Accident: ফের অসাবধানতার বলি, ট্রেনের চাকায় পিষে চলে গেল একটি প্রাণ

Purba Medinipur: রেল লাইন পারাপার হওয়ার সময় আচমকা মেইন লাইনে এসে যায় হাওড়া গামি দূরপাল্লার ট্রেন ।

Accident: ফের অসাবধানতার বলি, ট্রেনের চাকায় পিষে চলে গেল একটি প্রাণ
পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু পুলিশকর্মীর (প্রতীকী ছবি)

পূর্ব মেদিনীপুর: অকালেই চলে গেল একটি প্রাণ। লাইন পারাপার করতে গিয়ে মৃত্যু হল ব্যক্তির।

ঘটনাস্থান পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়ার নারায়ণ পাকুড়িয়ার রেলস্টেশনের। আজ দুপুর নাগাদ রেল লাইন পারাপার করতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হয় বছর বত্রিশের সনজিৎ সামন্তর। পাঁশকুড়ার চাঁপাডালি এলাকায় থাকতেন তিনি।

রেল লাইন পারাপার হওয়ার সময় আচমকা মেইন লাইনে এসে যায় হাওড়া গামি দূরপাল্লার ট্রেন । ফলে ট্রেনের ধাক্কায় ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে যায় তাঁর দেহ। দুর্ঘটনার ফলে বেশ কিছুক্ষণ মেদিনীপুর পাঁশকুড়াগামী কয়েকটি লোকাল ট্রেন আটকে পড়ে।

এই ঘটনায় স্থানীয় মানুষজনদের অভিযোগ, এলাকার প্রত্যেককে রেল লাইনের ওপর দিয়েই পারাপার করতে হয়। কারণ রেল লাইনের নীচ থেকে যে রাস্তাটি রয়েছে সেটি অনেকটা নিচু। পাশে একটি খাল থাকায় অধিকাংশ সময় ওই রাস্তাটি জলে ডুবে থাকে। ফলে এলাকার মানুষকে রেল লাইনের উপর দিয়েই পারাপার করতে হয় । এর কোনও বিকল্প পথ নেই। বারবার রেল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও কোনো ওভারব্রীজ বা রেলগেট করেনি। তাঁর কারণেই বারংবার দুর্ঘটনার স্বীকার হতে হয় অনেকেই। এবিষয়ে কোনো কিছু বলতে নারাজ স্থানীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ।

গতমাসে এই রকমই একটি মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে কলকাতার দমদমে। ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হয় দু জনের।  সন্ধেয় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে দমদম ও বেলঘরিয়া স্টেশনের মাঝে। জানা গিয়েছে, দুটি স্টেশনের মাঝে মেন লাইনে সিসিআর ব্রিজের কাছে আপ ট্রেনের ধাক্কায় দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।জানা গিয়েছে, মৃতদের মধ্যে একজনের নাম সদা বণিক ও আর এক জনের নাম রাজু বনিক। মৃত দুজন যুবক রেললাইনের ওপর বসে গল্প করছিলেন। সেই সময় আপ ট্রেন ঢোকে ওই লাইনে। তখনই ওই ট্রেন ধাক্কা মারলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দুজনের। এক জনের বয়স ২৬ বছর ও আর এক জনের বয়স ৩২ বছর।

ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে স্টেশনে। কিছুক্ষণের জন্য ওই লাইনের রেল চলাচল বন্ধ রাখা হয়। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। মৃতদেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়।অন্যদিকে এ দিনই দমদম স্টেশনে ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে আহত হন এক মহিলা। জানা গিয়েছে, এই মহিলা এক ছিনতাইবাজের খপ্পরে পড়ে। তার জেরেই এই দুর্ঘটনা। বিশর পাড়ার বাসিন্দা রুপা সাহা এ দিন বড়বাজারে কাজ থেকে ফিরছিলেন। শিয়ালদহ থেকে ৭টা ৩৫ মিনিটের হাসনাবাদ লোকালে ওঠেন তিনি। শিয়ালদহ থেকে দমদম স্টেশনে যখন ট্রেন ঢোকে তখন তাঁর ব্যাগ ধরে টান মারে ছিনতাইবাজ। এরপর চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে যান রুপা দেবী। ঘটনার জেরে মুখে চোট পান মহিলা। তারপর অভিযুক্ত ছিনতাইবাজকে ধরে ফেলেন রেল পুলিশ ও অন্য সহযাত্রীরা। আহত মহিলাকে উদ্ধার করে আরজি কর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আনা হয়।

আরও পড়ুন: Nandigram: চলেছে দুর্নীতি, পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে বিডিওর কাছে অভিযোগ জমা করল তৃণমূল কর্মীরা

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla