KTM RC 390: কেটিএমের এই নতুন বাইকের প্রিবুকিং শুরু হয়েছে, ভারতে লঞ্চ হবে খুব তাড়াতাড়ি

কেটিএম- এর এই নতুন মডেলে রয়েছে নতুন ধরনের অ্যালয় হুইলস। কেটিএম- এর চিরাচরিত কমলা রঙের পরিবর্তে বাইকের চাকায় রয়েছে কালো রঙের ছোঁয়া। আর এই কালো রঙের শেড বেশ চকচকে।

KTM RC 390: কেটিএমের এই নতুন বাইকের প্রিবুকিং শুরু হয়েছে, ভারতে লঞ্চ হবে খুব তাড়াতাড়ি
কেটিএম- এর এই নতুন মডেলে রয়েছে নতুন ধরনের অ্যালয় হুইলস।

অস্ট্রিয়ার সংস্থা কেটিএম তাদের নিউ জেনারেশন কেটিএম আরসি ৩৯০ লঞ্চ করতে চলেছে খুব তাড়াতাড়ি। গ্লোবাল মার্কেটের পাশাপাশি ভারতেও লঞ্চ হবে এই বাইক। সূত্রের খবর, ভারতের বেশ কিছু কেটিএম বাইকের ডিলারশিপ ইতিমধ্যেই প্রিবুকিং শুরু করেছে। তবে সবটাই হচ্ছে আন-অফিশিয়াল ভাবে। একাধিকবার কেটিএম- এর এই নতুন বাইকের টেস্টিং হয়েছে। বিভিন্ন উপায়ে চলেছে টেস্ট ড্রাইভ বা রান। এবার পালা প্রিবুকিংয়ের। বাইকপ্রেমী, বিশেষ করে স্পোর্টস বাইক প্রেমীরা ৫ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে প্রিবুকিং করতে পারবেন বিভিন্ন ডিলারের কাছ থেকে। বর্তমানে কেটিএম আরসি ৩৯০ বাইকের দাম ২.৬৬ লক্ষ টাকা (এক্স শোরুম, দিল্লি)। তবে আগামী দিনে অন্তত ২০ হাজার টাকা দাম বাড়তে পারে এই বাইকের।

সম্পূর্ণ নতুন ডিজাইনে লঞ্চ হতে চলেছে কেটিএম- এর নতুন বাইক। উন্নত এরোডায়নামিক্স ফিচার, শার্প লুক, বড় আকারে লেখা ‘কেটিএম’ লোগো যা বাইকের গায়ে থাকবে এবং কালো রঙে আঁকা শার্প গ্র্যাফিক্স— এইসবই থাকছে কেটিএম- এর নতুন বাইকে। নতুন একটি গোলাকার ফুয়েল ট্যাঙ্কস থাকবে এই বাইকের মডেলে। আকার-আয়তনে অন্যান্য কেটিএম বাইকের তুলনায় এই ফুয়েল ট্যাঙ্ক কিছুটা বড়। নতুন জেনারেশনের কেটিএম মডেলে থাকছে কমলা এবং কালো রঙে কম্বিনেশন। বাইকের পিছনের অংশ বেশ সরু। সিটের ক্ষেত্রেও ডিজাইনে রয়েছে নতুনত্ব। দুট ভাগ করা রয়েছে সিটের মাঝখানে। এছাড়াও বাইকের পিছনের অংশে রয়েছে এলইডি লাইট এবং সাইড মাউন্টেড এগজস্ট সিস্টেম।

কেটিএম- এর এই নতুন মডেলে রয়েছে নতুন ধরনের অ্যালয় হুইলস। কেটিএম- এর চিরাচরিত কমলা রঙের পরিবর্তে বাইকের চাকায় রয়েছে কালো রঙের ছোঁয়া। আর এই কালো রঙের শেড বেশ চকচকে। বাইকের হেডলাইটের ডিজাইনেও রয়েছে নতুনত্ব। সম্প্রতি লঞ্চ হওয়া ৩৯০ ডিউক মডেলের সঙ্গে এই বাইকের দুটো প্রোজেক্টর লাইটের মিল রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে নতুন উইনডস্ক্রিন। সামনের অংশে রয়েছে আপ সাইড ডাউন ফর্কস। বাইকের দু’প্রান্তেই রয়েছে ডিস্ক ব্রেক। আর রয়েছে ডুয়াল চ্যানেল অ্যান্টি ব্রেকিং সিস্টেম। অনুমান করা হচ্ছে, এই বাইকে একটি নতুন ইলেকট্রনিক্স প্যাকেজও থাকবে। সেই সঙ্গে থাকতে পারে নতুন ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, টিএফটি কালার ডিসপ্লে, নতুন ডিজাইনের ইন্ডিকেটর লাইট।

আরও পড়ুন- 2021 Triumph Bonneville Bobber: জনপ্রিয়তা তুঙ্গে, একবছর পর ফের ভারতে ফিরল ট্রায়াম্ফের এই বাইক

কেটিএম আরসি ৩৯০ মডেলে থাকতে পারে ৩৭৩.২ সিসির ইঞ্জিন। সিঙ্গল সিলিন্ডার, লিকুইড কুলড ফুয়েল ইনজেকটেড এই ইঞ্জিন ৪২ বিএইচপি এবং ৩৫এনএম পিক টর্ক উৎপাদন করতে পারে। ৬ স্পিডের গিয়ার বক্স থাকতে পারে এই ইঞ্জিনের সঙ্গে। এছাড়াও কেটিএম- এর এই বাইকে থাকতে পারে স্লিপার ক্লাচ।