ইমিউনিটি বাড়াতে ঘরে বসেই বানান এই চার ‘বুস্টার’ পানীয়

ঘরে বসেই বানিয়ে ফেলতে পারেন ইমিউনিটি বাড়ানোর হেলদি ড্রিংকস। নিয়মিত না হলেও সপ্তাহে তিন-চার দিন খেলেই শরীরে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বেড়ে যাবে নিঃসন্দেহে।স্বাস্থ্যকর এই ড্রিংকসগুলো বানিয়ে নিতে সময়লাগবে মাত্র পাঁচ মিনিট। কোন কোন হেলথি ড্রিংকস খেলে ইমিউনিটি বাড়বে দেখে নিন এখানে...

  • TV9 Bangla
  • Published On - 19:20 PM, 7 Apr 2021
ইমিউনিটি বাড়াতে ঘরে বসেই বানান এই চার 'বুস্টার' পানীয়
প্রতীকী ছবি।

করোনা পরিস্থিতিতে মানুষ এখন ভেষজ গুণের সন্ধানে ইন্টারনেটে সার্চ করে যাচ্ছেন। দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তেই আতঙ্ক যেন আরও ছড়িয়ে পড়েছে। তবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য শুধু অতিমারীতেই নয়, প্রত্যেক ঋতুতেই কিছু গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম পালন করলেই চলে। বিপদের সময় সকলেরই ঘুম ভাঙে। ভাইরাল সংক্রমণ থেকে বাঁচতে কিছু চটজলদি বুস্টার পানীয়ের দরকার পড়ে। সেই স্বাস্থ্যকর পানীয়গুলি থেকেই শরীরে পাবেন বাড়তি শক্তি।

খেজুর ও আমন্ডের স্মুদি

খেজুর ও আমন্ড উভয়ই ড্রাই ফ্রুটস। বাড়িতেই বানিয়ে নিতে পারেন স্বাস্থ্যকর ও সুস্বাদু এই পানীয়। বাড়িতে এমনিতেই খেজুর ও ড্রাই ফ্রুটস থাকে। দুধের সঙ্গে খেজুর ও আমন্ড ব্লেন্ড করে স্মুদি বানিয়ে ফেলুন। এই বুস্টার পানীয়ের জেরে ইমিউনিটি তো বাড়বেই বাড়বে।

বিট, লেবুর রস ও গাজরের জুস

বিটরুট, লেবুর রস ও গাজর শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী। যাঁদের রক্তাল্পতা রয়েছে, তাঁদের জন্য এই জুস বেশ কার্যকরী। সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতাও বৃদ্ধি পাবে। লেবু পেটের সমস্যা দূর করে। ফলে পেটের নানা সমস্যা থেকেও মুক্তি মিলবে।

লেবুর রস, গোলমরিচ ও গরম হলুদের জল

গরম জল শরীরের মধ্যে জমে থাকা টক্সিন বের করে দিতে সাহায্য করে। একই সঙ্গে ওজন নিয়ন্ত্রণ করতেও সক্ষম হয়। লেবুর রস, গোলমরিচ পাউডার, ও গরম জলের মধ্যে হলুদ মিশিয়ে একসঙ্গে ব্লেন্ড করুন। এই পানীয় খেলে শরীরে শক্তি সঞ্চয় হয়। ইমিউনিটি বাড়াতেও সাহায্য করে।

হলুদ মেশানো দুধ

যে কোনও চিকিত্‍সায় হলুদ অত্যন্ত উপকারী। অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টিবায়োটিক হিসেবে হলুদের ব্যবহার অপরিহার্য। দুধে থাকে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম। হলুদ মেশানো দুধে খেলে মন ও শরীর দুটোই ভালো থাকে।