Hair Care Tips: চুলের ভাল করতে গিয়ে উল্টে ক্ষতি করছেন না তো! যত্নে রাখতে মেনে চুলুন এই ৬টি নিয়ম

Hair Care Routine: চুলের টেক্সচার নষ্ট হয়ে যাওয়া, অকালে চুল পড়ে পাতলা হয়ে যাওয়ার মত সাধারণ সমস্যাগুলিও হয় আমাদের কয়েকটি বাজে অভ্যেসের কারণে।

Hair Care Tips: চুলের ভাল করতে গিয়ে উল্টে ক্ষতি করছেন না তো! যত্নে রাখতে মেনে চুলুন এই ৬টি নিয়ম
TV9 Bangla Digital

| Edited By: dipta das

Aug 06, 2022 | 9:33 AM

পুজো আসছে, তার আগে ত্বক ও চুলের যত্ন (Hair Care) নেওয়ার তোড়জোড় পড়ে গিয়েছে এখন থেকেই। তবে চুলের যত্ন নিতে গেলে সময় দিতে হয় অনেকটাই। সেই সময় ব্যয় করার সময়ও নেই অধিকাংশের। তাই পকেটের টাকা খসিয়েই পার্লারে গিয়ে চুলের কালার বা স্পা (Hair Spa) করাতে যেতে বাধ্য হচ্ছেন বহু মহিলা। তবে পার্লার বা ঘরোয়া পদ্ধতিতে চুলের যত্ন নেওয়া ভাল। কিন্তু এমন অনেক জিনিস রয়েছে, যা প্রতিদিন মেনে চললে চুল থাকে স্বাস্থ্যকর (Healthy Hair) ও উজ্জ্বল। চুলের টেক্সচার নষ্ট হয়ে যাওয়া, অকালে চুল পড়ে পাতলা হয়ে যাওয়ার মত সাধারণ সমস্যাগুলিও হয় আমাদের কয়েকটি বাজে অভ্যেসের (Bad Habits) কারণে। সেই অভ্যাসগুলি যদি দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে সঙ্গে বদলে ফেলা যায় তাহলেই চুলের ক্ষতি থেকে রেহাই পাওয়া যাবে দ্রুত। চুলের যত্ন নিতে গিয়ে যে যে জিনিস মাথায় রাখতে হবে, তা দেখে নিন এখানে…

ঘন ঘন শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধোবেন না: ঘন ঘন শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুল স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। অনেক রাসায়নিক আছে, যেগুলি মাথার ত্বকের প্রাকৃতিক তেলকে ধুয়ে ফেলতে পারে। তাতে মাথার ত্বক শুষ্ক, নিস্তেজ ও চুলের গোড়া থেকে দুর্বল করে দেয়। এছাড়াও প্রচুর শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুলও পড়ে যায়। চুলের বিশেষজ্ঞদের মতে, কোন স্থানে আপনি বসবাস করছেন, সেখানকার জলের গুণের উপরও নির্ভর করে। সপ্তাহে মাত্র ২ বার চুলে শ্যাম্পু করা ভাল।

মাথার ত্বকে কন্ডিশনার লাগাবেন না: শ্যাম্পু করার পর চুলকে কন্ডিশন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু সঠিকভাবে কোন স্থান প্রয়োগ করতে হবে, তা জানা অত্যন্ত জরুরি। স্বাস্থ্যকর ও ঝলমলে চুলের জন্য মাথার তালু এড়িয়ে গোটা চুলে কন্ডিশনার লাগাতে পারেন।

বেশিক্ষণ চুল বেঁধে রাখবেন না: চুল পনিটেল বা বিনুনি করে বেশিক্ষণ রাখলে বেশ আরাম লাগে। বিশেষ করে প্রচণ্ড গরমে আরাম লাগলেও চুলের জন্য তা ভাল নয়। হেয়ার ব্যান্ডের সীমাবদ্ধতা ক্রমাগত শিকড় দুর্বল করে তোলে। মাথার ত্বকের ক্ষতি করে। পরিবর্তে ঠিক সময়ে চুল খুলে ব্রাশ দিয়ে আঁচড়ে নিন। তাতে চুল কিছুটা বিশ্রাম নিতে পারবে।

ঘন ঘন চুল আঁচড়াবেন না: বুদ্ধিমানের সঙ্গে চুলে চিরুনি ব্যবহার করুন। চুলের ব্রাশ যেন ভাল মানের হয় তা দেখাও জরুরি। প্রতি ঘণ্টায় ব্রাশ করবেন না, কারণ তাতে ভালর চেয়ে উল্টে ক্ষতি হতে পারে। চুলে অতিরিক্ত চিরুনি প্রয়োগ করলে চুলের শিকড় দুর্বল হয়ে যায়। তাতে চুল প্রচুর পরিমাণে ঝরতে শুরু করে।

ভেজা চুলে আঁচড়াবেন না: ভেজা চুল আঁচড়ানো স্বাস্থ্যের জন্য ভাল নয়। এতে প্রচুর চুল ভেঙে যায় এবং শিকড়ও দুর্বল হয়ে পড়ে। কিছু সময়ের জন্য স্বাভাবিকভাবে চুল শুকাতে দিন এবং তারপরে একটি চওড়া-দাঁতওয়ালা চিরুনি বা ব্রাশ দিয়ে আঁচড়ে নিন। চুল ভিজে থাকলে আঙুল ব্যবহার করে ব্রাশের মত চুল আঁচড়ে নিতে পারেন।

এই খবরটিও পড়ুন

স্টাইলিংয়ের জন্য সব সময় হিট প্রোডাক্ট ব্যবহার করবেন না: সবসময় হেয়ারস্টাইল হতে হবে পারফেক্ট, এমনটা ভাবাও ভুল। বাইরে বের হলে স্টাইলিং ও হিট প্রোডাক্ট ব্যবহার করে থাকলে, চুলের স্বাস্থ্যের পরিণতি বেশ ভয়াবহ হতে চলেছে। হেয়ার ড্রায়ার বা স্ট্রেটনার ব্যবহার করার ফলে চুল বেশি মাত্রায় শুষ্ক হয়ে যায়। যদি স্ট্রেটনিং বা কার্লিং পছন্দ করেন তবে তার আগে একটি তাপ সুরক্ষা স্প্রে ব্যবহার করুন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla