মায়াবী চাঁদ: ৫০ হাজার ছবি নিয়ে তৈরি হল চন্দ্রপৃষ্ঠের অপরূপ ছবি, সৌজন্যে পুণের কিশোর

প্রথমেশের তৈরি ছবিতে নীলচে এবং ধূসর রঙ দেখে বোঝা যাচ্ছে যে চন্দ্রপৃষ্ঠে বিভিন্ন ধরনের খনিজের সংমিশ্রণ রয়েছে। হাই রেসোলিউশনের এই ছবিতে চাঁদের বুকে থাকা বিভিন্ন গহ্বর স্পষ্ট ভাবেই বোঝা গিয়েছে।

মায়াবী চাঁদ: ৫০ হাজার ছবি নিয়ে তৈরি হল চন্দ্রপৃষ্ঠের অপরূপ ছবি, সৌজন্যে পুণের কিশোর
পুণের ১৬ বছরের প্রথমেশ জাজু তৈরি করেছেন এই ছবি।

চাঁদের সৌন্দর্য নিয়ে লোকমুখে কত কথাই না প্রচলিত রয়েছে। অনেকে আবার বলেন, সুন্দর হলেও চাঁদের গায়ে দাগ রয়েছে। সাধারণ মানুষ খালি চোখে রাতের আকাশের উজ্জ্বল চাঁদ দেখেই মননে বুনেছে নানা কল্পকথা। এইসব গল্পের কতটা সত্যি তা জানা নেই কারও। আর আমআদমি তো কখনই চন্দ্রপৃষ্ঠে গিয়ে বাস্তবটা চাক্ষুষ করার সুযোগ পাবেন না। এ যাত্রায় নভশ্চরদের চোখই আমাদের ভরসা।

তবে সম্প্রতি চাঁদের একদম নিখুঁত থ্রি-ডি ঝকঝকে ছবি তৈরি করেছে পুণের ১৬ বছরের ছেলে প্রথমেশ জাজু। ৫০ হাজার ছবি একসঙ্গে নিয়ে, অর্থাৎ ৫০ হাজার ছবির কম্পোজিশনে তৈরি হয়েছে চাঁদের ওই নিখুঁত ছবি। নিজেকে একজন ‘অ্যামেচার অ্যাস্ট্রোনমার’ এবং ‘অ্যাস্ট্রোফটোগ্রাফার’ বলতে পছন্দ করে প্রথমেশ। সে জানিয়েছে, প্রায় ৫০ মেগাপিক্সেলের সুবিশাল এই ছবির আয়তন ১৮৬ জিবি ডেটার থেকেও বেশি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Prathamesh Jaju (@prathameshjaju)

compositing টেকনিকের সাহায্যে চাঁদের এই মায়াবী ছবি তৈরি করেছে প্রথমেশ। এই প্রযুক্তির সাহায্যে সাধারণত বিভিন্ন ছবি একসঙ্গে করে একটি ছবি বা ইলিউশন তৈরির ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। এক্ষেত্রে যেসব ছবি একসঙ্গে নিয়ে একটি মূল ছবি তৈরি হয়, সেই অসংখ্য ছবি বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া যায়। প্রথমেশ জানিয়েছে, মোবাইল ভিউয়ের জন্যই চাঁদের এই নিখুঁত ছবি তৈরি করেছে সে। নিজেই ছবির নাম দিয়েছে ‘HDR last quarter mineral Moon’।

প্রথমেশের তৈরি ছবিতে নীলচে এবং ধূসর রঙ দেখে বোঝা যাচ্ছে যে চন্দ্রপৃষ্ঠে বিভিন্ন ধরনের খনিজের সংমিশ্রণ রয়েছে। হাই রেসোলিউশনের এই ছবিতে চাঁদের বুকে থাকা বিভিন্ন গহ্বর স্পষ্ট ভাবেই বোঝা গিয়েছে। মহারাষ্ট্রের এই কিশোর জানিয়েছেন, ১৫০০ এবং ৩০০০ মিলিমিটার ফোকাল লেংথের ৩৮টি প্যানেলে সে ছবি তুলেছে। এক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে ১.২ মেগাপিক্সেলের ZWO ASI120MC-S অ্যাস্ট্রোনমি ক্যামেরা। এছাড়াও Celestron 5 Cassegrain Optical Tube Assembly- এই ইন্সট্রুমেন্টও ব্যবহার করা হয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের এই সুবিশাল ছবি তৈরির জন্য।

আরও পড়ুন- মঙ্গলগ্রহের বুকে উড়ছে নাসার মার্স হেলিকপ্টার Ingenuity, থ্রি-ডি ভিডিয়ো দেখে মুগ্ধ নেটিজ়েনরা

ইনস্টাগ্রামে ভাইরাল হয়েছে চাঁদের এমন অপরূপ সৌন্দর্যের ছবি। ফুল মুন বা পূর্ণিমার এক সপ্তাহ পরে থাকে last quarter moon। এই সময় চাঁদের অর্ধেক অংশ আলোকিত এবং বাকি অর্ধেক অংশ অন্ধকারাচ্ছন্ন থাকে। পৃথিবী থেকে এইসময় চাঁদের আলোকিত অর্ধাংশ দেখা যায়। তাকে বলা হয় third-quarter moon। মধ্যরাত থেকে আকাশে দেখা যায় এই চাঁদ। ভোররাত পর্যন্ত ভাল ভাবেই দেখা যায় চাঁদের আলোকিত অর্ধেক অংশ বা তার থেকে কিছুটা কম।