Inspiration 4: স্পেস এক্সের মহাকাশ অভিযান, রকেট উৎক্ষেপণ লাইভ দেখাবে নেটফ্লিক্স, কীভাবে দেখবেন?

আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন পার করে উড়বে স্পেস এক্সের ফ্লাইট। এক্ষেত্রে ঝুঁকিও রয়েছে। পৃথিবীরে চারপাশে ঘণ্টায় প্রায় ২৮ হাজার কিলোমিটার বেগে প্রদক্ষিণ করবে ওই নির্দিষ্ট রকেট।

Inspiration 4: স্পেস এক্সের মহাকাশ অভিযান, রকেট উৎক্ষেপণ লাইভ দেখাবে নেটফ্লিক্স, কীভাবে দেখবেন?
নেটফ্লিক্স লাইভস্ট্রিম ইন্সপিরেশন ৪ লঞ্চ।

নতুন স্পেস মিশন অর্থাৎ মহাকাশ অভিযানের আয়োজন করেছে স্পেস এক্স। ইলন মাস্কের সংস্থার তত্ত্বাবধানে চার সদস্যের দল পাড়ি দেবেন মহাকাশে। ভারতীয় সময় ১৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৫টা ৩২মিনিটে শুরু হবে এই অভিযান। আর সেই রকেট লঞ্চ অর্থাৎ উৎক্ষেপণের মুহূর্ত লাইভ দেখানো হবে জনপ্রিয় স্ট্রিমিং মাধ্যম নেটফ্লিক্সে। নেটফ্লিক্সের ইউটিউব চ্যানেলে এই লাইভ স্ট্রিমিং হবে। স্পেস এক্স সংস্থা তাদের স্পেসক্র্যাফটে করে চারজন ক্রু মেম্বারকে মহাকাশে পাঠাতে চলেছে। তিন দিন ধরে চলবে এই মিশন। সেই সময় পৃথিবীর চারপাশের কক্ষপথে ঘুরপাক খাবে স্পেস এক্সের মহাকাশ যান।

নেটফ্লিক্সে ইতিমধ্যেই একটি বিশেষ ডকুসিরিজ চলছে। এর নাম Countdown: Inspiration4 Mission। এই প্রথম তিন দিনের সফরে ‘অল সিভিলিয়ান স্পেস ফ্লাইট’ পাঠাচ্ছে স্পেস এক্স সংস্থা। আর তারই সাক্ষী থাকতে চলেছে জনপ্রিয় স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম নেটফ্লিক্স। ওই কাউন্টডাউন ডকুসিরিজে ইতিমধ্যেই চার সদস্যের প্রস্তুতি পর্ব দেখানো হচ্ছে। এরপর নেটফ্লিক্সের ইউটিউব চ্যানেলে ফ্যালকন ৯ স্পেসক্র্যাফটের ‘লিফট-অফ’ লাইভ দেখানো হবে। ফ্লোরিডায় রয়েছে নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টার। সেখান থেকে স্পেস এক্সের মহাকাশযান উৎক্ষেপণ করা হবে।

এই প্রথম পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করার কোনও মিশনের আয়োজন করেছে স্পেস এক্স সংস্থা। নাগরিক অর্থাৎ সিটিজেনদের নিয়ে করা হচ্ছে এই মিশন। আর শেষ পর্যন্ত ইন্সপিরেশন ৪ মিশনের হাত ধরে অবশেষে স্পেস ট্যুরিজমের ময়দানে পা রাখলেন ইলন মাস্ক ও তাঁর সংস্থা স্পেস এক্স। স্পেস এক্স সংস্থার Inspiration 4 মিশনের মতো অভিযান কয়েক মাস আগেই হয়েছিল। দুই ধনকুবের রিচার্ড ব্র্যানসন এবং জেফ বেজোস যথাক্রমে ভার্জিন গ্যালাকটিক এবং ব্লু অরিজিনের স্পেস ফ্লাইটে চড়ে পৃথিবীর সীমানা পার করে মহাকাশ ঘুরে এসেছেন। এবার সেই দলেই নাম লিখিয়েছে ইলন মাস্কের সংস্থা স্পেস এক্স। জানা গিয়েছে Inspiration 4 মিশনে স্পেস এক্সের ফ্লাইটের মূল নিয়ন্ত্রক জারেড আইজ্যাকম্যান। ৩৮ বছরের এই যুবক Shift4 Payment (পেমেন্ট প্রসেসিং কোম্পানি)- এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও। একসময় পাইলটও ছিলেন এই আইজ্যাকম্যান।

আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন পার করে উড়বে স্পেস এক্সের ফ্লাইট। এক্ষেত্রে ঝুঁকিও রয়েছে। পৃথিবীরে চারপাশে ঘণ্টায় প্রায় ২৮ হাজার কিলোমিটার বেগে প্রদক্ষিণ করবে ওই নির্দিষ্ট রকেট। তাই কিছুটা ঝুঁকি তো থাকছেই। এমনটাই জানিয়েছেন জারেড আইজ্যাকম্যান। ভারতীয় সময় ১৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৫টা ৩২মিনিটে ফ্লোরিডায় নাসার কেনেডি সেন্টারের launch pad 39A থেকে উড়বে স্পেস এক্সের মহাকাশযান। এই প্রথম স্পেস এক্সের মহাকাশ যানে চড়ে নন-প্রফেশনাল অ্যাস্ট্রোনটরা যাচ্ছেন মহাকাশে। এখান থেকেই চন্দ্রপৃষ্ঠে যাওয়ার জন্য অ্যাপোলো মিশন শুরু হয়েছিল।

আরও পড়ুন- মহাকাশ অভিযানে এবার আগ্রহী অ্যাপেলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা Steve Wozniak, তৈরি করছেন প্রাইভেট স্পেস কোম্পানি Privateer

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla