Curd for Beauty: গরমে অস্বস্তি এড়াতে চান? রোজ এক বাটি টক দই খান আর ২ চামচ মুখে মাখুন

Summer Skin Care: ক্যালশিয়াম, ভিটামিন ডি, প্রোটিন ও বিভিন্ন পুষ্টিতে ভরপুর টক দই। সর্বোপরি এতে রয়েছে ল্যাকটিক অ্যাসিড। এই ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বকের উপরিতলে জমে থাকা মৃত কোষের স্তর পরিষ্কার করে। পাশাপাশি বলিরেখা সহ বার্ধক্যের লক্ষণগুলোর সঙ্গে লড়াই করে।

Curd for Beauty: গরমে অস্বস্তি এড়াতে চান? রোজ এক বাটি টক দই খান আর ২ চামচ মুখে মাখুন
Follow Us:
| Updated on: Apr 01, 2024 | 1:13 PM

গরম বাড়ছে। হয়তো বৈশাখ মাস আসতেই যে কোনও মুহূর্তে ৪০ ডিগ্রি ছুঁয়ে ফেলবে তাপমাত্রা। তাই এখন থেকে ডায়েটে রাখতে হবে এক বাটি টক দই। শরীরকে ঠান্ডা রাখে এই খাবার। আর শরীরের সঙ্গে গরমে ত্বকের যত্ন নিতে বাটি থেকে ২ চামচ টক দই সরিয়ে রাখুন। গরমে ত্বকের দফারফা হয়ে যায়। ঘাম, দূষণ, তেলতেলে ভাব ত্বকের অবস্থা খারাপ করে দেয়। সেখানেই একা লড়াই করে টক দই।

ক্যালশিয়াম, ভিটামিন ডি, প্রোটিন ও বিভিন্ন পুষ্টিতে ভরপুর টক দই। সর্বোপরি এতে রয়েছে ল্যাকটিক অ্যাসিড। এই ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বকের উপরিতলে জমে থাকা মৃত কোষের স্তর পরিষ্কার করে। পাশাপাশি বলিরেখা সহ বার্ধক্যের লক্ষণগুলোর সঙ্গে লড়াই করে। এছাড়া ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে নরম ও কোমল করে তোলে। এমনকি ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় এবং ব্রণ প্রতিরোধে সাহায্য করে। গরমকালে ত্বকে টক দই মেখে আপনি ট্যানও দূর করতে পারেন। গরমকালে কোন ৫ উপায়ে টক দই ব্যবহার করতে পারবেন, দেখে নিন।

ময়েশ্চারাইজার হিসেবে মাখুন টক দই: গরমকালেও ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখা দরকার। কিন্তু গরমে তো আর ফেস ক্রিম মাখা যায় না। টক দইয়ের সঙ্গে মধু মিশিয়ে ত্বকের উপর লাগান। ১৫ মিনিট রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখবে এবং ত্বককে নরম করে তুলবে।

এই খবরটিও পড়ুন

সানবার্ন থেকে মুক্তি: যতই সানস্ক্রিন মেখে রাস্তায় বেরোন, সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির হাত থেকে ত্বককে সম্পূর্ণরূপে রক্ষা করা কঠিন। ট্যান পড়ে, তার সঙ্গে ত্বক পুড়ে যায়। বাড়ে সানবার্নের সমস্যা। ট্যান ও সানবার্ন দুটো থেকেই মুক্তি দিতে পারে টক দই। দইয়ের মধ্যে জিঙ্ক ও অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি রয়েছে, যা ত্বকের প্রদাহ কমায়।

ব্রণ প্রতিরোধ করে: গরমকালে ব্রণর সমস্যাও বাড়ে। কিন্তু নিয়মিত টক দই মাখলে ব্রণও আপনার ধারে কাছে ঘেঁষবে না। টক দইয়ের মধ্যে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি ও অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে। এটি ব্রণর ব্যথা, ফোলাভাব ও লালচে ভাব কমাতে সাহায্য করে।

ডার্ক সার্কেল দূর করে: টক দইয়ের মধ্যে ল্যাকটিক অ্যাসিড রয়েছে, যা ত্বক থেকে দাগছোপ দূর করতে সহায়ক। চোখের চারপাশে টক দই লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এটি ডার্ক সার্কেলের পাশাপাশি ত্বকের যাবতীয় দাগছোপও দূর করে দেবে।

উন্নত করে চুলের মান: চুলের উপর কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে টক দই। টক দইয়ের সঙ্গে ডিম মিশিয়ে চুলে মাখতে পারেন। এই মিশ্রণটি চুলে ৩০ মিনিট লাগিয়ে রেখে শ্যাম্পু করে নিন। এটি চুলকে নরম ও কোমল করে তোলে।