Body Recover: বাড়ির কুয়োতে পড়ে মহিলার দেহ, স্বামী-ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে সাংঘাতিক অভিযোগ!

Haridebpur: স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, উমা দাসের স্বামী, ছেলে ও ছেলের বৌ নানাভাবে নির্যাতন করতেন। এরপরই এদিনের ঘটনা। এলাকার লোকজনের দাবি, দিনের পর দিন বাড়ির লোকজনের অত্যাচারে জর্জরিত ছিলেন উমা। একেবারে বন্দিজীবন ছিল তাঁর। কোনও কাজেই পাশে পেতেন না পরিবারের কাউকে।

Body Recover: বাড়ির কুয়োতে পড়ে মহিলার দেহ, স্বামী-ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে সাংঘাতিক অভিযোগ!
উমা দাস। Image Credit source: TV9 Bangla
Follow Us:
| Edited By: | Updated on: Mar 01, 2024 | 8:50 AM

হরিদেবপুর: কুয়ো থেকে এক মহিলার দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠল হরিদেবপুর। হরিদেবপুর থানার কৈলাস ঘোষ রোডে একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় উমা দাস (৫২) নামে এক মহিলার দেহ। বাড়িরই কুয়ো থেকে উদ্ধার হয় দেহটি। অভিযোগ, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রতিবেশিদের সঙ্গে কথাও হয় তাঁর। এরপরই আচমকা নিখোঁজ হয়ে যান। অভিযোগ, রাত ৯টা নাগাদ নিজেরই বাড়ির কুয়ো থেকে উদ্ধার করা হয় উমার দেহ।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, উমা দাসের স্বামী, ছেলে ও ছেলের বৌ নানাভাবে নির্যাতন করতেন। এরপরই এদিনের ঘটনা। এলাকার লোকজনের দাবি, দিনের পর দিন বাড়ির লোকজনের অত্যাচারে জর্জরিত ছিলেন উমা। একেবারে বন্দিজীবন ছিল তাঁর। কোনও কাজেই পাশে পেতেন না পরিবারের কাউকে। স্বামী, ছেলে এমনকী ছেলের বউয়ের বিরুদ্ধেও অভিযোগের আঙুল উঠেছে। তবে এখনও তাঁদের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, পরিবারের লোকেরাই মেরে উমাকে কুয়োয় ফেলে দিয়েছেন। ১২৩ নম্বর ওয়ার্ডের ঘটনা এটি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন এলাকার কাউন্সিলর। তাঁকে সামনে পেয়ে ক্ষোভ উগরে দেন উত্তেজিত জনতা। নিহতের স্বামী, ছেলে ও পুত্রবধূকে আটক করে নিয়ে যায় হরিদেবপুর থানার পুলিশ।