জম্মু-কাশ্মীরে পুণ্যার্থীদের উপর জঙ্গিহানায় ভয়ানক ক্ষুব্ধ ভরত-ভাস্বররা, ‘নিন্দনীয়, নক্কারজনক’

Terrorist Attack In Kashmir: রবিবার (০৯.০৬.২০২৪) পুণ্যার্থী বোঝাই বাসে হামলা চালায় জঙ্গিরা। গুলি এড়াতে গিয়ে খাদে পড়ে যায় সেই বাস। খাদে পড়ে যাওয়া বাসের উপরই এলোপাথারি গুলি চালায় জঙ্গিরা। খবরে এই কথা জানতে পেরে ব্যাকুল হয়েছেন বাংলার দুই শিল্পী কাশ্মীরি পণ্ডিত পরিবারের ছেলে অভিনেতা ভরত কল এবং অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়, যিনি ইদানিং বেশ কিছু গল্পের বই লিখে ফেলেছেন কাশ্মীরের প্রেক্ষাপটকে কেন্দ্র করে।

জম্মু-কাশ্মীরে পুণ্যার্থীদের উপর জঙ্গিহানায় ভয়ানক ক্ষুব্ধ ভরত-ভাস্বররা, 'নিন্দনীয়, নক্কারজনক'
জম্মু এবং কাশ্মীর নিয়ে যা বললেন ভরত কল এবং ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়।
Follow Us:
| Updated on: Jun 11, 2024 | 1:40 PM

কাশ্মীর ভূস্বর্গে বেড়াতে যাওয়া বিষয়টা পর্যটকপ্রেমীদের চেকলিস্টেই থাকে। গানে আছে, ‘ইয়ে হসিন ওয়াদিয়া, ইয়ে খুলা আসমান…’। কাশ্মীরে পা রাখলেই সুন্দরীর মন গেয়ে ওঠে ‘কাশ্মীর কি কলি হু ম্যায়…’। যে কাশ্মীর নিয়ে এত রোম্যান্টিসিজ়ম, এত ছবি, এত সিনেমা, এত গান-কবিতা–সেই কাশ্মীরেই প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে বেঁচে থাকেন হাজার-হাজার মানুষ। মাঝেমধ্যেই ভূস্বর্গে শোনা যায় গুলির গর্জন। সম্প্রতি ফের জঙ্গিহানার কবলে পড়েছে জম্মু-কাশ্মীরের রিয়াসি জেলা। রবিবার (০৯.০৬.২০২৪) পুণ্যার্থী বোঝাই বাসে হামলা চালায় জঙ্গিরা। গুলি এড়াতে গিয়ে খাদে পড়ে যায় সেই বাস। খাদে পড়ে যাওয়া বাসের উপরই এলোপাথারি গুলি চালায় জঙ্গিরা। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ১০জন পুণ্যার্থীর। আহত হয়েছেন ৩৩জন। খবরে এই কথা জানতে পেরে ব্যাকুল হয়েছেন বাংলার দুই শিল্পী কাশ্মীরি পণ্ডিত পরিবারের ছেলে অভিনেতা ভরত কল এবং অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়, যিনি ইদানিং বেশ কিছু গল্পের বই লিখে ফেলেছেন কাশ্মীরের প্রেক্ষাপটকে কেন্দ্র করে।

অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায় বলেছেন:

নিন্দনীয়, অত্যন্ত নিন্দনীয়। আতঙ্কবাদকে তো কেউ সমর্থন করেন না। আমি যে কাশ্মীরে যাই, যে লোকজনের সঙ্গে মিশি, তাঁরা কেউই আতঙ্কবাদকে সমর্থন করেন না। এমন পরিবারও ওখানে আছে, যাঁরা পুলওয়ামা অ্যাটাকের পর দু’দিন খায়নি। সুস্থ এবং বিচক্ষণ মানুষ কিন্তু আতঙ্কবাদের বিরোধী। এই ঘটনায় আমি খুবই মর্মাহত। ভূস্বর্গে টুরিজ়িম নতুন করে জায়গা করে নিয়েছে। সেই কাশ্মীরকে আবারও আঘাত করা মানেই কিছু মানুষের ভয় পেয়ে যাওয়া। আমার এক কাজ়িন কাশ্মীর যাওয়ার কথা স্থির করেছিল। কিন্তু এই ঘটনা ঘটার পর সে একটু ভীত হয়ে গিয়েছে। আমি বলছি, কোনও ভয় নেই। যাঁরা যাওয়ার, তাঁরা যেতেই পারেন। তার কারণ, যে কাশ্মীরে আমরা ঘুরতে যাই, সেখানে এ সব কিছু হচ্ছে না। নতুন করে যে টেরর অ্যাটাক শুরু হয়েছে সেটা জম্মুতে। কয়েক মাস ধরেই অ্যাটাকগুলোর কথা জানা যাচ্ছে। মূল যে কাশ্মীর, যেখানে লোকে বেড়াতে যান, শ্রীনগর-গুলমার্গ-সোনমার্গ-পেহলগাঁও, এই সব জায়গায় অ্যাটাক হচ্ছে না বলেই আমি জানি। যতই যাই হোক, সাধারণ মানুষের প্রাণ তো যাচ্ছে। মানুষ তো ভয় পাবেনই। ভারতীয় সরকার এবং সেনাকাবাহিনীর উপর আমার ভীষণ ভরসা। যতবারই এরা মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে চেষ্টা করেছে, ততবারই এদের একদম শেষ করে দেওয়া হয়েছে। আবার বিশ্বাস, এবারও তাই-ই হবে।”

এই খবরটিও পড়ুন

অভিনেতা ভরত কল যা বলেছেন:

“একটাই কথা বলব, এই যে আমাদের দেশে এত লম্বা নির্বাচন হল, তাতে কাশ্মীরের নিরাপত্তা একটু হলেও নষ্ট হয়েছে। ৩৭০ ধারা লাঘু হয়েছে আগেই। আমি যতদূর জানি, একটিও কাশ্মীরি পণ্ডিত পরিবার নতুন করে এসে কাশ্মীরে থাকতে শুরু করেনি। যাঁরা ছিলেন আগে, তাঁরাই আছেন। নতুন করে এই ধারার সুবিধে কাশ্মীরি পণ্ডিত পরিবার নিতে পারেননি। তার মধ্য়ে এই জঙ্গি হামলার খবরটা পেলাম মুম্বইয়ে বসে। মনটা আবার খারাপ হয়ে গেল। নিরপরাধ মানুষগুলোর কী দোষ বলুন তো! মিলিটারি শাসন ছাড়া আমি সত্যিই কোনও সমাধান দেখতে পাচ্ছি না। কিছুদিন আগেও আমি কাশ্মীরে গিয়েছিলাম। দেখলাম প্রত্যেক ৫০ মিটারের মধ্যে বাঙ্কার বসানো আছে। সন্ত্রাসবাদকে রোখার জন্য যত কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া দরকার, তত কঠিন পদক্ষেপ নিতে হবে। মিলিটারি ছাড়া জম্মু-কাশ্মীরকে স্টেবল করা মুশকিল আছে বলেই আমি মনে করি।”