এয়ারস্ট্রাইকের পাল্টা জবাব, কান্দাহার বিমানবন্দরে রকেট হামলা তালিবানিদের

তালিবানদের তরফে এই হামলার দায়স্বীকার করে নিয়ে তাদের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, "কান্দাহার বিমান বন্দরে হামলা চালানো হয়েছে কারণ শত্রুরা এই বিমানবন্দর থেকেই আমাদের বিরুদ্ধে এয়ার স্ট্রাইক চালাচ্ছিল।"

এয়ারস্ট্রাইকের পাল্টা জবাব, কান্দাহার বিমানবন্দরে রকেট হামলা তালিবানিদের
ফাইল চিত্র।

কান্দাহার: আফগানিস্তানের অন্যতম প্রাণকেন্দ্র দখলে এ বার রকেটের মাধ্যমে হামলা চালাল তালিবান। শনিবার রাতে কান্দাহার বিমানবন্দরে তিনটি রকেট হামলা চালানো হয়। এর জেরে বিপর্যস্ত হয়েছে উড়ান পরিষেবা।

রবিবারই একটি আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ আফগানিস্তানে অবস্থিত কান্দাহার বিমানবন্দরে রকেট হামলা চালানো হয়েছে। বিমানবন্দর লক্ষ্য করে পরপর তিনটি রকেট ছোড়া হয়, এরমধ্যে দুটি রানওয়েতে এসে আঘাত করে। এর জেরে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রানওয়েটি। মেরামতির জন্য এ দিনের সমস্ত উড়ান বাতিল করা হয়েছে। বিমানবন্দরের প্রধান মসুদ পাস্তুন জানান, মেরামতির কাজ শুরু হয়েছে, আজ রাত থেকেই উড়ান পরিষেবা ফের চালু করা যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

অন্য়দিকে, তালিবানদের তরফে এই হামলার দায়স্বীকার করে নিয়ে তাদের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, “কান্দাহার বিমান বন্দরে হামলা চালানো হয়েছে কারণ শত্রুরা এই বিমানবন্দর থেকেই আমাদের বিরুদ্ধে এয়ার স্ট্রাইক চালাচ্ছিল।”

বর্তমানে আফগানিস্তানের ৮৫ শতাংশই তালিবানদের দখলে। বাকি রয়েছে কাবুল, কান্দাহারের মতো হাতে গোনা কয়েকটি শহর। বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরেই কান্দাহার শঙরের বাইরে হামলা চালাচ্ছে তালিবানিরা। যেকোনও সময়ে দখল করে নেওয়া হতে পারে এই শহরগুলিও। অন্যদিকে, হেরাট ও লস্কর গাহের কাছেও পৌঁছে গিয়েছে তালাবান জঙ্গিরা। আফগানিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের তথ্য অনুসারে, তালিবানিরা ইতিমধ্যেই ১৯৩টি জেলা ও ১৯টি সীমান্ত দখল করে নিয়েছে। আরও পড়ুন: বাংলাদেশে ওসির পরণে লুঙ্গি! আসল কারণ জেনে অনেকেই জানালেন কুর্ণিশ 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla