করোনা রুখতে ‘যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে’ কোন ৫ বিশেষ বার্তা দিলেন নমো?

বৈঠকে করোনা রোখার জন্য একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিলেন নমো।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 0:04 AM, 9 Apr 2021
করোনা রুখতে 'যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে' কোন ৫ বিশেষ বার্তা দিলেন নমো?
ফাইল চিত্র

নয়া দিল্লি: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ২৬ হাজার মানুষ। যা সর্বকালীন সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। ভারতে করোনা কামড় বসানোর পর থেকে এটাই একদিনে সর্বোচ্চ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এই আবহে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। সেই বৈঠকে করোনা রোখার জন্য একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিলেন নমো।

করোনা কার্ফু: প্রধানমন্ত্রী করোনা রোখার জন্য মাইক্রো কনটেইনমেন্ট জ়োন গড়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মাইক্রো কনটেইনমেন্ট জ়োন করে করোনা রোখার জন্য সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিজ নিজ রাজ্যে প্রয়জনমতো ‘করোনা কার্ফু’ করার নির্দেশ দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

৭০ শতাংশ আরটি-পিসিআর: প্রত্যেক রাজ্যকে ৭০ শতাংশ আরটি-পিসিআর করোনা পরীক্ষা করার লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিয়েছেন নমো। প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এটাই ভাইরাস চিহ্নিত করার একমাত্র উপায়।”

পজিটিভিটি রেট ৫ শতাংশ: স্রেফ একদিনে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ২৬ হাজারেরও বেশি মানুষ। এই আবহে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে কী বার্তা দেন নমো? সে দিকেই তাকিয়েছিল গোটা দেশ। যেহেতু এখন বেশিরভাগ করোনা আক্রান্তরাই অ্যাসিম্পটমেটিক অর্থাৎ উপসর্গহীন তাই করোনা পরীক্ষা দ্রুত এবং করোনা আক্রান্তের হার ৫ শতাংশের নীচে নামিয়ে আনার লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দেন প্রধানমন্ত্রী।

টিকা উৎসব: প্রধানমন্ত্রী আরও দ্রুত টিকাকরণের জন্য ‘টিকা উৎসব’ পালন করার আর্জি জানান। ১১ থেকে ১৪ এপ্রিল দেশে ‘টিকা উৎসব’ পালন করার নির্দেশ দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। এর আগে রবিবার উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সে বার করোনা বিধ্বস্ত ৩ রাজ্য, মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব ও ছত্তীসগঢ়ে কেন্দ্রীয় দল পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন মোদী।

সচেতনতা বৃদ্ধি: প্রত্যেক রাজ্যকে সর্বদলীয় বৈঠক করার পরামর্শ দিয়েছেন মোদী। সেখানে রাজ্যপালকেও সঙ্গে নিয়ে বৈঠক সারতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। পাশপাশি প্রত্যেকের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বেশি করে প্রচারে জোর দিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: কাশী বিশ্বনাথের মন্দির, জ্ঞানবাপি মসজিদ দেখতে যাবেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা