নতুন সরকার ইজরায়েলের জন্য বিপজ্জনক, দাবি নেতানিয়াহুর

ইজরায়েলের বাম দলগুলি রবিনের বিরুদ্ধে জনগণকে উস্কে দেওয়ার জন্য নেতানিয়াহুকে (Netanyahu) দোষ দিচ্ছে। তবে নেতানিয়াহু এই অভিযোগ মানতে নারাজ।

নতুন সরকার ইজরায়েলের জন্য বিপজ্জনক, দাবি নেতানিয়াহুর
ছবি গুগল

ইজরায়েল: আটটি দলের একটি জোট দেশে সরকার গঠনের ঘোষণা করেছে। রবিবার ইজরায়েলের তেল আবিবে বৈঠকও করে তারা। সে দেশের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে ক্ষমতাচ্যুত করতেই বিরোধী দলের নেতা ইয়ার ল্যাপিড এবং নাফতালি বেনেট আটটি বিরোধীদল নিয়ে একটি জোট গঠন করেছেন। এদিকে, ইজরায়েলের অভ্যন্তরীণ সুরক্ষা সংস্থা শিন বেটের প্রধান নাদভ আরগামান আশঙ্কা প্রকাশ করেছে, দেশে নতুন সরকার গঠনের আগে হিংসার আবহ তৈরি হতে পারে। এর আগে সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টেও একই রকম আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল। ইজরায়েলের গণমাধ্যমে খবর ছিল, নেতানিয়াহুর সমর্থকরা আমেরিকার ক্যাপিটল হিলের মত হিংসা পরিবেশ তৈরি করতে পারে।

আরগামানের মতে, “আমরা দেখেছি সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব হিংসাত্মক এবং উস্কানিমূলক আলোচনা বেড়েছে। এটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠীর মধ্যে হিংসা ছড়াতে পারে। ডানপন্থী সমর্থকদের মধ্যে কথোপকথনে ‘বিশ্বাসঘাতক’ শব্দের ব্যবহার বেড়েছে।”

আরও পড়ুন: ১০ হাজার ইয়াবা-সহ কক্সবাজার থেকে ধৃত এক রোহিঙ্গা

ইজরায়েলের বাম দলগুলি রবিনের বিরুদ্ধে জনগণকে উস্কে দেওয়ার জন্য নেতানিয়াহুকে দোষ দিচ্ছে। তবে নেতানিয়াহু এই অভিযোগ মানতে নারাজ। একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, “যে জোট সরকার গড়তে চলেছে তা অত্যন্ত বিপজ্জনক। এই জোট ‘বামপন্থী’। ইজরায়েলের ভবিষ্যতের জন্য যা অত্যন্ত বিপদজনক।” এরপরই দেশের ডানপন্থীদের একত্রিত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে টুইট বার্তা দেন তিনি। ইজরায়েলের সংসদের অধ্যক্ষের কাছে সোমবারই সরকার ফেলতে প্রস্তাব যেতে পারে। এর এক সপ্তাহের মধ্যে ভোটগ্রহণ পর্ব হতে পারে।