রাষ্ট্রপতি পদে বিজেপির প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু, দেশ কি এবার পাবে প্রথম আদিবাসী মহিলা রাষ্ট্রপতি?

রাষ্ট্রপতি পদে বিজেপির প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু, দেশ কি এবার পাবে প্রথম আদিবাসী মহিলা রাষ্ট্রপতি?
ফাইল চিত্র

মঙ্গলবার (২১ জুন) নয়া দিল্লির বিজেপির সদর দফতর থেকে আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য এনডিএ পদপ্রার্থী হিসাবে দ্রৌপদী মুর্মুর নাম ঘোষণা করলেন বিজেপি জাতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।

Amartya Lahiri

| Edited By: Sanjoy Paikar

Jun 22, 2022 | 3:05 PM

নয়া দিল্লি: ভারত কি এবার দেশের প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতি পেতে চলেছে? মঙ্গলবার (২১ জুন) নয়া দিল্লির বিজেপির সদর দফতর থেকে আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য এনডিএ পদপ্রার্থী হিসাবে দ্রৌপদী মুর্মুর নাম ঘোষণা করলেন বিজেপি জাতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। এর আগে ২০১৫ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ঝাড়খণ্ড রাজ্যের রাজ্যপালের দায়িত্ব পালন করেছিলেন এই আদিবাসী নেত্রী। ২০১৭ সালে দলিত মুখ হিসাবে রামনাথ কোবিন্দকে রাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচিত করেছিল এনডিএ। এবার, তাঁরা রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করল এক আদিবাসী মহিলা মুখকে। সবকিছু ঠিক থাকলে, তাঁর জয় পেতেও অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। কারণ নম্বর রয়েছে বিজেপির পক্ষেই। প্রসঙ্গত এদিনই বিরোধী দলগুলি সর্বসম্মত ভাবে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসাবে যশবন্ত সিনহার নাম ঘোষণা করেছে।

বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল এইবার রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে একজন আদিবাসী মুখকে প্রার্থী করতে চলেছে এনডিএ। দৌড়ে ছিল চারটি নাম – অর্জুন মুন্ডা, জুয়েল ওরাওঁ, দ্রৌপদী মুর্মু এবং অনসূয়া উইকে। এই চার জন্র মধ্যে আবার মহিলা হওয়ায় একটু এগিয়ে ছিলেন অনসূয়া উইকে এবং দ্রৌপদী মুর্মুই। শেষ পর্যন্ত মনোনয়ন পেলেন দ্রৌপদী মুর্মু।

ওড়িশার ময়ুরভঞ্জ জেলার বাসিন্দা দ্রৌপদী মুর্মু। তিনি ছিলেন একজন শিক্ষিকা। ১৯৯৭ সালে রাজনীতিতে এসেছিলেন দ্রৌপদী। বিজেপির এসটি সেলের প্রধানের দায়িত্ব দেওয়া হয়েচিল তাঁকে। এরপর, ২০০০ এবং ২০০৫ সালে – পরপর দুবার ওড়িশার রায়রাংপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। সেই সময় রাজ্যে ভারতীয় জনতা পার্টি এবং বিজু জনতা দলের জোট সরকার ছিল। সেই সরকারের বাণিজ্য ও পরিবহন দফতরের প্রতিমন্ত্রী ছিলেন দ্রৌপদী। পরে মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ উন্নয়ন দফতরের প্রতিমন্ত্রী হন। ২০০৭ সালে সেরা বিধায়ক হিসাবে ‘নীলকন্ঠ’ পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

২০১৫ সালে তাঁকে ঝাড়খণ্ড জেলার রাজ্যপাল মনোনীত করা হয়েছিল। তিনিই ঝাড়খণ্ড রাজ্যের প্রথম মহিলা রাজ্যপাল। পাশাপাশি ওড়িশা রাজ্য থেকে মহিলা এবং আদিবাসী নেত্রী হিসাবে তিনি একটি রাজ্যের রাজ্যপালের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। ২০২১ সাল পর্যন্ত এই পদেই ছিলেন তিনি। এবার কি তাঁর গন্তব্য রাইসিনা হিলস? জবাব মিলবে ১৮ জুলাই। ওই দিনই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২১ জুলাই হবে ভোট গণনা। আগামী ২৪ জুলাই মেয়াদ শেষ হচ্ছে বর্তমান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের।

একক ভাবে অথবা জোট গড়ে মোট ১৭টি রাজ্যে সরকার চালাচ্ছে বিজেপি। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ভোটের থেকে, মাত্র হাজারখানেক ভোট কম রয়েছে এনডিএ-র হাতে। কাজেই পরের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের বিষয়টি গেরুয়া শিবিরের হাতেই রয়েছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA