Viral Video: লাইভ সম্প্রচারের সময় সজোরে গাড়ির ধাক্কা, রিপোর্টিং চালিয়ে গেলেন কর্তব্যে অবিচল সাংবাদিক

Viral Video: লাইভ সম্প্রচারের সময় সজোরে গাড়ির ধাক্কা, রিপোর্টিং চালিয়ে গেলেন কর্তব্যে অবিচল সাংবাদিক
ভিডিয়ো থেকে নেওয়া স্ক্রিনশট

Journalist Hit By A Car While Reporting: গত বুধবার ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া টেলিভিশনের এক নিউজ রিপোর্টার লাইভ সম্প্রচার চলার সময়ই সজোরে গাড়ির ধাক্কা খেলেন। তা বলে রিপোর্টিং থামালেন না। সঞ্চালককে বলে গেলেন, "আমি ঠিক আছি। তুমি চিন্তা করো না।"

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sayantan Mukherjee

Jan 23, 2022 | 11:22 PM

লাইভ রিপোর্টিং যে কতটা দুঃসাধ্য, তা বুঝতে রকেট সায়েন্স পড়ার দরকার হয় না। খবর করতে গিয়ে নিত্যদিন নানাবিধ চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হন সাংবাদিকরা। কিন্তু তাতে থেমে থাকে না তাঁদের রিপোর্টিং। সম্প্রতি এক রিপোর্টারের (Journalist) সঙ্গেও এমনই কাণ্ড ঘটল। গত বুধবার ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া টেলিভিশনের এক নিউজ রিপোর্টার লাইভ সম্প্রচার (Live Broadcast) চলার সময়ই সজোরে গাড়ির ধাক্কা খেলেন। তা বলে রিপোর্টিং থামালেন না। সঞ্চালককে বলে গেলেন, “আমি ঠিক আছি। তুমি চিন্তা করো না।” এই ভিডিয়ো ব্যাপক ভাইরাল (Viral Video) হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কাজের প্রতি সাংবাদিকের নিষ্ঠা দেখে তাঁকে বাহবা দিয়েছেন নেটাগরিকরা।

ভিডিয়ো ফুটেজটিতে দেখা যাচ্ছে, টোরি ইয়র্গে নামের এক মহিলা সাংবাদিক রাস্তা থেকে রিপোর্টিং করছিলেন। লাইভ টিভিতে তা সম্প্রচার হচ্ছিল এবং সঞ্চালকের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। এমন সময় হুট করেই পিছন থেকে একটি গাড়ি এসে ধাক্কা মারে তাঁকে। তিনি পড়ে যান। তার পরে উঠে আবার রিপোর্টিং শেষ করেন। গাড়ি এসে ধাক্কা মারার পরেও ওই মহিলা সাংবাদিকের সঙ্গে সঞ্চালক টিম ইর্রের কথোপকথন শুনে নেটপাড়ার লোকজন এক প্রকার থ হয়ে গিয়েছেন।

তাঁকে যে মুহূর্তে গাড়িটি এসে ধাক্কা মারে, মুহূর্তে তিনি বলে ওঠেন, “হে ভগবান! আমাকে গাড়িতে ধাক্কা দিয়েছে। কিন্তু আমি ঠিক আছি। আমি ভাল আছি টিম।” তারপরে টিম নামের সেই সঞ্চালক বলেন, “তোমাকে আমরা সবাই টিভিতে দেখতে পাচ্ছি টোরি।” হঠাৎ করেই আর একজন মহিলার কণ্ঠস্বর ভেসে আসে। সম্ভবত তিনিই সেই গাড়ির চালক। তিনিও বলেন, “আপনি ঠিক আছেন তো?” টোরি উত্তর দেন যে, তিনি ঠিক আছেন।

তারপরই হাসি মুখে বুম ধরে মহিলা সাংবাদিক বলেন, “এটা আমার জন্য লাইভ টিভি। আমাকে আসলে গাড়িতে ধাক্কা দিয়েছে। এর আগেও কলেজে আমাকে গাড়িতে ধাক্কা দিয়েছিল। আমি খুব খুশি যে আমি ভাল আছি।” সঞ্চালক টিম বলেন, “তুমি কি নীচে পড়ে গিয়েছিলে নাকি গাড়িটি তোমাকে ঠেলে অন্যত্র ফেলে দিয়েছিল? আমরা সত্যিই বুঝতে পারিনি। আমি শুধু তোমাকে স্ক্রিনের বাইরে হারিয়ে যেতে দেখলাম।” উত্তরে সেই সাংবাদিক বললেন, “আমি সত্যিই জানি না টিম। চোখের সামনে শুধু আমার জীবনটা ভেসে উঠল।”

সংবাদমাধ্যম হাফিংটন পোস্ট-এর একটি রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, রিপোর্টিং শেষ হওয়ার পরই টোরি নামের সেই সাংবাদিককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল চেকআপের জন্য। ফার্স্টএডের পরেই তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। টোরির পেশাদারিত্ব দেখে তাঁর ভক্তরা সকলেই কুর্নিশ জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। বৃহস্পতিবার সকালে ভিডিয়োটি ট্যুইটারে শেয়ার করা হয়. এর মধ্যেই ৩.৫ মিলিয়ন ভিউ এবং ২৮,০০০ এরও বেশি লাইক পেয়েছে এই ভিডিয়োটি।

আরও পড়ুন: দক্ষিণ কোরিয়ায় কাঁচা বাদাম গানে মা-মেয়ের নাচ, বীরভূমের বাদ্যকর এবার সত্যিই ‘ভুবন’খ্যাত!

আরও পড়ুন: বেলজিয়ামে নতুন নিয়ম, কাজের সময় শেষে সরকারি কর্মীকে ফোন পর্যন্ত করতে পারবেন না বস!

আরও পড়ুন: চোখ বেঁধে ১৪.৬৭ সেকেন্ড রুবিকস কিউব সমাধান, নিজেরই গড়া গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড ভাঙল এই বিস্ময়বালক

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA