The Origin Of Seekh Kebab: শিক কাবাবের গল্প এর স্বাদের মতই মজাদার!

ভারত ঐতিহ্যগতভাবে ছিল নিরামিষ খাবারের দেশ। রাজপুত অঞ্চল গুলিতে মাংস খাওয়ার চল থাকলেও সেগুলো রাজাদের শিকারের সময়ই লক্ষ্য করা গেছে। সুতরাং, বোঝাই যাচ্ছে যে, মাংসের এই পদের জন্মস্থান ভারত নয়। অনেকের ধারণা এই শিক কাবাবের জন্মদাতা নাকি মোঘল। কিন্তু ইতিহাস বলছে অন্য কথা।

The Origin Of Seekh Kebab: শিক কাবাবের গল্প এর স্বাদের মতই মজাদার!
শিক কাবাব

দক্ষিণ এশিয়া তথা ভারতের একটি জনপ্রিয় খাবার হল শিক কাবাব। এক প্রকার মাংসের তৈরি খাবার হল এই শিক কাবাব। মাটির উনুনের মধ্যে লোহার শিক ব্যবহার তৈরি করা হয় এই কাবাব। মোঘল সাম্রাজ্যের সময়কাল থেকে ভারতে চলে আসছে এই খাবারের চল।

ভারত ঐতিহ্যগতভাবে ছিল নিরামিষ খাবারের দেশ। রাজপুত অঞ্চল গুলিতে মাংস খাওয়ার চল থাকলেও সেগুলো রাজাদের শিকারের সময়ই লক্ষ্য করা গেছে। সুতরাং, বোঝাই যাচ্ছে যে, মাংসের এই পদের জন্মস্থান ভারত নয়। অনেকের ধারণা এই শিক কাবাবের জন্মদাতা নাকি মোঘল। কিন্তু ইতিহাস বলছে অন্য কথা।

শিক কাবাব জন্মের পর এটি শিশ কাবাব নামে পরিচিত ছিল। ভারতে এই খাবারের জনক হল তুর্কিরা। তুরস্কের ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে এই শিক কাবাব ভারতে প্রবেশ করেছিল। তুর্কি ভাষায়, শিশ শব্দটির আসল অর্থ একটি ‘তলোয়ার’ বা ‘শলা’ এবং কাবাব শব্দের অর্থ “রোস্ট করা”, অর্থাৎ তলোয়ারে রোস্ট করা খাদ্য।

kebab

শিক কাবাব

প্রচলিত রয়েছে যে, খোলা মাঠে জন্ম হয়েছিল এই শিশ কাবাবের। সেই সময় তুর্কির সৈন্যরা জঙ্গলে রাত কাটাত আর খাদ্যের জন্য খুঁজে বেড়াত বন্য পশু। সেই পশুর মাংস তাদের তলোয়ারে বিঁধে রোস্ট করত আগুনের ওপর, আর সেখানেই জন্ম নিল ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় খাবার শিক কাবাব। যদিও সেই সময় এই খাবার জঙ্গলে থাকা তুর্কির সৈন্যদের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। তুর্কিদের অ্যানাটোলিয়ায় যুদ্ধের সময়ও এই খাবারের উল্লেখ পাওয়া যায়। ভোজনরসিকরা মনে করেন যে, তাদের জয়ের পিছনে ছিল এই শিক কাবাব।

এছাড়াও, আরবের মত দেশ গুলিতে এই শিশ কাবাবের নাম লাহম মিশউই, যার অর্থ গ্রিলড করা মাংস। এই শিশ কাবাব গুলি আগে মশলা দিয়ে ম্যারিনেট করা হয়। তারপর সেটিকে চার-পার্শ্বযুক্ত ব্লেডযুক্ত ধাতব শলাগুলিতে লাগিয়ে আগুনে গ্রিল হয়। আগুনে গ্রিল করা হলেও এখানে মাংস কখনো গ্রিল গ্রেট স্পর্শ করে না।

আমাদের দেশেও কতকটা আরবের মত ভাবেই তৈরি করা হয় শিক কাবাব। এই কাবাবের মাংসকে ম্যারিনেট করার জন্য প্রয়োজন তেল, লেবুর রস, আদা, রসুন পেঁয়াজের রস, দুধ, দই, তেজপাতা, দারুচিনি, জিরা এবং অন্যান্য মশলার সংমিশ্রণ। তার আগে মাংসকে ভাল ভাবে পেস্ট করে নেওয়া হয়। ম্যারিনেট করা এই মাংসকে শলা বা কোনও শিকে লাগিয়ে আগুনের ওপর গ্রিল করা হয়। আর এই ভাবেই তৈরি হয় শিক কাবাব। পুদিনা ও ধনে পাতার চাটনির সঙ্গে লেবুর ও পিঁয়াজ দিয়ে পরিবেশিত হয় শিক কাবাব।

আরও পড়ুন: লাঞ্চ হোক কিংবা ডিনার, এবার স্টার্টারে বানিয়ে ফেলুন জাফরানি মালাই মাটন তন্দুরি…

আরও পড়ুন: পুজোর সময় লাঞ্চের মেনু তৈরি! এবার বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন এই মশলাদার তন্দুরি ধোকলা!

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla