্ধান্তের উল্টোদিকেই হেঁটেছিলেন আরসিপি সিং। প্রসঙ্গত বেশ কয়েকদিন ধরেই নীতীশ-বিজেপি সম্পর্কে অবনতি হয়েছে। এমনকী সূত্রের দাবি, নীতীশের হাতে থাকা বিধায়ক সংখ্যা কম হওয়ার কারণে সরকার চালাতে গিয়ে ছোট ছোট সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রেও বিজেপির মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হচ্ছে। অনেক দিকে আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদবের সঙ্গেও নীতীশের দূরত্ব ক্রমশই কমছে। এখন বিহারে বিজেপি-নীতীশ জোট থাকে কি না, সেটাই এখন দেখার।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla