‘২০২৪-এ খেলা হবে’, যুব সভানেত্রী হিসেবে প্রথম দিন অফিসে গিয়ে বললেন সায়নী

'আজ থেকে এটাই আমার অফিস', নতুন দায়িত্ব পেয়েই জানালেন সায়নী (Saayoni Ghosh)।

'২০২৪-এ খেলা হবে', যুব সভানেত্রী হিসেবে প্রথম দিন অফিসে গিয়ে বললেন সায়নী
ফাইল ছবি
tannistha bhandari

|

Jun 07, 2021 | 9:16 PM

কলকাতা: অভিনেত্রী হলেও বরাবরই বিভিন্ন বিষয়ে মত প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে সায়নী ঘোষকে। বিভিন্ন মন্তব্যে বা টুইটে বিতর্কের শিরোনামেও এসেছেন তিনি। মূলত জনপ্রিয়তাই তাঁকে প্রার্থী হওয়ার সুযোগ দিয়েছিল। তবে এবার গুরুদায়িত্ব। তৃণমূলের যুব সভানেত্রীর দায়িত্ব তাঁর কাঁধে। আর দায়িত্ব পেয়ে সপ্তাহেই প্রথম দিনেই অফিসে ছুটলেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেওয়া দায়িত্ব পালন করতে তিনি যে সবরকমের চেষ্টা করবেন, সে কথা বুঝিয়ে দিলেন সায়নী। আর সেই সঙ্গে ২০২৪-এ ‘খেলা হবে’ বলেও উল্লেখ করলেন তিনি।

সোমবার সকালে তৃণমূল ভবনে যান সায়নী। তিনি জানান, এর আগে মাত্র একবার তৃণমূল ভবনে এসেছেন। আর এটা দ্বিতীয়বার তৃণমূল ভবনে দফতর চিনে নেওয়া থেকে শুরু করে সেখানকার কর্মীদের সঙ্গে আলাপ করাই তাঁর প্রথম কাজ। আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে তিনি বললেন, ‘দু-এক দিনের মধ্যে সবটাই বুঝে নেব।’ সায়নী বলেন, ‘আসানসোলে ছোট পরিসরের মধ্যে সংগঠনটা করার চেষ্টা করেছিলাম, সেটা দিদি দেখেছেন বলেই এই দায়িত্ব দিয়েছেন।’ এই বিষয়ে তৃণমূল সুপ্রিমোর সঙ্গে কথা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন সায়নী। মমতা তাঁকে বলেছেন, ‘জমিয়ে কাজ কর।’ সদ্য এই পদ ছেড়ে যাওয়া অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে এই বিষয়ে ইনপুট নিয়ে কাজ করবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: ‘আঙ্কেলজি আপনার OSD-রা আগে কী করতেন? বিজেপির আইটি সেল আপনাকে রক্ষা করতে পারবে না’: রাজ্যপাল-মহুয়া টুইট যুদ্ধ

২০২৪-এর লক্ষ্যেই মমতা এই টিম সাজিয়েছেন বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। এ দিন সেই বিষয়ে সায়নীকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘খেলা হবে। ২০২৪-এ খেলা হবে।’ উল্লেখ্য, ২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের অন্যতম জনপ্রিয় স্লোগান ছিল ‘খেলা হবে।’ মুখ্যমন্ত্রী মমতা-সহ সব প্রার্থীদের মুখে শোনা গিয়েছে এই স্লোগান। ২৪-এ লোকসভার ক্ষেত্রেও যে তৃণমূল অন্যতম শক্তি হয়ে উঠতে চাইছে, সেই ইঙ্গিত এ দিন পাওয়া গেল সায়নীর কথায়।

নতুন পদ পাওয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় সায়নী জানিয়েছেন, “চ্যালেঞ্জ ছাড়া এগনো যায় না। যাঁরা আমাকে এই দায়িত্ব দিয়েছেন, তাঁরা তো আর রাজনীতিতে নতুন নন। তাঁরা জানেন কাকে দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে। কার ওপর ভরসা করা যেতে পারে। আমার কাছে এটা একটা বিশাল বিশাল অপরচুনেটি।” তাঁর কথায়, “আমি নিজের দেড়শো শতাংশ দিয়ে দলের জন্য কাজ করব, মা-মাটি-মানুষের জন্য কাজ করব। এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য কাজ করব।”

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla