Rape Case in Kolkata: খাস কলকাতায় মূক ও বধির তরুণীকে ধর্ষণ অ্যাপ ক্যাব চালকের

Rape Case in Kolkata: খাস কলকাতায় মূক ও বধির তরুণীকে ধর্ষণ অ্যাপ ক্যাব চালকের
ফের ধর্ষণের অভিযোগ (প্রতীকী ছবি)

Rape Case in Kolkata: পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ওই তরুণী মগরাহাটের বাসিন্দা। একটি কারখানায় কাজ করতেন তিনি।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: tannistha bhandari

Jan 28, 2022 | 9:06 PM

কলকাতা : শহরের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠল আরও একবার। মূক ও বধির তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটল খাস কলকাতায়। ভর সন্ধেয় অ্যাপ ক্যাবে ধর্ষণ করে রাস্তায় ফেলে দেওয়া হল তরুণীকে। কলকাতার প্রগতি ময়দান থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। তাঁর করা অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার তাঁকে আদালতে পেশ করা হয়। পথচলতি বহু মহিলাই বর্তমানে এই অ্যাপ ক্যাবের ওপর নির্ভরশীল। কর্মসূত্রে অনেক মহিলারই বাড়ি ফিরতে অনেক রাত হয়। ভরসা করতে হয় ট্যাক্সি বা ক্যাবের ওপর। এই ঘটনা ফের একবার মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল। একা একজন মেয়ের জন্য ট্যাক্সিতে ওঠা কতটা নিরাপদ, তা আবারও নতুন করে ভাবাচ্ছে শহরবাসীকে।

গত ২৫ জানুয়ারির ঘটনা। কামরে আলম ওরফে রাজা নামে এক যুবককে এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে। কলকাতার আনন্দপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে। রাজাই ওই অ্যাপ ক্যাবের চালক ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই তরুণী মগরাহাট এলাকার বাসিন্দা। প্রগতি ময়দান থানা এলাকায় একটি কারখানায় কাজ করতেন তিনি। কর্মসূত্রেই কলকাতায় এসেছিসেন তরুণী। বাড়ি ফেরার জন্য স্টেশনে যাবেন বলে রাস্তায় বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। ২৫ জানুয়ারি রাত ৮ টা থেকে সাড়ে ৮ টাকা মধ্যে এই ঘটনা ঘটে।

অভিযোগকারিণী জানিয়েছেন, তিনি ওই দিন বাড়ি ফেরার জন্য বাস ধরবেন বলে অপেক্ষা করছিলেন রাস্তায়। বাসে পার্ক সার্কাস স্টেশনে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিনি। পার্ক সার্কাস স্টেশন থেকে মগরাহাট ফেরার কথা ছিল তাঁর। সেই সময় একটি অ্যাপ ক্যাব দেখতে পান তিনি। চালক তাঁকে দেখে গাড়ি থামালে উঠে পড়েন ওই তরুণী। এরপর গন্তব্যের দিকে না গিয়ে তাঁকে একটি ফাঁকা জায়গায় নিয়ে চলে যায় গাড়িটি। গাড়িতে চালক ছাড়া আর কোনও যাত্রী ছিলেন না। একটি নির্জন এলাকায় নিয়ে গিয়ে গাড়ির মধ্যে তরুণীকে ধর্ষণ করে, গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায় চালক।

এই ঘটনার পর প্রগতি ময়দান থানায় অভিযোগ জানান ওই তরুণী। অভিযোগ পেয়েই তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। পরে আনন্দপুর এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। শহরের বুকে এমন ঘটনা স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ তৈরি করেছে। প্রশ্ন উঠেছে পুলিশ প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে। প্রায় বছর দশেক আগে পার্ক স্ট্রিট গণধর্ষণ-কাণ্ড নাড়া দিয়েছিল রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনকে। গাড়ির মধ্যে গণধর্ষণ করা হয়েছিল এক মহিলাকে। এ দিনের এই ঘটনা, ফের একবার সামনে আনল নিরাপত্তার প্রশ্ন।

আরও পড়ুন: Madan Mitra: মদনের ‘শুভবুদ্ধি’ হোক! পদ্ম-ছেঁড়ায় বেজায় চটেছে ‘কমল’ শিবির

আরও পড়ুন: West Bengal Police: বড় ধাক্কা! অস্বচ্ছতার দায়ে রাজ্য পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগের গোটা প্যানেলই বাতিল

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA