গ্রেনেড বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল পুলওয়ামার বাস স্ট্যান্ড, রক্তাক্ত সাত

দিন চারেক আগে এই ত্রালে এক বিজেপি (BJP) নেতাকে গুলি করে খুনের অভিযোগ ওঠে।

গ্রেনেড বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল পুলওয়ামার বাস স্ট্যান্ড, রক্তাক্ত সাত
ছবি পিটিআই

শ্রীনগর: বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল জম্মু-কাশ্মীরের ত্রাল (Blast in Tral) বাসস্ট্যান্ড চত্বর। কমপক্ষে সাতজনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স (CRPF)-এর তরফে খবর, সন্ত্রাসবাদীদের গ্রেনেড হামলার জেরেই এই ঘটনা। গ্রেনেডটি লক্ষ্যে পড়ার আগে হাওয়াতেই ফেটে যায়। সে কারণে বড়সড় বিপদ এড়ানো গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে, পুলওয়ামার ত্রালের ওই বাসস্ট্যান্ডে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীরাই ছিল সন্ত্রাসবাদীদের মূল লক্ষ্য। ঘটনার পরই এলাকা খালি করে দেওয়া হয়। পুলিশের তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন: মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক নিয়ে আপনার মতও জানতে চায় রাজ্য, দেওয়া হল ইমেল আইডি

সিআরপিএফের তরফে জানানো হয়েছে, আহতদের ত্রালের সাব ডিস্ট্রিক্ট হসপিটাল (SDH)-এ প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। একজনের আঘাত গুরুতর হওয়ায় শ্রীনগরে স্থানান্তরিত করা হয়। বাকিরা আপাতত সুস্থ আছেন।

প্রসঙ্গত, দিন চারেক আগে এই ত্রালে এক বিজেপি নেতাকে গুলি করে খুনের অভিযোগ ওঠে। এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির গুলির আঘাতে মৃত্যু হয় রাকেশ পণ্ডিত নামে ওই নেতার। বাড়ির বাইরে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। সেই সময় অপরিচিত একজন এসে রাকেশকে তাক করে গুলি চালায়। লুটিয়ে পড়ে রাকেশের দেহ। পুলওয়ামা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় একজন মহিলাও জখম হন। এরই মধ্যে আবার ত্রালের মূল বাসস্ট্যান্ডে গ্রেনেড হামলা। আহতরা সকলেই সাধারণ নাগরিক বলে সিআরপিএফের তরফে জানানো হয়েছে।